মংডুর গ্রামে পোড়া লাশ ধরে স্বজনের আর্তি | daily-sun.com

রোহিঙ্গাদের পোস্ট করা ভিডিও:

মংডুর গ্রামে পোড়া লাশ ধরে স্বজনের আর্তি

ডেইলি সান অনলাইন     ১৯ নভেম্বর, ২০১৬ ১৪:৩২ টাprinter

মংডুর গ্রামে পোড়া লাশ ধরে স্বজনের আর্তি

ইউটিউবে পোস্ট করা ভিডিওটিতে এই মহিলাকে দেখা যায় আগুনে পুড়ে অঙ্গার হয়ে যাওয়া স্বজনের মৃতদেহের মুখে হাত বুলাতে

 

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমান সমর্থিত রোহিঙ্গা ভিশন নামে একটি ওয়েবসাইটে পোস্ট করা একটি ভিডিওচিত্রে, কিছু আগুনে পোড়া মৃতদেহ এবং এগুলোকে ঘিরে তাদের স্বজনদের আর্তনাদ করতে দেখা গেছে। ভিডিওটির বিস্তারিততে বলা হয়েছে, রাখাইন রাজ্যের মংডুর উত্তরাঞ্চলীয় একটি গ্রামে গত ১৩ই নভেম্বর অন্তত ৯ জন মানুষকে জীবন্ত পুড়িয়ে মেরে ফেলে দেশটির সেনাবাহিনী। ওই দিনের পর থেকে ওই গ্রামের আরো ৯০ জন নারী-পুরুষ-শিশুর সন্ধান আজো পাওয়া যায়নি বলেও এতে উল্লেখ রয়েছে।


এলাকাটি বাংলাদেশের সীমান্ত থেকে খুব কাছে। ভিডিওটিকে নিরপেক্ষভাবে যাচাই করা সম্ভব হয়নি। তবে এতে যাদেরকে দেখানো হয়েছে তাদের ভাষা অনেকটা বাংলাদেশের চট্টগ্রাম এলাকার আঞ্চলিক ভাষার মতই। মিয়ানমারের রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের মানুষকে বিভিন্ন সময়ে এরকম ভাষাতে কথা বলতে দেখা গেছে।


ভিডিওতে আগুনে পোড়া ধ্বংসস্তূপের মধ্যে তিনটি মৃতদেহও দেখানো হয়। মৃতদেহগুলোর আকার দেখে বোঝা যায় এগুলো মানুষের মৃতদেহ, তবে পরিচয় উদ্ধারের কোন উপায় নেই।

 

মংডুর একটি মুসলিম অধ্যুষিত গ্রামে গত অক্টোবর মাসে অগ্নিসংযোগের পর..

 

ভিডিওতে একটি মৃতদেহের পাশে বসে দুই মহিলাকে কাঁদতে দেখা যায়। এক মহিলা মৃতদেহটির মুখে হাত বোলাচ্ছিলেন এবং বিলাপ করছিলেন। পাশেই ছিল আরো একটি মৃতদেহ।


ভিডিওচিত্রটিতে একজন ধারাভাষ্য দিচ্ছিলেন, সম্ভবত ভিডিওটিও তিনিই ধারণ করছিলেন। তাকে দেখা যায়নি। তবে তিনি বলছিলেন, মিয়ানমারের সেনাবাহিনী গত ১৩ই নভেম্বর এই ঘটনা ঘটিয়েছে।

 

-সূত্র: বিবিসি বাংলা

 


Top