নিরাপত্তা শঙ্কায় মঞ্চ থেকে নেমে গেলেন ট্রাম্প | daily-sun.com

নিরাপত্তা শঙ্কায় মঞ্চ থেকে নেমে গেলেন ট্রাম্প

ডেইলি সান অনলাইন     ৬ নভেম্বর, ২০১৬ ১৩:০০ টাprinter

নিরাপত্তা শঙ্কায় মঞ্চ থেকে নেমে গেলেন ট্রাম্প

 


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের শেষ সময়ের প্রচারণায় দোদুল‌্যমান অঙ্গরাজ‌্যগুলো চষে বেড়াচ্ছেন ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন ও রিপাবলিকান দলীয় প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এই নির্বাচনে হিলারি ও ট্রাম্পের মধ‌্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলে আভাস পাওয়া যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের ১৩ অঙ্গরাজ‌্যকে ব‌্যাটল গ্রাউন্ড বলে বিবেচনা করা হচ্ছে। এই রাজ‌্যগুলোর ভোটের ফলাফলেই দেশটির পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হবেন এটা একরকম নিশ্চিত। তাই নির্বাচনের মাত্র দুই দিন আগে শনিবার এসব রাজ‌্যগুলোতে প্রচারণা চালিয়েছেন এগিয়ে থাকা দুই প্রার্থী।   


এরই মধ‌্যে অন‌্যতম দোদুল‌্যমান রাজ‌্য নেভাদায় ট্রাম্পের সমাবেশে রিপাবলিকান প্রার্থীর নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছিল। তবে হুমকির ধরনটি পরিষ্কার নয়। নেভাদার রেনো শহরে ওই প্রচারণা সমাবেশে ট্রাম্প ভাষণ দেওয়ার সময় সিক্রেট সার্ভিসের দুই এজেন্ট তার কাঁধ ধরে তাড়াহুড়া করে তাকে মঞ্চের পেছন দিকে নিয়ে যান। অপরদিকে উপস্থিত সমর্থকদের সামনে থাকা এক শ্বেতকায় ব‌্যক্তির ওপর বহুসংখ‌্যক পুলিশ ঝাঁপিয়ে পড়ে। ওই ব‌্যক্তির মাথা নিচু করে মেঝের দিকে ধরে রেখে তার শরীর তল্লাশি করে পুলিশ। কিছুক্ষণের মধ‌্যেই তাকে পেছনে হাতমোড়া করে বেঁধে ধরে নিয়ে যায় পুলিশ।


এরপর ট্রাম্প মঞ্চে ফিরে এসে ফের বক্তৃতা শুরু করেন, এ সময় তাকে দেখে কিছু ঘটেছে বলে মনে হচ্ছিল না। এ সময় সিক্রেট সার্ভিসের দুই এজেন্ট ট্রাম্পকে সরিয়ে নেন। ঘটনাস্থলে থাকা সিএনএন এর একজন প্রত‌্যক্ষদর্শী সাংবাদিক জানিয়েছন, কেউ কোনো অস্ত্র দেখেনি। এক বিবৃতিতে ট্রাম্প রেনোর সিক্রেট সার্ভিস এবং নেভাদার আইন প্রয়োগকারীদের তাদের দ্রুত ও পেশাদারি পদক্ষেপের জন‌্য ধন‌্যবাদ জানিয়েছেন।


অপরদিকে আরেক দোদুল‌্যমান অঙ্গরাজ‌্য পেনসিল‌ভ‌্যানিয়ার ফিলাডেলফিয়ায় হিলারি প্রচারণা সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন পপ গানের তারকা কেটি পেরি। এই সমাবেশে হিলারি বলেন, যখন আপনার সন্তান ও নাতি-নাতনিরা জিজ্ঞেস করবে, ২০১৬ সালে আপনি কি করেছিলেন, আমি চাই আপনার যেন বলেতে পারেন আমি আরও ভালো ও শক্তিশালী আমেরিকার জন‌্য ভোট দিয়েছিলাম। মতামত জরিপে দেখা গেছে, যে অঙ্গরাজ‌্যগুলোকে ব‌্যাটল গ্রাউন্ড বলা হচ্ছে সেগুলোতে এখনও এগিয়ে আছেন, তবে অগ্রগামিতা হ্রাস পেয়েছে। শনিবার প্রকাশিত ম‌্যাকক্ল‌্যাচি-ম‌্যারিস্টের মতামত জরিপের ফলাফলে দেখা গেছে, জাতীয়ভাবে ট্রাম্পের চেয়ে এক শতাংশ পয়েন্টে এগিয়ে আছেন হিলারি।

 


Top