নতুন রূপে পামেলার ফিরে আসা! | daily-sun.com

নতুন রূপে পামেলার ফিরে আসা!

ডেইলি সান অনলাইন     ২০ অক্টোবর, ২০১৬ ১৭:০৬ টাprinter

নতুন রূপে পামেলার ফিরে আসা!

এ বছরের শেষ দিকে বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য ঘটনা ঘটে গেছে। বব ডিলান সাহিত্যে নোবেল পেয়েছেন। ব্রিটিশ রাজনীতিবিদ নাইজেল ফারাগি গোঁফ রেখেছেন। এটা অনেকের কাছে এক বিশাল অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। আরেকটি ঘটনা হলো, দ্য গ্রেট ব্রিটিশ বেক অফ থেকে বের হয়ে যাবেন মেরি বেরি।

কিন্তু এসব ঘটনার চেয়েও আকর্ষণীয় ঘটনা ঘটে অন্য একজনকে নিয়ে। তিনি আর কেউ নন, সাবেক বে ওয়াচ সেনসেশন পামেলা অ্যান্ডারসন। তিনি নিজেকে একজন রাজনৈতিক কর্মী ও আন্দোলনকারী হিসাবে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছেন।

এক সময়ের হট বম্বের বয়স এখন ৪৯ বছর। এখনো কম যান না। সম্প্রতি অক্সফোর্ড ইউনিয়নে এক বক্তৃতায় বলেন, ঘুনে ধরা পর্ন ইন্ডাস্ট্রি নতুন প্রজন্মের যৌনসঙ্গী সৃষ্টি করছে। এখনকার পর্ন নারী সহিংসতাকে সমর্থন করে এবং তা দারুণ বেদনাদায়ক বলে অভিযোগ তোলেন তিনি। এমনকি নারীদের বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের মানসিকতা ও আচরণ নিয়েও হতাশ তিনি।

যদিও পামেলার এমন বক্তব্য রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ শিরোনাম সৃষ্টি করেনি। তবে পরে তারকা জুনিয়ান অ্যাসাঞ্জের সঙ্গে দেখা করেন লন্ডনের ইকুয়েডর এম্বেসিতে। অ্যাসাঞ্জ এখানে গত ৪ বছর ধরে রাজনৈতিক প্রার্থণা করছেন। অ্যাসাঞ্জের সঙ্গে তিনি দেখা করেছেন সেই আগের সময়ের আবেদনময়ী বেশে। তার মাঝে ছিল গ্ল্যামার এবং চোখে ছিল ক্যাটস আই সানগ্লাস। হাতে ছিল ভিভিয়েনে ওয়েস্টউডের ডায়েরি। তার বক্ষের প্রকাশ ছিল উত্তেজনাকর।

অ্যান্ডারসন লিখেছেন, ব্রেক্সিট আসলেই জটিল বিষয়। বর্তমান প্রেক্ষাপটে এটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু সার্কাসের পশুগুলোকে চুমু খাওয়াটা অনেক বেশি সহজ।

এখন অবশ্য পামেলার সেই আগের সময় নেই। বে ওয়াচে সি জে পার্কারের চরিত্রে যখন সৈতকে স্লো মোশনে দৌড়েছিলেন বিশ্বের সবচেয়ে সেক্সি লাইফগার্ড। এখন তিনি রাজনীতির ময়দানেই দৌড়াতে চান। সূত্র : টেলিগ্রাফ

 


Top