মিয়ানমারে রয়টার্সের ২ সাংবাদিকের শাস্তি বহাল | daily-sun.com

মিয়ানমারে রয়টার্সের ২ সাংবাদিকের শাস্তি বহাল

ডেইলি সান অনলাইন     ১১ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৭:০৪ টাprinter

মিয়ানমারে রয়টার্সের ২ সাংবাদিকের শাস্তি বহাল

মিয়ানমারে সাজাপ্রাপ্ত রয়টার্সের দুই সাংবাদিকের আবেদন শুক্রবার প্রত্যাখ্যান করেছে দেশটির আদালত। সেপ্টেম্বর মাসে রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা আইন ভঙ্গের দায়ে তাদেরকে সাত বছর কারাদণ্ড দেয়া হয়েছিল।

 

বিভিন্ন দেশ ও মানবাধিকার সংস্থা সাংবাদিক ওয়া লোন এবং কিয়াউ সো ওউর এই কারাদণ্ডের সমালোচনা করেছে। কিন্তু বিচারক অং নাইং এদের সাত বছর কারাদণ্ডকে 'উপযুক্ত' সাজা বলে মন্তব্য করেছেন বলে জানায় ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি।

অভিযুক্তরা তাদের নিজেদের নির্দোষ প্রমাণ করতে যথেষ্ট প্রমাণাদি সরবরাহ করেনি, বলেন তিনি। এই দুই সাংবাদিককে গ্রেফতারের সময় তাদের কাছে পুলিশের কাছ থেকে পাওয়া দাফতরিক কাগজ পাওয়া যায়। তবে তারা নিজেদের নির্দোষ দাবি করে জানিয়েছেন, কর্তৃপক্ষ তাদের ফাঁসিয়েছে।

 

গ্রেফতার হওয়ার সময় এরা রোহিঙ্গাদের গণহত্যার বিষয়ে তদন্ত করছিলেন। গত বছর মিয়ানমারের রাখাইনে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের ওপর ব্যাপক দমন নিপীড়ন শুরু হলে সাত কাহের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়।

 

 

আদালত সাজাপ্রাপ্তদের আবেদন প্রত্যাখানের পর রয়টার্সের এডিটর ইন চিফ বলেন, এদের প্রতি 'আবারও অবিচার করা হয়েছে'।

'রিপোর্টিং কোনও অপরাধ নয় এবং মিয়ানমার এই ভয়াবহ অন্যায় শুধরে না নেয়া পর্যন্ত মিয়ানমারের সংবাদমাধ্যম স্বাধীন হবে না,' এক বিবৃতিতে বলেন তিনি।

সাজাপ্রাপ্ত দুই সাংবাদিক এখন দেশটির সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানাতে পারবেন। তবে এতে আরও প্রায় ছয় মাস সময় লাগতে পারে বলে জানায় বিবিসি।

 

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে সেনাবাহিনী দ্বারা ১০ জন রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনার প্রমাণ সংগ্রহ করছিল ওয়া লোন এবং কিয়া সো ওউ। প্রতিবেদনটি প্রকাশের আগে তাদের গ্রেফতার করা হয়। একটি হোটেলে দেখা করে দু'জন পুলিশ কর্মকর্তা তাদেরকে এই সংক্রান্ত যে কাগজপত্র দিয়েছিল সেগুলোসহ তাদের গ্রেফতার করা হয়।

 

আদালতে হাজিরা সাক্ষ্য দেয়ার সময় দু'জন একজন পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, ওই সাংবাদিকদের ফাঁদে ফেলার জন্যই বৈঠক করা হয়েছিল।

 


Top