পিইসি ও জেএসসির মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দিল ক্যামব্রিয়ান | daily-sun.com

পিইসি ও জেএসসির মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দিল ক্যামব্রিয়ান

প্রেস রিলিজ     ৫ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৬:২৮ টাprinter

পিইসি ও জেএসসির মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দিল ক্যামব্রিয়ান

প্রতিবছরের ন্যায় এবারও বিএসবি ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপের আয়োজনে চারদিনব্যাপি ২০১৮ সালে পিইসি এবং জেএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ  মেধাবী শিক্ষার্থীদের চারটি ভেন্যুতে বর্ণাঢ্য সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছে।


৫ জানুয়ারি ২০১৯ রোজ শনিবার সকাল ১০টায় টোকিও স্কয়ার কনভেনশন সেন্টার, রিং রোড, মোহাম্মদপুর ঢাকা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর মু: জিয়াউল হক, চেয়ারম্যান, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা।

 


অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে আগামী দিনের শিক্ষা সম্পর্কে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য উপস্থাপন করেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন শিক্ষা বিষয়ক প্রবক্তা শিক্ষা সংস্কারক, লায়ন ব্যক্তিত্ব এবং ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপের চেয়ারম্যান লায়ন এম কে বাশার পিএমজেএফ।  
অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. লায়ন খন্দকার সেলিমা রওশন, বরেন্য শিক্ষাবিদ, শিক্ষক, সমাজের শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিবর্গ এবং আমন্ত্রিত কৃতি শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকগণ।  

 
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রাক্কালে দেশের প্রথম স্মার্ট ক্যাম্পাসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মু. জিয়াউল হক। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি বলেন, এই জাতীয় অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মেধাবী শিক্ষার্থীরা অনুপ্রাণিত হবে এবং আগামী দিনের শিক্ষা সম্পর্কে একটা গাইড লাইন পাবে। এ জাতীয় অনুষ্ঠান আরো বেশি বেশি হওয়া দরকার। দেশের প্রথম স্মার্ট ক্যাম্পাস উদ্বোধন করায় ক্যামব্রিয়ান কর্তৃপক্ষকে অভিনন্দন জানান এবং দেশের অপরাপর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো এ জাতীয় কর্মকান্ডে এগিয়ে আসবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।  


প্রধান আলোচক জনাব লায়ন এম কে বাশার বলেন, নিরক্ষরমুক্ত আধুনিক ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে নতুন প্রজন্মকে সময়ের চাহিদানুযায়ী গড়ে তুলতে হবে। এজন্য শিক্ষার্থী হচ্ছে মূল চালিকাশক্তি। এজন্য শিক্ষার প্রতি বেশি বেশি গুরুত্ব দিলে সমাজও জাতি উপকৃত হবে।

অনুষ্ঠানে সংবর্ধনাপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে মেডেল, সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। দ্বিতীয়পর্বে ছিল মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পরিবেশনা।  

 


Top