জানেন কি কোন তেলের কী গুণ? | daily-sun.com

জানেন কি কোন তেলের কী গুণ?

ডেইলি সান অনলাইন     ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৮:৩৬ টাprinter

জানেন কি কোন তেলের কী গুণ?

 

ছুটির দিনের সকাল মানেই সাদা তেলে ফুলকো লুচি। আবার সরষে ইলিশ ভাপাতে ঝাঁঝালো সরষের তেল না হলে বাঙালির চলে না। আবার আধুনিক ডায়েট সচেতন বাঙালির ভরসা রাইসব্র্যান অয়েল বা সিসেমি অয়েল। কিন্তু জানেন কি কোন তেলের কী গুণ? জেনে নিন আজকের প্রতিবেদন থেকে।

 

সরষের তেল: প্রচুর পরিমাণে ইরুসিক অ্যাসিড থাকে সরষের তেলে। ডিপ ফ্রাই করার জন্য এই তেল খুবই ভাল। শুধু তাই নয় সরষের তেলে থাকে অ্যান্টি-ফাঙ্গাল উপাদান। যা ফাঙ্গাসের আক্রমণ থেকে ত্বককে রক্ষা করে। রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। পেশীর গঠনেও সাহায্য করে সরষের তেল।

 

সানফ্লাওয়ার তেল: সূর্যমূখী ফুলের বীজ থেকে তৈরি হয় এই তেল। এতে প্রচুর পরিমাণে থাকে ভিটামিন ই। পাশাপাশি থাকে মোনোআনস্যাচুরেটেড এবং পলিআনস্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিডও। ফলে এই তেলের স্মোকিং পয়েন্ট থাকে অনেক বেশি। অর্থাৎ অনেক তাপমাত্রাতেও পুষ্টিকর উপাদান নষ্ট হয় না। তবে ডায়াবেটিস থাকলে এই তেল কম ব্যবহার করুন। কারণ রক্তে সুগারের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় এই তেল।

 

নারকেল তেল: দক্ষিণ ভারতে এই তেলে রান্নার চল খুব বেশি। এই তেলে ফ্যাট বেশি পরিমাণে থাকে। নারকেল তেল দেহে হাই ডেনসিটি লাইপো-প্রোটিন বা উপকারী কোলেস্টেরলের মাত্রা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

 

গ্রাউন্ডনাট তেল: মোনোআনস্যাচুরেটেড এবং পলিআনস্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে গ্রাউন্ডনাট অর্থাৎ পিনাট তেলে। পাশাপাশি শরীরের পক্ষে উপকারী ফ্যাটও থাকে এই তেলে। স্মোকিং পয়েন্ট বেশি থাকায় ডিপ ফ্রাইয়ের জন্য এই তেল ভাল।

 

সিসেমি অয়েল: সিসেমি বীজ থেকে তৈরি হয় এই তেল। এই তেলে ওমেগা-৬ এবং ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে প্রচুর পরিমাণে।

 

অ্যাভোকাডো অয়েল: ৪০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট পর্যন্ত তাপমাত্রায় ডিপ ফ্রাই করা যায় এই তেলে। পাশাপাশি অ্যাভোকাডো তেলে থাকে ভিটামিন ই। যা ত্বককে সুস্থ রাখে এবং আমাদের দেহে রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে।

 

রাইসব্র্যান অয়েল: কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে ওরিজানল, যা রাইসব্র্যান তেলে থাকে। পাশাপাশি আমাদের দেহের জন্য উপকারী দু’ধরনের ফ্যাট, মোনোআনস্যাচুরেটেড এবং পলিআনস্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিডও থাকে এই তেলে।

 

অলিভ অয়েল: এই তেলে থাকে মোনোআনস্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিড। যা হার্টের রোগ এবং ব্রেস্ট ক্যান্সার রোধে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা গ্রহণ করে। পাশাপাশি শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রাও কমায় অলিভ অয়েল।

 

- সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

 


Top