বিএনপি নেতা ফারুকের গাড়িতে হামলা, উপজেলা চেয়ারম্যানসহ গুলিবিদ্ধ ৩ | daily-sun.com

বিএনপি নেতা ফারুকের গাড়িতে হামলা, উপজেলা চেয়ারম্যানসহ গুলিবিদ্ধ ৩

ডেইলি সান অনলাইন     ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৩:২০ টাprinter

বিএনপি নেতা ফারুকের গাড়িতে হামলা, উপজেলা চেয়ারম্যানসহ গুলিবিদ্ধ ৩

নোয়াখালী-২ (সেনবাগ) আসনে ধানের শীষের প্রার্থী বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুকের গাড়িবহরে হামলা করা হয়েছে।

 

এ সময় গাড়িবহরে থাকা সেনবাগ উপজেলা চেয়ারম্যানসহ বিএনপির অন্তত তিন নেতা গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

খবর যুগান্তরের। গুলির ঘটনায় জয়নুল আবেদীন ফারুক অল্পের জন্য রক্ষা পেলেও আহত হয়েছেন কয়েকজন। গুলি করা হয়েছে গাড়িবহরে থাকা অন্তত ৫টি গাড়িতে। ১০-১২টি মোটরসাইকেল ভাংচুর করা হয়েছে।

 

মহান বিজয় দিবসে রবিবার সকাল সাড়ে ৬টায় সেনবাগ পৌরসভার চত্বরে নির্মিত মুক্তিযুদ্ধে শহীদের স্মৃতিস্তম্ভে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ফুল দিতে যান জয়নুল আবদীন ফারুক। তারা ফুল দিয়ে সেখান থেকে ফেরার পথে গাড়িবহরে এ হামলা চালানো হয়।

 

বিএনপির নেতাদের অভিযোগ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এ হামলা চালিয়েছে। তারা জয়নুল আবেদীন ফারুককে লক্ষ্য করে অতর্কিত এ হামলা চালায়।

 

 

জয়নুল আবদিন ফারুক গণমাধ্যমকে জানান, বিজয় দিবস উপলক্ষে প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে তিনি উপজেলা সদরে শহীদ মিনারে ফুল দিতে যান।

এ সময় সেনবাগ বাজারের সন্নিকটে রাস্তার উপর তাদের গাড়িবহরে এ হামলা চালানো হয়।

 

হামলায় জয়নুল আবেদীন ফারুক দৌঁড়ে রক্ষা পান। গুলিতে গাড়িবহরে থাকা কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে।

 

হামলায় জয়নুল আবেদীন ফারুক দৌঁড়ে রক্ষা পান। গুলিতে গাড়িবহরে থাকা কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে। গুলিবিদ্ধ হয়েছেন জয়নুল আবেদীন ফারুকের সঙ্গে থাকা সেনবাগ উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি শাহাবুদ্দিন রাসেল ও উপজেলা যুবদল নেতা লিটন চৌধুরী।

 

আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার সময় দুর্বুত্তরা উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ও ভাঙচুর করে। জয়নুল আবদিন ফারুক গণমাধ্যমকে জানান, বিজয় দিবস উপলক্ষে প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে তিনি উপজেলা সদরে শহীদ মিনারে ফুল দিতে যান। এ সময় সেনবাগ বাজারের সন্নিকটে রাস্তার উপর তাদের গাড়িবহরে এ হামলা চালানো হয়।


Top