অবশেষে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ | daily-sun.com

অবশেষে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ

ডেইলি সান অনলাইন     ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৩:২৭ টাprinter

অবশেষে  শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ

অবশেষে বিতর্কিত প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে যাচ্ছেন শ্রীলংকার ‘লৌহমানব’ খ্যাত সাবেক প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা রাজাপাকসে। দেশের রাজনৈতিক সঙ্কট অবসান করতে পদত্যাগ করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী।

আজ শনিবারের মধ্যেই পদত্যাগ করবেন তিনি।

 

শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) রাজাপাকসের ছেলে সাংসদ নমল রাজাপাকসে এক টুইটে জানান তার বাবা মাহিন্দা রাজাপাকসে শনিবার (১৫ ডিসেম্বর) পদত্যাগ করবেন।

 

তিনি জানিয়েছেন, দেশের পরিস্থিতি স্থিতিশীল করার স্বার্থেই সাবেক প্রেসিডেন্ট রাজাপাকসে শনিবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেয়ার পর প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

 

রাজাপাকসেপন্থি একজন আইনপ্রণেতা লক্ষণ ইয়াপা আবেওয়ারদেনা সাংবাদিকদের বলেন, শুক্রবার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নেন রাজাপাকসে; যাতে প্রেসিডেন্ট নতুন প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ দিতে পারেন।

 

আবেওয়ারদেনা বলেন, প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ না করলে, আরেকজন প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ দেয়া যাবে না। কিন্তু দেশ জানুয়ারি মাসে যে পরিস্থিতির মুখোমুখি হবে তা মোকাবেলা করা প্রয়োজন, বাজেট ছাড়া একটি দেশ চলতে পারে না।

 

তিনি বলেন, তাই রাজাপাকসে বলেছেন যে তিনি আগামীকাল (শনিবার) একটি বিশেষ বিবৃতি দেবেন এবং প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করবেন।

 

প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে শ্রীলঙ্কায় কোনও কার্যকর সরকার নেই। তাই পরবর্তী বছরের জন্য বাজেট পাস করা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।

 

গত ২৬ অক্টোবর থেকেই বিতর্কের মুখে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী রাজাপাকসে। তার বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পর তার পদত্যাগের সিদ্ধান্তের খবর সামনে এলো।

 

সুপ্রিম কোর্ট একই সঙ্গে শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনার পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার পদক্ষেপকেও ‘অসাংবিধানিক’ বলে রায় দিয়েছেন।

 

সপ্তাহ খানেক আগে এক বিবৃতিতে সিরিসেনা বলেন, আগামী সাত দিনের মধ্যেই দেশের রাজনৈতিক সংকট সমাধান করা হবে। রাজাপাকসেকে শ্রীলংকার একটি আপিল আদালত সাময়িকভাবে বরখাস্ত করার পর সিরিসেনা এ ঘোষণা দিলেন।

 

সিরিসেনা বলেন, ‘চলমান রাজনৈতিক সংকট এক সপ্তাহের মধ্যে সমাধান হবে। সম্পূর্ণভাবেই এর সমাধান করা হবে। এ উদ্যোগ আমি নেব জনগণের জন্য, আপনাদের জন্য এবং আমাদের মাতৃভূমির জন্য। আমি সব রাজনীতিবিদ ও রাজনৈতিক দলের প্রতি শান্তির হাত বাড়াচ্ছি। ’

 

সিরিসেনা আরও বলেন, শ্রীলংকার জনগণের উপকারের জন্য আগামী দিনগুলোতে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। প্রায় এক সপ্তাহের মাথায় পদত্যাগের সিদ্ধান্তের মধ্য দিয়ে রাজাপাকসে সিরিসেনা প্রতিশ্রুত পথেই হাঁটছেন বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা।

 

শ্রীলংকায় চলমান সংকটের জন্য প্রথম থেকেই সিরিসেনা বিক্রমাসিংহেকে দায়ী করে আসছেন। বিক্রমাসিংহেকে বরখাস্তের পর জাতির উদ্দেশে দেয়া এক ভাষণে তিনি বলেন, ‘রাজনীতিতে অচলাবস্থা তৈরি করেছেন রনিল বিক্রমাসিংহে।

 

তার কার্যকলাপ এবং সীমাহীন দুর্নীতির কারণেই বিদ্যমান পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। তবে আমরা এ সমস্যা সমাধানের জন্য কাজ করব। আমরা দেশকে রক্ষা করব। ’

 

রাজাপাকসেকে প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ দিলেও পার্লামেন্ট তার বিরুদ্ধে কয়েকবার অনাস্থা প্রকাশ করেছে।


Top