আজ দুপুরে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে মুখোমুখি বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ | daily-sun.com

আজ দুপুরে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে মুখোমুখি বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ

ডেইলি সান অনলাইন     ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:৩৭ টাprinter

আজ দুপুরে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে  মুখোমুখি বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ

আজ শুক্রবার ওয়ানডে ফরম্যাটে অভিষেক হচ্ছে নয়নাভিরাম সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের। এর আগে কখনো এই স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়নি।

  সিলেট ভেন্যুর অভিষেকেই সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচ খেলতে হচ্ছে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় দুপুরে ১২টায়।

 

সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ ও দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ জয় পায়। ফলে বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে এখন ১-১ সমতা বিরাজ করছে। এই সমতা নিয়ে বর্তমানে সিলেটে দু’দল। সিলেটের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচ। এ ম্যাচের বিজয়ী দল জিতে নিবে ওয়ানডে সিরিজ। দু’দলই মুখিয়ে সিরিজ জয়ের জন্য।


ওয়ানডে সিরিজ শুরুর আগে স্পষ্ট ফেভারিটই ছিলো বাংলাদেশ।

সাম্প্রতিক ফর্মের সাথে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সর্বশেষ সিরিজ জয়ের রেকর্ড বাংলাদেশকে চাঙ্গা রেখেছিলো। সিরিজের শুরুটা ভালো করতে মোটেও অসুবিধা হয়নি টাইগারদের। ঢাকার মিরপুরে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ৫ উইকেটে জয় পায় বাংলাদেশ।


ম্যাচে প্রথমে বোলারদের দুর্দান্ত পারফরমেন্স ও পরে ব্যাটসম্যানদের দায়িত্বশীল ব্যাটিং বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত করে। অধিনায়কত্বের দায়িত্ব ছাড়াও বল হাতে বোলিং বিভাগকে বেশ ভালোভাবে নেতৃত্ব দিয়েছেন মাশরাফি। এ ম্যাচ দিয়েই নিজের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে দু’শত ম্যাচ খেলার মাইলফলক স্পর্শ করেন তিনি। তবে বাংলাদেশের হয়ে সেটি ছিলো ১৯৮তম ম্যাচ। কারন এশিয়া একাদশের হয়ে দু’টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে টাইগার নেতার।


নিজের মাইলফলক স্পর্শ করা ম্যাচটি স্মরণীয় করে রেখেছেন মাশরাফি। শুধুমাত্র দলের জয়ই নয়, নিজের পারফরমেন্সেও উজ্জল ছিলেন ম্যাশ। বল হাতে ১০ ওভারে ৩০ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন তিনি। তাই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৯৫ রানের মধ্যে আটকে রাখতে কোন অসুবিধা হয়নি বাংলাদেশের। সেই টার্গেট ৮৯ বল হাতে রেখেই স্পর্শ করে ফেলে স্বাগতিকরা। সেই সাথে ম্যাচ সেরা খেলায়াড়ে ভূষিত হন মাশরাফি।


দ্বিতীয় ম্যাচ জিতেই সিরিজ নিশ্চিত করাই লক্ষ্য ছিলো বাংলাদেশের। কিন্তু বাংলাদেশের আশা ভেঙ্গে দেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওপেনার শাই হোপ। ইনিংসের শুরু থেকে এক প্রান্ত আগলে দুর্দান্ত দক্ষতায় বাংলাদেশের হাত থেকে জয় কেড়ে নেন হোপ। ১৪৪ বলে ১৪৬ রানের ম্যাচ জয়ী ইনিংস খেলেন হোপ। ৪ উইকেটে ম্যাচ জিতে সিরিজে সমতা আনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।


তাই সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেটি বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হয়ে দাঁড়িয়েছে ফাইনাল। আর এই ফাইনালে জয় ছাড়া অন্য কিছুই ভাবছে না দু’দল। যে কারণে সিলেটের অপরুপ সৌন্দর্যে ঘেরা লাক্কাতুরার স্টেডিয়ামে জমজমাট এক ম্যাচ দেখার অপেক্ষায় ক্রিকেট বিশ্ব।


ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সফরকারী হিসেবে সর্বশেষ ওয়ানডে সিরিজ খেলেছিলো বাংলাদেশ। ঐ সিরিজেরও তৃতীয় ও শেষ ম্যাচটি রুপ নিয়েছিলো ফাইনালে। কারন প্রথম দুই ওয়ানডেতে একটি করে ম্যাচ জিতেছিলো বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তাই ১-১ সমতা নিয়ে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে খেলত নামে দু’দল।


ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে সিরিজের শেষ ওয়ানডে জিতে ঠিকই সিরিজ নিজেদের করে নেয় মাশরাফিবাহিনীর দল। তাই ঐ ম্যাচ থেকে অনুপ্রেরণা খোঁজার চেষ্টা করছে বাংলাদেশ। এমনটাই জানান বাংলাদেশের অফ-স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ। তিনি বলেন, ‘আমরা এখনো সিরিজে টিকে আছি। শেষ ম্যাচ আমাদের জন্য ডু-অর-ডাই। এ ধরনের ম্যাচগুলোতেই আমরা ভালো ক্রিকেট খেলি। ওয়েস্ট ইন্ডিজে কিন্তু আমরা শেষ ম্যাচ জিতেই সিরিজ জিতেছিলাম। আমাদের জন্য একটা ভালো সুযোগ আছে পরের ম্যাচে। আশা করব আমরা শক্তভাবে ফিরে আসব। ’


শেষ ম্যাচ জিতে সিরিজ জয়ের জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করবে বাংলাদেশ দল এমনটা দ্বিতীয় ওয়ানডে শেষে বলেছিলেন অধিনায়ক মাশরাফি নিজেই, ‘এমন অবস্থায় আমরা আগেও পড়েছি। যেখান থেকে আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছি। আমি মনে করি, খেলা আমাদের দেশের মাটিতে। তাই সুযোগটি নিতে হবে এবং সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে। ’


সিরিজ জয়ের ভালো সুযোগ ওয়েস্ট ইন্ডিজেরও। তাই এই সুযোগটি ভালোভাবে লুফে নিতে চাইছেন সিরিজে ক্যারিবীয়দের লড়াইয়ে ফিরিয়ে আনা ওপেনার হোপ। তিনি বলেন, ‘আমরা এখানে এসেছি তৃতীয় ওয়ানডে জিততে। আমরা শেষ ম্যাচে লড়াই করতে চাই এবং ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জয় নিশ্চিত করতে চাই। ’


বাংলাদেশ দল: মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাজমুল ইসলাম অপু, মোহাম্মদ মিথুন, সাইফ উদ্দিন, আবু হায়দার ও আরিফুল হক।


ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল: রোভম্যান পাওয়েল (অধিনায়ক), মারলন স্যামুয়েলস, ড্যারেন ব্রাাভো, রোস্টন চেজ, শাই হোপ, দেবেন্দ্র বিশু, চন্দরপল হেমরাজ, শিমরন হেটমায়ার, কেমো পল, কাইরন পাওয়েল, ফ্যাবিয়ান অ্যালেন, কার্লোস ব্র্যাথওয়েট কেমার রোচ, সুনীল অ্যামব্রিস ও ওশানে টমাস।


Top