কুম্বলেকে ভারতের কোচ থেকে সরানোর নেপথ্যে ছিলেন কোহলি !‌ | daily-sun.com

কুম্বলেকে ভারতের কোচ থেকে সরানোর নেপথ্যে ছিলেন কোহলি !‌

ডেইলি সান অনলাইন     ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২১:১৪ টাprinter

কুম্বলেকে ভারতের কোচ থেকে সরানোর নেপথ্যে ছিলেন কোহলি !‌

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে পাকিস্তানের কাছে লজ্জার হারের পরেই বিবাদ প্রকাশ্যে চলে এসেছিল। অধিনায়ক–কোচের বিবাদে চাকরি গিয়েছিল কোচের।

যদিও নেপথ্যে কে ছিলেন, সে ব্যাপারে কোনওদিনই মুখ খোলেননি কেউ। সম্প্রতি উঠে এসেছে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। বিরাট কোহলিই নাকি ছিলেন অনিল কুম্বলের অপসারণের নেপথ্যে!


২০১৬ সালের জুন মাসে ভারতের কোচ হিসেবে নিযুক্ত হন কুম্বলে। শচীন, সৌরভ, লক্ষ্মণের  নির্বাচক কমিটিই তাঁকে এই দায়িত্ব দেয়। কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর যথেষ্ট সফল ছিলেন কুম্বলে। তাঁর কোচিংয়ের সময় ফের একনম্বর টেস্ট দলের শিরোপা পান বিরাটরা। সেইসঙ্গে পরপর পাঁচটি টেস্ট সিরিজে জয় পেয়েছিল ভারত। একদিনের ক্রিকেটেও কোচ হিসেবে যথেষ্ট সাফল্য পেয়েছেন কুম্বলে।


এরপরেই আসে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি।

ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত এই টুর্নামেন্টে ভারত প্রথম থেকেই ছিল ফেভারিট। যদিও ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে হেরে যায় ভারত। তারপরেই বেরিয়ে আসে অধিনায়ক–কোচ বিবাদ। বিসিসিআইয়ের অন্দরে গুঞ্জন, কুম্বলের অপসারণের দাবি জানানো হয় ভারতীয় দলের তরফে।


২০১৭ সালের জুনে নিজেই পদত্যাগ করেন কুম্বলে। তাঁর জায়গায় ভারতীয় দলের নতুন কোচ হয়ে আসেন রবি শাস্ত্রী। ২০১৪ থেকে ১৬ এই দু’বছর রবি শাস্ত্রী ভারতীয় দলের টেকনিক্যাল ডিরেক্টরও ছিলেন। তাই কোহলির সঙ্গে শাস্ত্রীর ভাল সম্পর্কের কথা সবার জানা।


সম্প্রতি সংবাদসংস্থা এএফপি’র হাতে এসেছে একটি মেলের কপি। তাতে নাকি কোহলির সঙ্গে ভারতীয় বোর্ডের কিছু শীর্ষকর্তার কথোপকথন উল্লেখ করা হয়েছে। কী লেখা আছে সেই মেলে? এএফপি সূত্রে খবর, সেই মেলে বিসিসিআইয়ের এক শীর্ষকর্তা নাকি বোর্ডের প্রশাসনিক কমিটির প্রধান বিনোদ রাইকে লিখেছেন, বিরাট বোর্ডের সিইও’র কাছে ঘনঘন মেসেজ পাঠাচ্ছেন যাতে কোচ বদল করা হয়। কুম্বলের কোচিং পদ্ধতি বিরাটের পছন্দ নয় বলেই তিনি নাকি কোচ বদল চান।


কুম্বলের পদত্যাগের পর প্রশাসনিক কমিটির আরেক সদস্য ডায়ানা এডুলজি বলেছিলেন, ‘‌কুম্বলে  একজন কিংবদন্তী। কিন্তু এক্ষেত্রে কুম্বলের নিজের মুখই সবার সামনে খারাপ হলো। কুম্বলেকেই ভিলেন বানানো হলো। ’‌ অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজ খেলতে এখন বিরাট পার্থে। তাঁর তরফে এব্যাপারে কোনও মন্তব্য করা হয়নি। বোর্ডের তরফেও কোনও মন্তব্য করা হয়নি।  


Top