বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সাথে যুক্ত হলেন ইউনিসেফ | daily-sun.com

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সাথে যুক্ত হলেন ইউনিসেফ

ডেইলি সান অনলাইন     ১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৯:১১ টাprinter

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সাথে যুক্ত হলেন ইউনিসেফ

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) আন্তর্জাতিক চ্যারিটি হিসেবে যুক্ত হলো জাতিসংঘের শিশু তহবিল সংস্থা ইউনিসেফ। এই প্রথম মা ও শিশুর প্রতীক সম্বলিত লোগো আন্তর্জাতিক কোনো ক্রিকেট দলের জার্সিতে স্থান পেতে যাচ্ছে।

এ লক্ষ্যে বিসিবির সঙ্গে দুই বছরের একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে সংস্থাটি।


এর আগে দেশের নারী ফুটবলের নতুন সঙ্গী হয় ইউনিসেফ। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গেও ‘চ্যারিটি পার্টনার’ হিসেবে দুই বছরের জন্য চুক্তি স্বাক্ষর করে তারা। আজ বিসিবি কার্যালয়ে এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন বিসিবি সিইও নিজাউদ্দিন চৌধুরী ও ইউনিসেফ বাংলাদেশের প্রতিনিধি এডওয়ার্ড বেগবেদার। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ক্রিকেট দলের তারকা অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ।


চুক্তির শর্ত অনুযায়ী এখন থেকে ইউনিসেফের লোগো শোভা পাবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের (পুরুষ, নারী ও অনূর্ধ্ব-১৯) জার্সিতে। এছাড়া সব ছেলে-মেয়ের জন্য খেলাধুলার অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে, বিশেষ করে ১৮ বছরের কম বয়সী মেয়েদের প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে ইউনিসেফ বিসিবি’র ক্রিকেট উন্নয়ন কার্যক্রমে সহায়তা দেবে। অনুষ্ঠানে নিজাউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ক্রিকেটের যে ব্যাপক ইতিবাচক ধারা রয়েছে, ইউনিসেফের সঙ্গে এই অংশীদারিত্ব সেটাকে আরও বেগবান করবে এবং আনুষ্ঠানিকভাবে শিশুদের খেলাধুলার অধিকারকে জোরালোভাবে সমর্থন করার মাধ্যমে এটা বিসিবির বিদ্যমান কার্যক্রমগুলোকে আরও বেশি মানবিক করে তুলবে।


বেগবেদার বলেন, বাংলাদেশ ক্রিকেটের জনপ্রিয়তার কারণে এই অংশীদারিত্বকে ঘিরে আমাদের উচ্চাশা রয়েছে।

অতীতে বিভিন্ন সময়ে বিসিবি ও ইউনিসেফের মধ্যকার বেশ কিছু সহযোগিতামূলক কার্যক্রম সফল হয়েছে। তবে এই অংশীদারিত্বের আওতায় আমরা ক্রিকেটের মাধ্যমে অনেক বেশি সুবিধাবঞ্চিত শিশুর কাছে পৌঁছাতে এবং তাদের ক্ষমতায়ন করতে পারবো বলে আশা করি। ’ শিশু অধিকার সম্পর্কিত বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য ২০০৬ সাল থেকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পাশাপাশি জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়দের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করে আসছে ইউনিসেফ। বিসিবির মাধ্যমে সংস্থাটি আইসিসি’র বেশ কিছু আয়োজনেও সম্পৃক্ত ছিল। সেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য, আইসিসি বিশ্বকাপ ২০১১, আইসিসি নারী বিশ্বকাপ বাছাই ২০১১, আইসিসি টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০১৪ সহ আরো বেশ কয়েকটি আয়োজন।


এর আগে দেশের নারী ফুটবলের নতুন সঙ্গী হয় ইউনিসেফ। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গেও ‘চ্যারিটি পার্টনার’ হিসেবে দুই বছরের জন্য চুক্তি স্বাক্ষর করে তারা। নারী প্রগতির লক্ষ্যে, নারী ফুটবল অগ্রগতিতে সহযোগী হতে তারা, বিশেষ করে থাকবে অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল দলের সঙ্গে। এ দলটির অনুশীলন জার্সিতে ব্যবহার করা হবে ইউনিসেফের লোগো। এছাড়া ৬৪টি জেলায় প্রতিভা অন্বেষণ কর্মসূচি ও ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজনেও তারা সহযোগী হবে বাফুফের।


Top