পীরের নির্দেশে ভোট দেন না যে গ্রামের নারীরা! | daily-sun.com

পীরের নির্দেশে ভোট দেন না যে গ্রামের নারীরা!

ডেইলি সান অনলাইন     ৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৭:২৪ টাprinter

পীরের নির্দেশে ভোট দেন না যে গ্রামের  নারীরা!

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার রুপসা দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের নারীরা স্বাধীনতার পর থেকেই ভোট দিতে ভোটকেন্দ্রে যান না এক মহিলা পীরের নির্দেশ মান্য করে। এই দীর্ঘ সময়ে অনুষ্ঠিত স্থানীয় কিংবা জাতীয় কোনও নির্বাচনেই তারা ভোট দেননি।

প্রতিদিনের প্রয়োজনে ঘর থেকে বেরোলেও ভোটকেন্দ্রে যান না এসব নারীরা। ফলে জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে কোনও ভূমিকা রাখতে পারেন না তারা।

 

লেখাপড়া, বাজার আর অন্যান্য দৈনন্দিন কাজে ঘরের বাইরে বের হলেও নির্বাচনের দিন ঘরে বসেই সময় কাটে এই ইউনিয়নের নারীদের। আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও এই ইউনিয়নের নারীরা ভোট দিতে যাবেন কিনা তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে স্থানীয় সচেতন মহল।

 

জানা যায়, এক মহিলা পীরের নিষেধের কারণে স্বাধীনতার পর থেকেই এখানকার নারীরা ভোট দিতে যান না। স্থানীয় লোকজনও তাদেরকে ভোট দিতে উদ্বুদ্ধ করেনি। তবে বেশ কয়েকবার তাদের ভোটকেন্দ্রে নেয়ার চেষ্টা করা হলেও কোনও লাভ হয়নি।

 

তবে রূপসা দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ইসকান্দার  আশা করছেন এবার হয়তো ও ইউনিয়নের নারীরা ভোট দিতে যাবেন। তিনি জানান, একটি গুজব থেকেই এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল।

তবে এখন অবস্থার পরিবর্তন ঘটেছে। আশা করা যাচ্ছে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তারা ভোট দিতে যাবেন।

 

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা হেলাল উদ্দিন জানান, এবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারী ভোটারদের ভোট দিতে উদ্বুদ্ধ করা হবে। নারী ভোটাররা যেন নিরাপদে ভোটকেন্দ্রে যেতে পারেন, কমিশনের পক্ষ থেকে সেই ব্যবস্থা করা হবে।

রূপসা দক্ষিণ ইউনিয়নে মোট ভোটার ২৪ হাজার ৪৫৪ জন। এর মধ্যে মধ্যে নারী ভোটার রয়েছে ১২ হাজার ১১৪ জন।

 


Top