প্রস্তুতি ম্যাচে টাইগারদের জয়, তামিম-সৌম্য’র সেঞ্চুরি | daily-sun.com

প্রস্তুতি ম্যাচে টাইগারদের জয়, তামিম-সৌম্য’র সেঞ্চুরি

ডেইলি সান অনলাইন     ৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৭:৪৪ টাprinter

প্রস্তুতি ম্যাচে টাইগারদের জয়, তামিম-সৌম্য’র সেঞ্চুরি

আজ সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে নামে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) একাদশ। দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।

প্রস্তুতি ম্যাচে মাঠে ফিরেই সেঞ্চুরির দেখা পেলেন বাংলাদেশের এই ওপেনার। তামিমের পর শতক তুলে নিয়েছেন সৌম্য সরকার। ৭৭ বল খেলে ৭ চার ও ৬ ছক্কায় কাঙ্ক্ষিত মাইলফলকের দেখা পেয়েছেন তিনি।

 

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৩৩১ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে তামিম ও ইমরুল কায়েসের ব্যাটে দারুণ সূচনা করেছে বিসিবি একাদশ। ৩৩২ রানের লক্ষ্যকে ছোট বানিয়ে দিয়েছেন তামিম। মাত্র ৩৪ বলে ফিফটি ছুঁয়েছেন তামিম। ৮ চার ও ১ ছক্কায় ফিফটি ছোঁয়া তামিম ইনিংস শেষ করেছেন ১৩টি চার ও ৩ ছক্কা নিয়ে। এর মাঝেই ৭০ বলে সেঞ্চুরি হয়ে গেছে তাঁর। শেষ পর্যন্ত ৭৩ বলে ১০৭ রান করে থেমেছেন জাতীয় দলে ফেরার অপেক্ষায় থাকা দেশ সেরা ব্যাটসম্যান।

রোস্টন চেজের বলে স্টাম্পড হয়েছেন তামিম।

 

এদিকে  প্রথমে ৮১ রানের ওপেনিং জুটি ভেঙে ইমরুল ২৭ রান ফিরে গেলেও সৌম্যকে নিয়ে ভালো গতিতে রান তাড়া করেছেন তামিম।   ২৩তম ওভারে দলকে ১৯৫ রানে রেখে তামিম ফিরলেও সৌম্য বাকি দায়িত্ব বুঝে নিয়েছেন। সৌম্য ও তামিমের ১১৪ রানের জুটি বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর ক্রিজে এসে থিতু হতে পারেননি মোহাম্মদ মিঠুন। ১৪ বল মোকাবেলায় ৫ রান করে সাজঘরে ফিরলে কিছুটা চাপে পড়ে স্বাগতিকরা।

 

তবে তাতে মুন্ডুপাত না করে সাবলীল গতিতে এগিয়ে যেতে থাকেন সৌম্য। সাথী হিসেবে আরিফুল হকের ক্রিজে যোগ দেওয়ার পর তুলে নেন অর্ধশতক। নিজে সাবলীল গতিতে খেলতে থাকলেও ক্রিজের অন্য পাশে আচমকাই শুরু হয় উইকেট পতন। ২ ছক্কায় ১৮ রান করা আরিফুলের ক্যাচ বিশু নিজের বলে নিজে নিলে চতুর্থ উইকেটের পতন ঘটে বিসিবি একাদশের।

 

এরপর রানের খাতা খোলার আগে সাজঘরে ফিরেন তৌহিদ হৃদয়। ফলে ২৩৪ রানে পাঁচ উইকেট হারিয়ে বসে ঘরের দলটি। শামীম পাটোইয়ারিকে নিয়ে ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ৩১ রান যোগ করার পর ৯ রান করে সাজঘরে ফিরে যান। যার ফলে ২৬৫ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়ে বিসিবি একাদশ। তবে অন্য কোনো ব্যাটসম্যান টিকতে না পারলেও সৌম্য-ঝড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোলিং লাইনআপ তছনছ হয়ে যায়।  

 

তবে সপ্তম উইকেট জুটিতে সৌম্য আর মাশরাফির ব্যাটিং দৃঢ়তায় সে বিপর্যয় কাটিয়ে ম্যাচ জয়ের পথে নিজেদের ফিরিয়ে আনে স্বাগতিকরা। তখন ৪১ ওভারে ৬ উইকেটে ৩১৪ রান তোলার পরই আলোক স্বল্পতায় খেলা থামিয়ে দিতে হয়েছে। সৌম্য অপরাজিত ছিলেন ১০৩ রানে (৮৩ বল), উইকেটে তাঁর সঙ্গী ছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা (১৮ বলে ২২ রান। পরে আলোকস্বল্পতায় খেলা থামার পর ডিএল পদ্ধতিতে ৫১ রানে জয়ী ঘোষণা করা হয়েছে বিসিবি একাদশকে।

 

এর আগে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৮ উইকেটের বিনিময়ে স্বাগতিদের বিপক্ষে ৩৩১ রানের পুঁজি পেয়েছে সফরকারীরা। উইন্ডিজের পক্ষে সর্বোচ্চ রান এসেছে শাই হোপের ব্যাট থেকে।

 

স্বাগতিক বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ দুটি উইকেট লাভ করেছেন নাজমুল ইসলাম অপু ও রুবেল হোসেন। তাছাড়া বাকি বোলারদের মধ্যে মাশরাফি, রানা ও শামীম প্রত্যেকেই নিজেদের প্রাপ্তির খাতায় জমা করেছেন একটি করে উইকেট।

 

স্কোরকার্ড-

উইন্ডিজ: ৩৩১/৮ (৫০ ওভার)

পাওয়েল ৪৩(৪৮), হোপ ৭৮(৮৪), ব্রাভো ২৭(৩৩), স্যামুয়েলস ৫(১২), হেটমায়ার ৩৩(২৭), পাওয়েল ০(৫), চেজ ৬৫*, অ্যালেন ৪৮, রুবেল ১০-০-৫৫-২, মাশরাফি ৮-১-৩৭-১, রানা ১০-০-৬৫-১, শাহিন ২-০-১৮-০, সৌম্য ৮-০-৭২-০, অপু ১০-০-৬১-২, শামীম ২-০-১৬-১।

 

উইন্ডিজ দলের ওয়ানডে স্কোয়াড: রোভম্যান পাওয়েল (অধিনায়ক), আরলন স্যামুয়েলস, ডেবেন্দ্র বিশু, রোস্টন চেজ, চন্দরপল হেমরাজ, শিমরন হেটমায়ার, ড্যারেন ব্রাভো, কার্লোস ব্র্যাথওয়েট, কিমো পল, কাইরন পাওয়েল, ফ্যাবিয়ান অ্যালেন, কেমার রোচ, সুনীল অ্যামব্রিস এবং ওশান থমাস।

 

বিসিবি একাদশ: ৩১৪/৬ (৪১ ওভার)
তামিম ১০৭(৭৩), কায়েস ২৫(২৭), সৌম্য ১০৩(৮৩)*, মিঠুন ৫(১৪), আরিফুল ২১(১৮), হৃদয় ০(৫), শামিম ৯(১২), মাশরাফি ২২(১৮)*; চেজ ৫৭/২।

 

উইন্ডিজের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচের বিসিবি একাদশ স্কোয়াড: মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিঠুন, তৌহিদ হৃদয়, আরিফুল হক, আকবর আলি, রুবেল হোসেন, মিথুন জয়, শাহিন আলম, মেহেদি হাসান রানা এবং নাজমুল ইসলাম অপু।

 

ফলাফল: বিসিবি একাদশ ডি/এল মেথডে ৫১ রানে বিজয়ী।

 


Top