ব্যাটিং-বোলিং না করেও ম্যাচ সেরা নির্বাচিত | daily-sun.com

ব্যাটিং-বোলিং না করেও ম্যাচ সেরা নির্বাচিত

ডেইলি সান অনলাইন     ৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০২:২৩ টাprinter

ব্যাটিং-বোলিং না করেও ম্যাচ সেরা নির্বাচিত

ক্রিকেটে ব্যাটিং-বোলিং না করেই ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হওয়া! বিষয়টি একটু খটকা লাগলেও ওয়ানডে ক্রিকেটে এমন ঘটনা আছে। একটি ওয়ানডে ম্যাচে ব্যাটিং-বোলিং না করেও কেবলমাত্র ফিল্ডিংয়ের কারণেই ম্যাচ সেরার পুরস্কার পেয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক খেলোয়াড় অগাস্টিন লরেন্স লুগি।

১৯৮০’র দশকে বিশ্ব ক্রিকেটকে শাসন করা ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের সদস্য ছিলেন তিনি। ব্যাটসম্যান হলেও শক্তিশালী একজন ফিল্ডার হিসেবে পরিচিত লুগি তিনটি ক্যাচ নেয়ার পাশাপাশি একটি অবিশ্বাস্য রান আউট করে একটি ওয়ানডে ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছিলেন।


শারজাহ ক্রিকেট গ্রাউন্ডে পাকিস্তান-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচ। টস জিতে আগে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন পাকিস্তান অধিনায়ক ইমরান খান। ওপেনিং জুটিতে মাঠে নামেন সেলিম ইউসুফ এবং মুদাস্সর নজর। ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে বোলিং শুরু করেন ম্যালকম। শট খেলতে গিয়ে লুগির হাতে ক্যাচ দেন ইউসুফ।


প্রথম দশ ওভারে ১৩ রান তুলতেই ১ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় পাকিস্তান। এমন অবস্থায় হাত খুলে মারতে যান মুদাসসর এবং লুগির দ্বিতীয় ক্যাচে পরিণত হন।

লুগিই প্রথম ক্রিকেটার যিনি অসাধারণ ফিল্ডিং করার পুরস্কার হিসেবে ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন।


এরপর রমিজ রাজা-জাভেদ মিঁয়াদাদ জুটি বাধেন। রমিজ স্কয়ার লেগে বল ঠেলে দিয়ে একটি রান নিতে গেলে লুগি ক্ষিপ্র গতিতে সরাসরি স্টাম্প ভেঙ্গে দেন। রান আউট হন মিঁয়াদাদ। ক্রিজে পৌঁছলেও মিঁয়াদাদের ব্যাট মাটি স্পর্শ করেনি।  


এরপর বোলিং করছিলেন রজার হারপার, ব্যাট করছিলেন ইজাজ আহমেদ। একটি বল শূন্যে তুলে দেন ইজাজ। বলটি হারপার নিজেই তালুবন্দী করতে পারতেন কিন্তু তিনি সেটা লুগিকে ছেড়ে দেন এবং সফল হন।


ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ৫২ টেস্ট ৩৫ দশমিক ৭৯ গড়ে ২৪৭০ ছাড়াও ২৮ দশমিক ৯৫ গড়ে ১৫৮টি ওয়ানডে ম্যাচে ২৮০৯ রান করেছেন লুগি।


Top