৫ম ডিজিটাল মার্কেটিং সামিট অনুষ্ঠিত | daily-sun.com

৫ম ডিজিটাল মার্কেটিং সামিট অনুষ্ঠিত

প্রেস রিলিজ     ২৪ নভেম্বর, ২০১৮ ১৯:১৫ টাprinter

৫ম ডিজিটাল মার্কেটিং সামিট অনুষ্ঠিত


 বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের উদ্যোগে আয়োজিত হলো পঞ্চম ডিজিটাল মার্কেটিং সামিট। মেঘনা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে উপস্থিত ছিল দেশের গণ্যমান্য ডিজিটাল প্রফেশনালসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের প্রায় ৪০০ অতিথি।

এবছরের সম্মেলনের মূল প্রতিপাদ্য ছিল “ডেল্ভিং ডীপ ইনটু ডিজিটাল”। কন্টেন্ট ম্যাটারস-এর পৃষ্ঠপোষকতায় এবং দি ডেইলি স্টারের সহযোগিতায় সংগঠিত এ অনুষ্ঠানটি শনিবার ঢাকার হোটেল লে মেরিডিয়ানে অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলন শেষে সন্ধ্যায় সেখানে অনুষ্ঠিত হয় ডিজিটাল মার্কেটিং অ্যাওয়ার্ড এর দ্বিতীয় আসর যেখানে ১৬ টি শ্রেনীতে এ বছরের শ্রেষ্ঠ ডিজিটাল ক্যা¤েপইনগুলোকে পুরষ্কৃত করা হয়।


২০১৪ সাল থেকে শুরুহওয়া এ সম্মেলনটি দেশের ডিজিটাল মার্কেটিং প্রফেশনালদের তথ্য ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের জন্য সর্বোচ্চ প্ল্যাটফর্ম হিসেবে সর্বজনবিদিত।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ব্র্যান্ড ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক শরিফুল ইসলাম। তিনি বলেন, “ডিজিটাল ধারণার মাধ্যমে আমরা এখন যেকোন ব্র্যান্ডকে ভাংতে বা গড়তে পারি। আমরা বর্তমানে একটি বিস্তৃত ডিজিটাল ইকোসিস্টেমের পৃষ্ঠভাগে দাঁড়িয়ে আছি। এই সম্মেলনের মাধ্যমে আমরা বিশ্বব্যাপী প্রচলিত বিভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরার এবং প্রত্যেকের মাঝে কিছু প্রশ্ন উত্থাপন করার চেষ্টা করছি যা এই নতুন ধারণার সাথে খাপ খাওয়ানোর একমাত্র উপায়। ”
আরো বক্তব্য রাখেন মেঘনা গ্রƒপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ এর ব্র্যান্ড এর জেনারেল ম্যানেজার মোঃ মহিউদ্দিন।


ডিজিটাল মার্কেটিং সামিটের এই ৫ম আসরে উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক ৫ জন বিশিষ্ট বক্তা, যারা ডিজিটাল মার্কেটিং ক্ষেত্রের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। এছাড়াও আলোচনার আসরে ছিলেন ২২ জন দেশীয় বিশেষজ্ঞ যারা দেশের ডিজিটাল মার্কেটিং বর্তমান পরিস্থিতি ও ভবিষ্যত রূপরেখার উপর আলোকপাত করেন। একাধিক প্যানেল আলোচনা, ব্রেকআউট সেশন, ইনসাইট সেশন এবং কেইস স্টাডি প্রেসেন্টেশন সেশনগুলো সামিটের পুরো পরিবেশকে একটি একদিনের পাঠশালার রূপ প্রদান করে। দেশের গণ্যমান্য ডিজিটাল মার্কেটিং বিশেষজ্ঞরা আলোচনাগুলোতে অংশগ্রহণ করেন এবং তাদের আলোচিত বিষয়বস্তুগুলোর মাঝে উল্লেখযোগ্য ছিল - কীভাবে একটি কার্যকর ডিজিটাল কৌশল প্রণয়ন করা যায়, ডিজিটাল বিজ্ঞাপন খাতে বাজেট তৈরি, ক্রমবর্ধমান ডিজিটাল গ্রাহক ও তাদের সাথে সুষ্ঠু যোগাযোগ স্থাপন প্রক্রিয়াসহ আরও অনেক কিছু।


সম্মেলনে কিনোট উপস্থাপন করেন যুক্তরাজ্যের দ্য নাম্বার ওয়ান এজেন্সির প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক উবাহ বাটলার; ফিলিপাইন এর ডেন্টসু এজিস নেটওয়ার্ক-এর কান্ট্রি সিইও ডঃ ডোনাল্ড প্যাট্রিক লিম; নিভিয়া ইন্ডিয়া প্রাঃ লিঃ এর এক্সপোর্টস অ্যান্ড ই-কমার্সের বানিজ্যিক পরিচালক যোগেশ শ্রফ; ¯পাইরাল কন্টেন্ট সলিউশন্স (স্ক্যাটার) - এর প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী কর্মকর্তা রাজন শ্রীনিবাসন, এবং নিয়েলসেন ইন্ডিয়ার নির্বাহী পরিচালক ডলি ঝা।


ইনসাইট সেশনগুলো পরিচালনা করেন রবি আজিয়াটা লিমিটেডের চিফ ডিজিটাল সার্ভিস অফিসার শিহাব আহমেদ এবং ১০ মিনিট স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও আয়মান সাদিক। কেস স্টাডি প্রেসেন্ট করেন এস্কিমি এশিয়ার বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার অ্যাগ্নে সভেতনিকাইতে।  
এছাড়াও ছিল কন্টেন্ট ম্যাটারস এবং চ্যাটলিডস কর্তৃক পরিচালিত ২টি ব্রেকআউট সেশন। কন্টেন্ট ম্যাটারসের ব্রেকআউট সেশনটিতে ছিলেন গ্রে বাংলাদেশের কান্ট্রি হেড অ্যান্ড ম্যানেজিং পার্টনার সৈয়দ গাউসুল আলম শাওন; ইন্ডেপেন্ডেন্ট ইউনিভারসিটি বাংলাদেশের অ্যাডজাঙ্কট ফ্যাকাল্টি ও ডিজিটাল মার্কেটিং এর ওপর পিএইচডি ডিগ্রিপ্রাপ্ত তানভীর ফারুক, এবং কন্টেন্ট ম্যাটারসের ডিরেক্টর ও জি টিভির ম্যানেজিং ডিরেক্টর আমান আশরাফ ফয়েজ। চ্যাটলিডসের ব্রেকআউট সেশনটিতে বক্তা হিসেবে ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির সিইও সাদাব মাহবুব।


 
প্যানেল আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন মার্কেটিং সোসাইটি অব বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট আশরাফ বিন তাজ, অ্যানালাইজেন – এর পিপলস চ্যা¤প রিদওয়ান হাফিজ; রবি আজিয়াটা লিমিটেডের ডিজিটাল অ্যাডভারটাইসিং –এর জেনারেল ম্যানেজার সানজিদ হোসেন; এস্কিমি দক্ষিণ এশিয়ার সিইও ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর লুতফি চৌধুরি; ম্যাগনিটো ডিজিটালের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক রিয়াদ শাহীর আহমেদ হোসেন; নিয়েলসেন দক্ষিণ এশিয়ার ডিজিটাল রিচের ডিরেক্টর ও প্রধান বিশাল কামনাথ; কন্টেন্ট ম্যাটারস লিমিটেডের সিইও ও বেসিসের মোবাইল 


ভিএএস অ্যান্ড অ্যাপসের স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান এ এস এম রফিক উল্লাহ; জিটিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আমান আশরাফ ফয়েজ; প্রাণ আর এফ এল গ্রুপের ডিজিটাল প্রধান আজিম হোসেন; বঙ্গো-র সিওও ক্যারেন কুইপেরি; অ্যানালাইজেন  এর ম্যান অব স্টিল রিসালাত সিদ্দিক; বাংলালিংকের ডিজিটাল মার্কেটিং প্রধান মুকিত আহমেদ; ফিলিপ মরিস বাংলাদেশের প্রাক্তন মার্কেটিং প্রধান শাহরিয়ার আমিন; গ্রামীনফোন লিমিটেডের হেড অব ডিজিটাল প্রোডাক্ট ইনোভেশন (ডেপুটি ডিরেক্টর) মোহাম্মদ মুনতাসির হোসেন, এবং এক্স এর পরিচালক দ্রাবির আলম।   


দিনব্যপী এ সম্মেলন শেষে সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হয় ২য় ডিজিটাল মার্কেটিং অ্যাওয়ার্ড যা হলো এদেশের ডিজিটাল মার্কেটিং খাতে একমাত্র সম্মাননা। অনুষ্ঠানটিতে এ শিল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট ৫০০ জন অতিথি অংশগ্রহণ করেন। এবারের আসরে ১৬টি ক্যাটাগরির অধীনে মোট ৭৮টি ডিজিটাল ক্যা¤েপইনকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। এ বছরের ডিজিটাল মার্কেটিং অ্যাওয়ার্ডের জন্য সর্বমোট ৪৫৬টি মনোনয়নপত্র জমা পরে। গ্র্যান্ড প্রি, গোল্ড এবং সিলভার – এই ৩টি র‌্যাংকের অধীনে অ্যাওয়ার্ডগুলো প্রদান করা হয়।  

 
বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম কর্তৃক আয়োজিত, মেঘনা গ্রƒপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত এ আয়োজনটির পৃষ্ঠপোষকতায় ছিল কন্টেন্ট ম্যাটারস এবং সহযোগীতায় ছিল দ্য ডেইলি স্টার। অনুষ্ঠানের সমর্থনে ছিল এস্কিমি; স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার  বাংলাদেশ ক্রিয়েটিভ ফোরাম ও নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি এর এসোসিয়েশন ফর ইনফরমেশন সিস্টেম; নলেজ পার্টনার  এমএসবি; ইভেন্ট পার্টনার  লে মেরিডিয়েন ঢাকা; টিভি পার্টনার  জিটিভি; পিআর পার্টনা ব্যাকপেজ পিআর; রেডিও পার্টনার  রেডিও টুডে।

 

 


Top