ফাউন্ডার মিয়ান স্কলারশীপের আওতায় আইইউবিএটিতে পড়ার সুযোগ | daily-sun.com

ফাউন্ডার মিয়ান স্কলারশীপের আওতায় আইইউবিএটিতে পড়ার সুযোগ

ডেইলি সান অনলাইন     ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ২০:৩১ টাprinter

ফাউন্ডার মিয়ান স্কলারশীপের আওতায় আইইউবিএটিতে পড়ার সুযোগ

 

মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তির সুযোগ দিচ্ছে রাজধানীর উত্তরায় অবস্থিত গার্ডেন ক্যাম্পাস খ্যাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যাগ্রিকালচার এন্ড টেকনোলজি (আইইউবিএটি)। আইইউবিএটি'র প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক ড. এম আলিমউল্যা মিয়ান বৃত্তির মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা বিনা খরচে পড়ার এ সুযোগ পাচ্ছে।

গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।  


বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশ সেরা এই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়টি শুরু হয়েছিল ১৯৯১ সালে। যার প্রতিষ্ঠাতা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএর সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ড. এম আলিমউল্যা মিয়ান। আইইউবিএটির সার্বিক লক্ষ্য হচ্ছে উপযুক্ত শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও দিকনির্দেশনার মাধ্যমে মানব সম্পদ উন্নয়ন ও জ্ঞান চর্চা যার মাধ্যমে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করা। ইতিমধ্যে আইইউবিএটির সময় উপযোগী আধুনিক ও বিজ্ঞান সম্মত পাঠদান পদ্ধতি শিক্ষার্থীদের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।


এই ক্যাম্পাসে  ছয়টি অনুষদের অধীনে নয়টি বিষয়ে ডিগ্রী দেওয়া হয়। ব্যাচেলার পর্যায়ে বিবিএ, সিভিল কম্পিউটার সায়েন্স, ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং, মেকানিক্যাল, ইকোনমিকস, অ্যাগ্রিকালচার, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট, নার্সিং এবং মাষ্টার পর্যায়ে এমবিএ বিষয়ে পড়ানো হয়। এছাড়াও ডিপ্লোমা ইন কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এবং একাউন্টিং বিষয়েও পড়ানো হয়।    


স্প্রিং ২০১৯ সেমিস্টারের জন্য আইইউবিএটির প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর ড. এম আলিমউল্যা মিয়ান বৃত্তির আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

আবেদন করার নিয়ম এবং এই বৃত্তির যাবতীয় তথ্য www.iubat.edu/FMS; scholarship@iubat.edu এই ঠিকানায় দেওয়া আছে। বৃত্তির আবেদনের শেষ তারিখ ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮।  


বৃত্তিপ্রাপ্ত আইইউবিএটি অধ্যায়নরত শিক্ষার্থী জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘এই শিক্ষা বৃত্তি না পেলে হয়তোবা আমি উচ্চ শিক্ষা হতে বঞ্চিত হতাম। ’

 

ফল ২০১৮ সেমিস্টারে বৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষার্থী মোঃ আল আমিন আকন্দ বলেন, ‘ডিপ্লোমা পাশ করার পরে পরিবারের আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে আমার পক্ষে বিএসসি পড়া প্রায় অসম্ভব ছিল। তবে এই অসম্ভবকে সম্ভব করে দিয়েছে দেশের প্রথম বেসরকারি বিশ্বিদ্যালয় আইইউবিএটি। ’ 


আইইউবিএটি'র  উপাচার্য প্রফেসর ড.আবদুর রব বলেন, আইইউবিএটির প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর ড. এম আলিমউল্যা মিয়ান একজন উদার মনের মানুষ ছিলেন। সারা জীবনই মানুষের উপকারে কাজ করে গেছেন। শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় নানা ভাবে অনুদান তিনি দিতেন। আইইউবিএটির প্রত্যয় হল, “যোগ্যতা সম্পন্ন প্রত্যেক ব্যক্তির জন্য উচ্চ শিক্ষার নিশ্চয়তা - প্রয়োজনে মেধাবী তবে অস্বচ্ছলদের অর্থায়ন”। ফাউন্ডার মিয়ান স্কলারশীপের আওতায় আইইউবিএটিতে সেমিস্টারের শুরুতেই বৃত্তির ঘোষণা দেওয়া হয় এবং অনলাইনে আবেদন করতে বলা হয়। আবেদনকারীদের তথ্য যাচাই বাছাই করে একটি লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হয় এবং কৃতকার্য শিক্ষার্থীদের সম্পূর্ণ বিনা খরচে এখানে পড়ার ব্যবস্থা করা হয়। এছাড়াও ১০০% পর্যন্ত মেধা বৃত্তি, মেয়েদের উচ্চ শিক্ষায় উৎসাহিত করতে ১৫% স্পেশাল বৃত্তি সহ বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ৫৭ টি বৃত্তি দেওয়া হয়। মোট কথা  এখানে পড়াশুনা করার জন্য অধিকাংশ শিক্ষার্থীই আর্থিক সহযোগিতা পাচ্ছে।


আইইউবিএটি ক্যাম্পাস থেকে নিজস্ব বাস চলাচল করে। প্রতিদিন এক ঘণ্টা পর পর ক্যাম্পাস থেকে বাস ছাড়ে। বিশ্ববিদ্যালয়ের এই বাসগুলো তে সকাল ৭টা থেকে বিকাল ৫.৩০ পর্যন্ত ঢাকা এবং তার পার্শ্ববর্তী এলাকাসমূহে  সম্পূর্ণ ফ্রীতে নিয়মিত শিক্ষক শিক্ষার্থী যাতায়াত করে থাকেন। এছাড়াও ক্রেডিট ট্রান্সফার, স্কলারশীপ, অনুদান, বেতন মওকুফ, শিক্ষাকালীন কর্মসংস্থান এবং শিক্ষা ঋণের  মাধ্যামে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়।  

 

এ বিষয়ে আরো জানতে ঘুরে আসুন উত্তরা মডেল টাউন (আশুলিয়া অভিমুখি হাইওয়ে) সেক্টর ১০, উত্তরা ঢাকায়, অবস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়ের সুবিশাল সবুজ ক্যাম্পাস থেকে।

 


Top