‘টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগপত্র গৃহীতের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন’ | daily-sun.com

‘টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগপত্র গৃহীতের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন’

ডেইলি সান অনলাইন     ১৩ নভেম্বর, ২০১৮ ১৬:১৯ টাprinter

‘টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগপত্র গৃহীতের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন’

টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীরা নির্বাচনকালীন সরকারে থাকছেন না বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেছেন, তারা (টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী) পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন, কোনো একসময় নিশ্চয়ই পদত্যাগপত্র গৃহীত হবে।

পদত্যাগপত্র গৃহীতের বিষয়টি এখন প্রক্রিয়াধীন।


মঙ্গলবার (১৩ নভেম্বর) সচিবালয়ে ঢাকায় নিযুক্ত নরওয়ের রাষ্ট্রদূত সিডসেল ব্লেকেনের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।


নির্বাচনকালীন সরকার গঠনে গত ৬ নভেম্বর মন্ত্রিসভা বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টেকনোক্র্যাট (সংসদ সদস্য না হয়েও বিশেষ বিবেচনায় মন্ত্রী) মন্ত্রীদের পদত্যাগের নির্দেশ দেন। ওইদিনই বিকেল থেকে সন্ধ্যার মধ্যে চার মন্ত্রী মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পদত্যাগপত্র জমা দেন।


পদত্যাগপত্র জমা দেয়ার পর তারা আর দায়িত্বে নেই ধরে নিয়ে পরেরদিন বুধবার সকাল নাগাদ চার মন্ত্রী অফিস না করার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু পদত্যাগপত্র গ্রহণ করে প্রজ্ঞাপন জারি না হওয়া পর্যন্ত তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর সোমবারের (১২ নভেম্বর) অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকেও তারা উপস্থিত ছিলেন।

 


বর্তমানে সরকারের মন্ত্রিসভায় চারজন টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী রয়েছেন। তারা হলেন, ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, প্রবাসী কল্যাণ ও কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়কমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তফা জাব্বার।


ভোটে নির্বাচিত সংসদ সদস্য নন এমন ব্যক্তিদের সরকারের বিশেষ বিবেচনায় মন্ত্রিপরিষদে রাখা হলে, তাদের টেনোক্র্যাট মন্ত্রী বলে।


বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা নির্বাচনকালীন সরকারের দায়িত্ব পালন করছি। শুধু রুটিন কাজ করছি। নীতিগত কোনো সিদ্ধান্ত নিচ্ছি না। ’ মন্ত্রিসভার রদবদলের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এটা পুরোপুরি প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার। ’


নির্বাচনে কি খালেদা জিয়া অংশ নিতে পারবেন-এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি যতটুকু সংবিধান বুঝি তাতে করে কারও যদি দুই বছরের বেশি সাজা হয়, তারপর জামিনে মুক্তি হলেও যতক্ষণ না তার সাজা আদালত মওকুফ করেন ততক্ষণ পর্যন্ত তিনি নির্বাচনে অংশ নিতে পারেন না। ’


বাণিজ্যমন্ত্রী আরও জানান, কাউকে যেন রাজনৈতিকভাবে হয়রানি না করা হয়, সেজন্য প্রত্যেক জেলায় সরকার নির্দেশনা পাঠিয়েছে।

 


Top