দিওয়ালিতে মা লক্ষ্মীর কৃপা পেতে যা করবেন! | daily-sun.com

দিওয়ালিতে মা লক্ষ্মীর কৃপা পেতে যা করবেন!

ডেইলি সান অনলাইন     ৬ নভেম্বর, ২০১৮ ১৬:০৮ টাprinter

দিওয়ালিতে মা লক্ষ্মীর কৃপা পেতে যা করবেন!

কালী পুজোর দিন বাড়িতে লক্ষ্মী পুজোর আয়োজন করেছেন। লক্ষ্মী পুজোর সময় কতগুলি নিয়ম না মেনে চললে ভিষণ বিপদ।

কারণ সেক্ষেত্রে বাড়িতে নেগেটিভ শক্তির প্রভাবে বেড়ে যাওয়ার কারণে একের পর এক বিপদের ফাঁদে পরার আশঙ্কা যেমন বাড়বে, তেমনি অর্থনৈতিক ক্ষতি তো হবেই, সেই সঙ্গে হতে পারে দুর্ভাগ্যও। লক্ষ্মী পুজোর আয়োজন করার সময় কী কী নিয়ম না মানলে ক্ষতি হতে পারে?

 

 

 

মা লক্ষ্মীর পুজো করার সময় ভুলেও তুলসি গাছের পুজো করা উচিত নয়। কারণ এমনটা করলে নাকি বিষ্ণু পত্নী এতটাই রেগে যান যে নানাবিধ ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা যায় বেড়ে। সেই সঙ্গে দেবীর রোষের কারণে অর্থনৈতিক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনাও থাকে।

 

 

বিশেষ দিনে লক্ষ্মী পুজো করার সময় এমন সলতেতে প্রদীপ জ্বালাতে হবে যার রং হবে লালচে, মোটেও সাদা নয় কিন্তু! আর সকাল সকাল উঠে প্রাদীপটা জ্বালিয়ে দিতে হবে, সেটি জ্বলবে সারা রাত ধরে। প্রদীপটা যেন ঠাকুরের আসনের ডান দিকে থাকে। কারণ এমনটা করলে নাকি বিষ্ণু দেব বেজায় প্রসন্ন হন। ফলে মা লক্ষীর আশীর্বাদ লাভ করতে সময় লাগে না।

 

 

মা লক্ষ্মী বিবাহিত।

তাই তো তাঁর আরাধনা করার সময় ভুলেও সাদা ফুল নিবেদন করা উচিত নয়। মা লক্ষ্মীর পুজো করার সময় যদি লাল বা গোলাপী রঙের ফুল নিবেদন করা হয়, তাহলে দেবী এতটাই প্রসন্ন হন যে ভক্তের জীবন অনন্দে ভরে উঠতে সময় লাগে না।

 

 

যখনই মা লক্ষ্মীর অরাধনা করবেন, তখন ভগবান বিষ্ণুর নাম নিতে ভুলবেন না যেন! কারণ মা লক্ষ্মী হলেন বিষ্ণু দেবের স্ত্রী। তাই তো দেবীর আরধনা করার সময় দেবের নাম নিলে মা লক্ষ্মী প্রসন্ন হন।

 

 

মায়ের পুজোর পর সব সময় প্রসাদ ঠাকুরের আসনের উত্তর দিকে কিছুক্ষণ রেখে তারপর তা খাওয়া উচিত। এবং এক্ষেত্রে আরেকটি বিষয় মাথায় রাখা জরুরি, তা হল মা লক্ষ্মীর আরাধনা করার পর প্ররিবারের প্রতিটি সদস্যেরই পুজোর প্রাসাদ খাওয়া উচিত।

 

 

দিওয়ালির সময় সারা বাড়ি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে সদর দরজার সামনে এবং ঠাকুর ঘরে ভাল করে আলপোনা বা রাঙ্গলী দিলে মা লক্ষ্মী বেজায় প্রসন্ন হন। ফলে গৃহস্থে দেবীর আগমণ ঘটতে সময় লাগে না। আর যে বাড়িতে মা লক্ষ্মী নিজ আসন পাতেন, সেখানে সুখ-সমৃদ্ধির ছোঁয়া লাগতেও সময় লাগে না ।

 

মা লক্ষ্মীর আসন পাতার পাশাপাশি যদি হাত খুলে দান করতে পারেন, তাহলে দেখবেন নানাবিধ সুফল পাবেই পাবেন। বিশেষথ দেবীর আশীর্বাদে অর্থনৈতিক উন্নতি ঘটতে সময় লাগে না।


Top