হবিগঞ্জের যুদ্ধাপরাধী লিয়াকত-রজবের মৃত্যুদণ্ড | daily-sun.com

হবিগঞ্জের যুদ্ধাপরাধী লিয়াকত-রজবের মৃত্যুদণ্ড

ডেইলি সান অনলাইন     ৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১২:৪৬ টাprinter

হবিগঞ্জের যুদ্ধাপরাধী লিয়াকত-রজবের মৃত্যুদণ্ড

 

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় হবিগঞ্জের লাখাই থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. লিয়াকত আলীসহ দুইজনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। সোমবার (৫ নভেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো.শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল এ রায় ঘোষণা করেন।


এর আগে রবিবার (৪ নভেম্বর) রায় ঘোষণার জন্য আজকের দিন ধার্য করেন। মামলার আরেক আসামি হলেন কিশোরগঞ্জের আমিনুল ইসলাম ওরফে রজব আলী। তারা দুজনই পলাতক রয়েছেন।


গত ১৬ আগস্ট এ মামলার শুনানি সমাপ্তি করে যে কোনো দিন রায় ঘোষণা করা হবে মর্মে সিএভি (অপেক্ষমাণ) রাখেন আদালত।


ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন প্রসিকিউটর রানা দাস গুপ্ত ও রেজিয়া সুলতানা চমন। আসামিপক্ষে ছিলেন গাজী এমএইচ তামিম। পরে প্রসিকিউটর রেজিয়া সুলতানা চমন বলেছিলেন, রাষ্ট্রপক্ষ থেকে এ দুই আসামির সর্বোচ্চ সাজা দাবি করে যুক্তি উপস্থাপন করা হয়েছে।


দুই আসামির বিরুদ্ধে গণহত্যা, লুটপাটসহ মানবতাবিরোধী সাতটি অভিযোগ বিচার কাজ শেষ হয়।


তদন্ত রিপোর্ট অনুযায়ী জানা যায়, ২০০৩ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত লিয়াকত আলী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন।

সভাপতি থাকা অবস্থাতেই যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে ২০১০ সালে তার বিরুদ্ধে মামলা হয়। এছাড়া একই ধরনের অপরাধ সংঘটনের অভিযোগে রজব আলীর বিরুদ্ধে মামলা হয়।


২০১৬ সালের ১৮ মে এই দুজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে ট্রাইব্যুনাল। সেই থেকে তারা পলাতক রয়েছেন।

 


Top