ভোটের প্রক্রিয়া-পরিবেশ দেখতে নভেম্বরে আসছে ইইউয়ের পর্যবেক্ষক | daily-sun.com

ভোটের প্রক্রিয়া-পরিবেশ দেখতে নভেম্বরে আসছে ইইউয়ের পর্যবেক্ষক

ডেইলি সান অনলাইন     ১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ১৭:২৭ টাprinter

ভোটের প্রক্রিয়া-পরিবেশ দেখতে নভেম্বরে আসছে ইইউয়ের পর্যবেক্ষক

 

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রক্রিয়া ও পরিবেশ দেখতে নভেম্বরের শেষ সপ্তাহে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের (ইইউ) দুইজন প্রতিনিধি বাংলাদেশে আসবেন বলে জানিয়েছেন ইইউয়ের রাষ্ট্রদূত রেনজি টেরিংক। আগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) বৈঠক শেষে বৃহস্পতিবার (১৮ অক্টোবর) এ কথা বলেন তিনি।


রেনজি বলেন, নভেম্বরের শেষ সপ্তাহে ইইউয়ের দুইজন প্রতিনিধি বাংলাদেশে আসবেন। তারা কয়েক সপ্তাহ এখানে অবস্থান করবেন।


তিনি আরো বলেন, গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ। এই প্রক্রিয়া নিশ্চিত করার জন্য কোনো সহযোগিতার দরকার হলে তা করবে ইইউ।


এর আগে বেলা সোয়া ১১টার দিকে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদার কার্যালয়ে বৈঠকে বসেন ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের (ইইউ) সাত সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল।


প্রতিনিধি দলে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত রেনজি টেরিংকের নেতৃত্বে বৃটেন, জার্মানি, স্পেন, সুইডেন, ফ্রান্স, ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত ও প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

 


এদিকে বৈঠকে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্চানের তফসিল ঘোষণা করা হবে বলে ইইউ প্রতিনিধি দলকে জানায় ইসি। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান নির্বাচন কমিশন সচিব মো. হেলালুদ্দীন।  


তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণের নিশ্চয়তা চায় ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

তারা বলেছে, সব দলের অংশগ্রহণ ছাড়া নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হবে না। আমরা জানিয়েছি, নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দল যাতে অংশ নিতে পারে সে পরিবেশ তৈরি করতে নির্বাচন কমিশন কাজ করছে।


ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবাহরের বিষয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়ন কমিশনের কাছে জানতে চেয়েছে উল্লেখ করে ইসি সচিব জানান, কমিশন প্রতিনিধি দলটিকে জানিয়েছে নির্বাচনে যাতে এটি ব্যবহার করা যায় সে জন্য আরপিও সংশোধন করা হয়েছে। এখন সংসদে সেটি পাস হলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া যাবে। সংসদের অনুমোদনের ওপর আগামী নির্বাচনে ইভিএমের ব্যবহারের বিষয়টি নির্ভর করছে – এমন তথ্য আমরা তাদের জানিয়েছি।

 
হেলালুদ্দীন বলেন, নির্বাচনে বিদেশী পর্যবেক্ষক নিয়ে ইইউ জানতে চেয়েছে। আমরা তাদের বলেছি, পর্যবেক্ষকের বিষয়ে বিদ্যমান নীতিমালা মেনে যে কেউ আসতে পারে। আমরা তাদের স্বাগত জানাই।

 


আমরা তাদের নির্বাচনের সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়ে জানিয়েছি যে, দেশের মোট ৪১ হাজার ১৯৯ টি ভোট কেন্দ্রের জন্য সার্বিক নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে। পর্যাপ্ত সংখ্যক আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হবে। এছাড়া নির্বাচন সামনে রেখে সংশ্লিষ্ট প্রিসাইডিং ও পোলিং এজেন্টদের প্রশিক্ষণের বিষয়টিও আমরা ইইউ প্রতিনিধি দলটিকে জানিয়েছি- সাংবাদিকদের কাছে এমন কথা বলেন নির্বাচন কমিশনের সচিব মো. হেলালুদ্দীন।


বৈঠকে ইসি’র পক্ষে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ উপস্থিত ছিলেন।

 


Top