নির্বাচনের আগে গ্যাসের দাম বাড়ছে না | daily-sun.com

নির্বাচনের আগে গ্যাসের দাম বাড়ছে না

ডেইলি সান অনলাইন     ১৬ অক্টোবর, ২০১৮ ১৯:৪৪ টাprinter

নির্বাচনের আগে গ্যাসের দাম বাড়ছে না

নির্বাচনের আগে শিল্প খাতে গ্যাসের দাম বাড়ানোর পদক্ষেপ থেকে সরে এসেছে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)। গ্যাসের উৎপাদন, এলএনজি আমদানি, সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যয় বেড়ে যাওয়ার পরও দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত থেকে দাঁড়িয়েছে সংস্থাটি।

 

আজ মঙ্গলবার বিকেলে কারওয়ানবাজারে এক সংবাদ সম্মেলনে বিইআরসি চেয়ারম্যান মনোয়ার ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন।

 

গ্যাসের দাম না বাড়ানোর কারণ দেখিয়ে মনোয়ার ইসলাম বলেন, গ্যাসের উৎপাদন, এলএনজি আমদানি, সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যয় বৃদ্ধি পাওয়া সত্ত্বেও সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে ভোক্তা পর্যায়ে বিদ্যমান মূল্যহার পরিবর্তন না করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

 

তিনি বলেন, দাম বাড়ানোর জন্য বিতরণ কোম্পানিগুলো ও পেট্রোবাংলার আবেদনে এক হাজার মিলিয়ন ঘনফুট এলএনজি আমদানির কথা উল্লেখ করা হয়েছিল। বর্তমানে ৩০০ মিলিয়নের মতো হচ্ছে। এ ছাড়া জাতীয় রাজস্ব বোর্ড হতে গত তিন অক্টোবর পৃথক দুটি এসআরওর মাধ্যমে প্রাকৃতিক গ্যাসের উৎপাদন পযায়ে সম্পূরক শুল্ক এবং আমদানি পযায়ে অগ্রিম কর ও অগ্রিম মূসক প্রত্যাহার করা হয়েছে।

 

তিনি বলেন, গ্যাস আমদানিতে ভর্তুকি প্রয়োজন। তবে এলএনজির সরবরাহ বাড়লে আর কোনো সমস্যা হবে না। জ্বালানি নিরাপত্তা তহবিল থেকে ১৪২১ কোটি টাকা নেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

 

চেয়ারম্যান বলেন, কমিশন নিরাপত্তা জামানত, বিল পরিশোধ, বিল পৌঁছানো ইত্যাদি নিয়ম পরিবর্তন করেছে।

বিতরণ সিস্টেম লস নিরূপণের জন্য প্রচলিত পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এ ছাড়া গ্যাস সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থায় আরও কিছু সংস্কার বাস্তবায়নের আদেশ দেওয়া হয়েছে।

 

এর আগে গত সপ্তাহে গ্যাসের দাম বাড়ানোর বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্ত চায় বিইআরসি। গত ৭ অক্টোবর বিইআরসি চেয়ারম্যান এ বিষয়ে সরকারের নির্দেশনা চায়। ওইদিন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়েও যান তিনি। সিদ্ধান্ত ছিল বিকেলে ফিরে এসে গ্যাসের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেবেন। তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনের আগে কোনো ধরনের গ্যাসের দাম বৃদ্ধি না করার বিষয়ে নির্দেশনা দেন। ফলে ওই দিনের সংবাদ সম্মেলন বাতিল করে বিইআরসি।

 

নির্বাচনের ঠিক আগে এভাবে গ্যাসের দাম বৃদ্ধিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়ার আশঙ্কায় সরকার বিইআরসিকে দাম বৃদ্ধির বদলে কত টাকা ভর্তুকি দিলে এলএনজি আমদানি স্বাভাবিক থাকবে তা বের করার নির্দেশ দেয়। কমিশন গত সপ্তাহজুড়ে ভর্তুকির পরিমাণ নির্ধারণ করে।

 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিইআরসি সদস্য আ. আজিজ খান, রহমান মোর্শেদ, মাহমুদুল হক ভূঁইয়া, মিজানুর রহমান খান।

 

উল্লেখ্য, গত জুনে এলএনজি আমদানি চূড়ান্ত হওয়ার পরই গ্যাসের দাম বাড়ানোর তোড়জোড় শুরু হয়। উত্তোলন ও বিতরণ কোম্পানিগুলোর পক্ষ থেকে আবাসিক ও বাণিজ্যিক ছাড়া সব ক্ষেত্রে গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়। জুনের ১১ তারিখ থেকে দাম বাড়ানোর উপর শুনানি শুরু করে বিইআরসি।


Top