ড. কামাল নৌকা থেকে নেমে ধানের শীষের হাত ধরেছেন: প্রধানমন্ত্রী | daily-sun.com

ড. কামাল নৌকা থেকে নেমে ধানের শীষের হাত ধরেছেন: প্রধানমন্ত্রী

ডেইলি সান অনলাইন     ১৪ অক্টোবর, ২০১৮ ১৮:৩৩ টাprinter

ড. কামাল নৌকা থেকে নেমে ধানের শীষের হাত ধরেছেন: প্রধানমন্ত্রী

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ড. কামাল হোসেন নৌকা থেকে নেমে এখন ধানের শীষের হাত ধরেছেন। যে ধানে শীষ নেই, চিটা ছাড়া কিছুই নেই।

রবিবার (১৪ অক্টোবর) বিকেলে মাদারীপুরের শিবচর এলাকায় পদ্মা সেতুর কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন শেষে এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।


একই সঙ্গে তিনি বলেন,  ড. কামাল হোসেন জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কথা বলেন, অথচ আজ যে বিএনপি-জামায়াত জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে জড়িত, তিনি তাদের সঙ্গে ঐক্য গড়েছেন।


প্রধানমন্ত্রী বলেন, যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে, যারা অগ্নিসন্ত্রাস করে, যারা মানিলন্ডারিং ও দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত, যারা এতিমের টাকা চুরি করে খায়, তাদের সঙ্গে ঐক্য করেছেন ড. কামাল হোসেন গং। সঙ্গে জুটেছে কিছু খুচরা আধুলিও।


প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমি কামাল হোসেন সাহেবকে বাহবা জানাই। তবে, তিনি কার সঙ্গে ঐক্য করেছেন? তিনি কাকে নেতা মেনেছেন? যে পলাতক, যে বিদেশে, যে মানিলন্ডারিং কেসে সাজাপ্রাপ্ত। দশ ট্রাক অস্ত্র চোরাকারবারি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় সাজাপ্রাপ্ত। তার অধীনেই কামাল হোসেন গংরা ঐক্য করেছেন।

তারা আজ খুনিদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। ওই খুনিদের তো মানুষ ক্ষমতায় চায় না।


শেখ হাসিনা বলেন, বিডিআর হত্যাকাণ্ডের সময় খালেদা জিয়া সকাল ৭টায় বাসা থেকে বের হয়ে যান। কেন বের হয়ে গেলেন? এই হত্যাকাণ্ডে তারা যে জড়িত, তাতে কোনও সন্দেহ নাই। নইলে কেন বাসা ছেড়ে চলে গেলেন? এই জবাব খালেদা জিয়াকে দিতে হবে।

 


একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী ফরিদপুর, শরীয়তপুর, মাদারীপুর ও শিবচরের জনগণকে আগামী নির্বাচনে নৌকায় ভোট দিয়ে আবারও সরকার গঠনের জন্য আহ্বান জানান। তিনি বলেন, নৌকা মার্কায় ভোট দিলে দেশের উন্নয়ন হয়, ক্ষমতার ধারাবাহিকতা থাকলে দেশের উন্নয়ন হয়। দেশের মানুষ পেট ভরে খেতে পারে, লেখাপড়া করতে পারে, বিনামূল্যে ওষুধ পায়। আমার চাওয়া পাওয়ার কিছু নেই। আপনারা যাতে ভালো থাকতে পারেন, দেশের মানুষ যেন ভালো থাকে এটাই মূল লক্ষ্য।


প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‌‍আমি বঙ্গবন্ধুর মেয়ে, জীবনে দুর্নীতি করিনি। কেউ কোনো অভিযোগ প্রমাণ করতে পারেনি। খালেদা জিয়া এটাও বলেছিলেন, এ সরকারের আমলে আর পদ্মা সেতু হবে না। জোট সরকার পদ্মা সেতুর কাজ কিছুই করেনি। দুর্নীতির কারণে বিশ্বব্যাংক সে সময় ৭টি প্রকল্প বন্ধ করে দেয়। দেশবাসীসহ বিশ্ব দেখছে আমরাই পদ্মা সেতু নির্মাণ করছি। সব ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করেই সেতু নির্মাণ হচ্ছে। আওয়ামী লীগ সরকারের পৌনে ১০ বছরে দেশের মানুষ উন্নয়নের সুফল উপভোগ করছে।


তিনি বলেন, অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে বিশ্বের ৫টি দেশের একটি বাংলাদেশ। দেশজ উৎপাদন হিসেবে বিশ্বের ৪৩তম বৃহৎ অর্থনীতির দেশ। ২০১৮ সালে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের যাত্রা শুরু করেছি। দেশের অর্থনীতি এখন প্রায় ৮ লাখ কোটি টাকারও বেশি। উন্নয়নের ৯০ ভাগ কাজই নিজস্ব অর্থায়নে করছি। এবার প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে ৭ দশমিক ৮৬ শতাংশ। বর্তমানে মূল্যস্ফীতি ৫.৪০ শতাংশ। মাথাপিছু আয় ২০০৫-০৬ সালের ৫৪৩ মার্কিন ডলার থেকে বৃদ্ধি পেয়ে এখন ১৭৫১ ডলার। দারিদ্র্যের হার ২০০৬ সালের ৪১.৫ শতাংশ থেকে এখন ২১.৮ শতাংশ। অতি দারিদ্র্যের হার ১০ শতাংশ। প্রায় দেড় কোটি মানুষের কর্মসংস্থান। ৫ কোটি মানুষ মধ্যবিত্ত শ্রেণিতে উন্নীত। ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করছি। এক কোটি লোকের কর্মসংস্থান হবে। বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা ২০ হাজার মেগাওয়াট। ৯০ ভাগ মানুষ বিদ্যুৎ পাচ্ছে। ১২৩টি বিদ্যুৎকেন্দ্র। স্বাস্থ্যসেবা এখন মানুষের দোরগোড়ায়।


শেখ হাসিনা বলেন, বয়স্ক-ভাতাভোগীর সংখ্যা ৩৫ লাখ থেকে বাড়িয়ে ৪০ লাখ করা হয়েছে। স্বামী পরিত্যক্তা এবং দুস্থ মহিলা ভাতাভোগীর সংখ্যা ১২.৬৫ লাখ থেকে বেড়ে ১৪ লাখ। অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতাভোগীর সংখ্যা ৮ লাখ ২৫ হাজার থেকে বেড়ে ১০ লাখ।


তিনি বলেন, বিএনপির রাজনীতি হলো হত্যা, খুন আর ষড়যন্ত্র। গ্যাস বিক্রির মুচলেকা দিয়ে ২০০১-এ বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় আসে। রাজাকারের গাড়িতে জাতীয় পতাকা তুলে দেয়। প্রধানমন্ত্রী হয়েও কালো টাকা সাদা করেছিলেন। আজ যে ড. কামালের সঙ্গে বিএনপির ঐক্য হয়েছে তা মিলের কারণেই হয়েছে। কারণ ড. কামালও কালো টাকা সাদা করেছিলেন।


স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মো. শামসুদ্দিন খানের সভাপতিত্বে জনসভায় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, নূরে আলম চৌধুরী লিটন প্রমুখ।

 

আরও পড়ুন:

 

‘কিছু বিষয়ে চাপ সৃষ্টি করে সমস্যা তৈরি করছিল’ বিকল্পধারা: ফখরুল


ড. কামাল নৌকা থেকে নেমে ধানের শীষের হাত ধরেছেন: প্রধানমন্ত্রী


মান্না ও মাহি বি চৌধুরীর ফোনালাপ ফাঁস (অডিও)


জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ৭ দাবি, লক্ষ্য ১১টি


বি. চৌধুরীকে বাদ দিয়ে বিএনপিকে নিয়ে ড. কামালের জাতীয় ঐক্য


কামালের সংবাদ সম্মেলন প্রেস ক্লাবে, বি. চৌধুরীর বারিধারায়


ড. কামালের চেম্বারে বৈঠকে ফখরুল রব মান্না জাফরুল্লাহ


বি. চৌধুরীকে ডেকে বাড়ি থেকে উধাও ড. কামাল!

 

 


Top