অলোক আমাকে ধরে টানতে শুরু করেছিলেন : সন্ধ্যা মৃদুল | daily-sun.com

অলোক আমাকে ধরে টানতে শুরু করেছিলেন : সন্ধ্যা মৃদুল

ডেইলি সান অনলাইন     ১০ অক্টোবর, ২০১৮ ২০:৪০ টাprinter

অলোক আমাকে ধরে টানতে শুরু করেছিলেন : সন্ধ্যা মৃদুল

সম্প্রতি প্রযোজক-চিত্রনাট্যকার বিনতা নন্দা ধর্ষণের অভিযোগ এনে ফেসবুকে বোমা ফাটিয়েছেন। কিন্তু ইচ্ছাকৃত ভাবেই নাম করেননি অলোক নাথের।

শুধু ‘সংস্কারি’ অভিনেতা বলতেই বলিউড বুঝে গিয়েছে তিনি অলোক নাথ। এ বার সেই ‘সংস্কারি’ অভিনেতা র বিরুদ্ধে মুখ খুললেন বলিউডের আরও এক পরিচিত মুখ সন্ধ্যা মৃদুল।

 

সন্ধ্যার দাবি, বেশ কয়েক বছর আগে একটি টেলিফিল্মের শুটিংয়ে তাঁর সঙ্গে আপত্তিজনক ব্যবহার করেছিলেন অলোক। সেখানে তিনি সন্ধ্যার বাবার ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। ভয়ঙ্কর সেই অভিজ্ঞতার কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন অভিনেত্রী।

 

সন্ধ্যা লিখেছেন, ‘আমার কেরিয়ারের শুরুর দিকে কোদাইকানালে একটা টেলিফিল্মের শুটিং করেছিলাম। অলোক নাথ আমার বাবা এবং রিমা লাগু আমার মায়ের ভূমিকায় ছিলেন। অলোক আমার কাজের প্রশংসা করতেন। আমাকে তো ঈশ্বরের সন্তান বলেও ডাকতেন।

আমি তো বাবুজির অনুরাগী ছিলাম...। ’’

 

কিন্তু এর পরই সন্ধ্যার ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা হয় ওই শুটিংয়ের সেটেই। তিনি জানিয়েছেন, একদিন রাতে তাড়াতাড়ি কাজ শেষ হওয়ার পর পার্টি করছিলেন সকলে। সেখানে মত্ত অবস্থায় অলোক নাকি সন্ধ্যাকে তাঁর পাশে বসার জন্য জোর করছিলেন। অভিনেত্রীর অস্বস্তি হতে থাকে। টিমের বাকি সদস্যরা বুঝতে পেরেছিলেন, কী হতে চলেছে। তাঁরাই ওই পরিবেশ থেকে সন্ধ্যাকে বের করে নিয়ে আসেন। রাতে না খেয়েই হোটেলে ফিরে যান তিনি।

 

কিন্তু এতেই যে বিপদ শেষ হয়নি, তা তখনও জানতে না সন্ধ্যা। তিনি লিখেছেন, ‘‘পরের দিন খুব সকালে আমার কল টাইম ছিল। আমার ঘরে কস্টিউম দিতেএসেছিলেন একজন। তিনি চলে যাওয়ার পর ফের দরজায় আওয়াজ হয়। তিনিই ফিরে এসেছেন ভেবে আমি দরজা খুলে দেখি অলোক দাঁড়িয়ে রয়েছেন। আমি দরজা বন্ধ করে দিতে যাই, কিন্তু জোর করে উনি ঘরে ঢুকে পড়েন। আমি বাথরুমের দরজার সামনে পড়ে গিয়েছিলাম। তখন আমাকে ধরে টানতে থাকেন অলোক। কোনওরকমে উঠে দৌড়ে ঘর থেকে বেরিয়ে লবিতে চলে গিয়েছিলাম সে দিন। ’’

 

সন্ধ্যা জানিয়েছেন, ওই ইউনিটেরই এক সদস্য তাঁকে সে রাতে সাহায্য করেছিলেন। কিন্তু অলোক কোনও ভাবেই তাঁর ঘর ছাড়তে চাননি। মত্ত অবস্থায় সন্ধ্যার ঘরকেই নিজের ঘর বলে নাকি দাবি করেছিলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা। সন্ধ্যা জানিয়েছেন, কিছুদিন পরে তাঁর ঘরে গিয়ে নিজের কাজের জন্য ক্ষমা চেয়েছিলেন অলোক। কিন্তু মুম্বাইতে ফিরেই তিনি নাকি অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে নানা কথা বলতে থাকেন। সন্ধ্যা একগুঁয়ে এবং তাঁর সঙ্গে কথা বলাটা অস্বস্তিকর— এ কথা নাকি ইন্ডাস্ট্রির অন্দরে রটিয়েছিলেন অলোকই।

 

বিনতার অভিযোগ অলোক নাথ স্বীকার বা অস্বীকার কিছুই করেননি। সন্ধ্যার অভিযোগের পরও কি একই অবস্থান নেবেন তিনি?

 


Top