ক্রিকেটের ‘বৃষ্টি’ ও ‘বল ট্যাম্পারিং’ আইনে পরিবর্তন | daily-sun.com

ক্রিকেটের ‘বৃষ্টি’ ও ‘বল ট্যাম্পারিং’ আইনে পরিবর্তন

ডেইলি সান অনলাইন     ১ অক্টোবর, ২০১৮ ১৮:৪৭ টাprinter

ক্রিকেটের ‘বৃষ্টি’ ও ‘বল ট্যাম্পারিং’ আইনে পরিবর্তন

 

ডার্কওয়ার্থ-লুইস মেথড- ডি/এল বা বৃষ্টি আইন নামেই অধিক পরিচিত। বৃষ্টির কারণে খেলা সংক্ষিপ্ত করতে হলে এই মেথডের মাধ্যমে নতুন লক্ষ্য স্থির করা হয়।

এবার এই মেথডে পরিবর্তন এনেছে আইসিসি। এছাড়া বল ট্যাম্পারিং ও খেলোয়াড়দের আচরণ বিধিতেও পরিবর্তন আনা হয়েছে। রবিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দক্ষিণ আফ্রিকা-জিম্বাবুয়ে ম্যাচ থেকেই চালু হয়ে গেছে নতুন নিয়ম।


এর আগেও দুইবার পরিবর্তন করা হয়েছিল ডার্কওয়ার্থ-লুইস মেথডের। সর্বশেষ ২০১৪ সালে এর পরিবর্তন আনা হয়েছিল। এতদিন এই পদ্ধতিতে বল-বাই-বল বিশ্লেষণ করা হতো। এমনকি পাওয়ার প্লে-তেও। কিন্তু নতুন নিয়ম অনুযায়ী শেষ ২০ ওভারের (ওয়ানডের ক্ষেত্রে) রানরেট বিশেষ গুরুত্ব পাবে। অর্থাৎ ইনিংসের শেষ দিকে যে দল বেশি রান করবে তারা একটু বেশি সুবিধা পাবে।

পুরুষ ও নারী- উভয় ক্রিকেটেই এই নিয়ম প্রজোয্য হবে।


এদিকে বল ট্যাম্পারিংয়ের বিষয়ে আরো কঠোর আইন করেছে আইসিসি। নতুন আইন অনুযায়ী মাঠে যদি কোনো ক্রিকেটার বলে ট্যাম্পারিংয়ের চেষ্টা করেন, তাহলে সেটা আইসিসি’র লেভেল থ্রি অপরাধ বলে বিবেচিত হবে। আগে এটি লেভেল টু অপরাধ বলে বিবেচিত হতো। লেভেল থ্রি অপরাধের জন্য ১২ ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ করা হবে। এখন থেকে (৩০ সেপ্টেম্বর) বল ট্যাম্পারিংয়ের অপরাধের শাস্তি হিসেবে অভিযুক্ত ক্রিকেটারকে ৬ টেস্ট বা ১২টি ওয়ান ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করা হবে।


পরিবর্তন আনা হয়েছে খেলোয়াড়দের কোড অব কান্ডাক্টেও। নতুন নিয়মে লেভেল ৩ অপরাধের জন্য ৮ থেকে সাসপেনসন্স পয়েন্ট বেড়ে হয় ১২। অর্থাৎ ৬টি টেস্ট এবং ১২টি ওয়ানডে ম্যাচের সমতুল্য। এখন থেকে লেভেল ১, ২, ৩ অপরাধের শাস্তি দিতে পারবেন ম্যাচ রেফারি। লেভেল ৪ অপরাধের শুনানি হবে জুডিসিয়াল কমিশনে।

 


Top