কাশ্মীর বিদ্রোহী বুরহান’র নামে স্ট্যাম্প প্রকাশ পাকিস্তানের, বৈঠক বাতিল ভারতের | daily-sun.com

কাশ্মীর বিদ্রোহী বুরহান’র নামে স্ট্যাম্প প্রকাশ পাকিস্তানের, বৈঠক বাতিল ভারতের

ডেইলি সান অনলাইন     ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৩:১৯ টাprinter

কাশ্মীর বিদ্রোহী বুরহান’র নামে স্ট্যাম্প প্রকাশ পাকিস্তানের, বৈঠক বাতিল ভারতের

 

পাকিস্তান ও ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রীদ্বয়ের মধ্যকার বৈঠক বাতিল করেছে নয়াদিল্লী। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ফাঁকে এই বৈঠকের কথা ছিল।

বৈঠকের ব্যাপারে একমত হওয়ার মাত্র একদিন পরেই শুক্রবার (২১ সেপ্টেম্বর) এটা বাতিল করলো ভারত।


ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভিশ কুমার এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, পাকিস্তানের ‘অস্বচ্ছ উদ্দেশ্যের’ কারণে এটা বাতিল করা হয়েছে।


তিনি জানান, ‘পাকিস্তানী শক্তি’র হাতে ভারতের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য হত্যার’ অভিযোগে এবং কথিত ‘সন্ত্রাসীদের প্রশংসা’ করে ইসলামাবাদ স্ট্যাম্প প্রকাশ করায় ভারত এ আলোচনা বাতিল করেছে।


দ্য নেশানের মতে, পাকিস্তান পোস্ট ২০টি বিশেষ পোস্ট স্ট্যাম্প প্রকাশ করেছে ২৪ জুলাই। এদের মধ্যে বুরহান ওয়ানি এবং তার দুই সহযোগির ছবিও রয়েছে। হিজবুল মুজাহিদীন কমান্ডার বুরহান ওয়ানি কাশ্মীরের একজন মুক্তিযোদ্ধা। ২০১৭ সালে ভারতীয় সেনার হাতে নিহত হন তিনি।

 
রাভিশ কুমার বলেন, “নতুন শুরুর জন্য আলোচনার শুরুর ব্যাপারে পাকিস্তানের প্রস্তাবের পেছনে পাকিস্তানের অশুভ এজেন্ডা প্রকাশিত হয়ে গেছে এবং নতুন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সত্যিকারের চেহারা প্রথম কয়েক মাসেই বিশ্বের কাছে প্রকাশিত হয়ে গেছে”। তিনি আরও বলেন, “এ ধরণের পরিবেশে পাকিস্তানের সাথে যে কোন ধরণের আলোচনা অর্থহীন।


এদিকে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি এই সিদ্ধান্তকে ‘দুর্ভাগ্যজনক’ আখ্যা দিয়ে বলেন, “আমরা ভারতকে এরই মধ্যে জানিয়েছি যে তারা এক ধাপ এগিয়ে আসলে আমরা দুই ধাপ এগুবো। তবে, মনে হচ্ছে তারা এক ধাপ এগিয়েই হোচট খেয়ে পড়ে গেছে। ”


ডননিউজটিভিকে কোরেশি বলেন, বিশ্বের দেখা উচিত যে ‘পাকিস্তান পরিস্থিতির ব্যাপারে একটা ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি ধারণ করে, কিন্তু ভারত সেখানে এগিয়ে আসার মানসিকতা দেখাচ্ছে না’।


নয়াদিল্লীর কঠোর অবস্থানের পরও পাকিস্তান তাদের প্রতি শান্তির আহ্বান অব্যাহত রাখবে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে কোরেশি বলেন, “আমরা বলেছি আমরা সংলাপ চাই, কিন্তু সেটা সম্মানজনকভাবে হতে হবে। ”


তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী জিওটিভিকে দেয়া সাক্ষাতকারে বলেন, পুরো বিশ্ব দেখছে ভারত কি করছে।


“বিশ্ব দেখছে যে আমরা শান্তি ও সংলাপের কথা বলেছি। তারা দেখছে যে, আমরা আমাদের সাধ্যমতো এ জন্য চেষ্টা করেছি। অন্যদিকে, ভারত যেটা করেছে, সেটাকে দুইভাবে দেখা যায়। একটি হলো ভারতের চরমপন্থী গ্রুপগুলো ভারত ও পাকিস্তানের সম্পর্ককে নষ্ট করতে চাচ্ছে। আর দ্বিতীয়টি হলো ভারত সরকার নিজেই এ ধরণের চরমপন্থী মানসিকতা নিয়ে কাজ করছে। ”


-সূত্র: ডন অবলম্বনে সাউথ এশিয়ান মনিটর ডট কম

 


Top