আবেগে কেঁদে ফেললেন তোফায়েল | daily-sun.com

আবেগে কেঁদে ফেললেন তোফায়েল

ডেইলি সান অনলাইন     ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৭:৪৭ টাprinter

আবেগে কেঁদে ফেললেন তোফায়েল

 

আবেগ সবসময় লুকিয়েও রাখা যায় না। বঙ্গবন্ধুর একান্ত সহচর থেকে নানা চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে মন্ত্রী ও জননেতা তোফায়েল আহমেদ।

আজ আবেগে কাঁদলেন তিনিও। কেঁদেছেন গণমাধ্যমের সামনেই।

 

তোফায়েল আহমেদ ভোলায় স্বাধীনতা জাদুঘরে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের বেশকিছু স্থিরচিত্র দেখাচ্ছিলেন তার সঙ্গে থাকা সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরসহ সফরসঙ্গীদের। একপর্যায়ে তাকে কিছু বলতে হলো ক্যামেরার সামনে। তিনি বললেন, কাঁদলেনও।

 

তোফায়েল আহমেদ বললেন, ‘আমি মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সংবলিত ছবি খুঁজতে গিয়েছিলাম জাতীয় জাদুঘরে। সেখানে গিয়ে পাইনি মুক্তিযুদ্ধের উপযুক্ত ছবি। তাই সিদ্ধান্ত নেই এ সংক্রান্ত ছবি সংগ্রহ করে প্রতিষ্ঠা করবো স্বাধীনতা জাদুঘর। এর পর থেকেই শুরু করি এ জাদুঘর নির্মাণকাজ।

আজ এ পর্যন্ত এগিয়েছি। ’

 

তিনি বলেন, আমি জীবনে যা প্রত্যাশা করেছি তা পেয়েছি। আমার প্রতি মানুষের দোয়া আছে। ভোলার মানুষ আমাকে ভালোবাসে। আমিও তাদেরকে ভালোবাসি। সুখে-দুঃখে, আপদ-বিপদে আমি তাদের পাশে আছি এবং তাদের সহায়তায় এতোদূর এগিয়েছি। ’ একথা বলতেই কেঁদে ফেলেন তিনি।

 

বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ এই সহচর বলেন, দুটি স্বপ্ন নিয়ে বঙ্গবন্ধু রাজনীতি করেছেন। একটি হচ্ছে বাংলাদেশের স্বাধীনতা, যা তিনি আমাদেরকে দিয়ে গেছেন। আরেকটি হচ্ছে- তিনি চেয়েছিলেন ক্ষুধা-দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়া। আর সেটি অর্জনে কাজ করছেন তারই কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ’

 

তিনি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন- ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলা গড়া সম্ভব হবে। ’ একথা বলার সময়ও তোফায়েল আহমেদ কেঁদে ফেলেন।

 

 


Top