শান্তির শপথে একই মঞ্চে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতারা | daily-sun.com

শান্তির শপথে একই মঞ্চে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতারা

ডেইলি সান অনলাইন     ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৪:০১ টাprinter

শান্তির শপথে একই মঞ্চে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতারা

 

শান্তির বিজয় শপথে একই মঞ্চে উপস্থিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতারা। রাজনৈতিক সহনশীলতা ও সম্প্রীতির সমর্থনে এবং সহিংসতার বিরুদ্ধে একই মঞ্চে শান্তিপূর্ণ ও অহিংস নির্বাচনের শপথ নিতে সমবেত হয়েছেন তারা।

সোমবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) ‘শান্তিতে বিজয়, শান্তি জিতলে জিতবে দেশ’ শীর্ষক এক জাতীয় ক্যাম্পেইনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ শপথ অনুষ্ঠিত হবে।


ইউএসএআইডি ও ইউকেএআইডের যৌথ অর্থায়ন এবং ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল (স্ট্রেন্থেনিং পলিটিক্যাল ল্যান্ডস্কেপ) এসপিএল প্রকল্পের আওতায় ক্যাম্পেইনটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে।


অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমাম ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খানসহ বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের বিদায়ী রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া ব্লুম বার্নিকাট এবং ব্রিটিশ হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্লেক উপস্থিত রয়েছেন। এ ছাড়া রয়েছেন সারা দেশ থেকে আগত বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের আমন্ত্রিত নেতারা।

 


জাতীয় নির্বাচনের আগে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন ও সহনশীল রাজনীতির চর্চা বৃদ্ধিতে, ‘শান্তিতে বিজয়’ ক্যাম্পেইনটি বাংলাদেশের সব নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল, প্রার্থী ও সাধারণ জনগণকে সচেতন করা এবং তাদের অংশগ্রহণ করার সুযোগ তৈরি করেছে।


উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সারা দেশ থেকে তৃণমূলের ৪০ জেলার আওয়ামী লীগ এবং বিএনপির নেতারা রাজনৈতিক সহনশীলতা ও সম্প্রীতির সমর্থনে তাদের কেন্দ্রীয় নেতারা একসঙ্গে দাঁড়িয়ে সহিংসতার বিরুদ্ধে অঙ্গীকার করার কথা রয়েছে।


শান্তির অঙ্গীকারে শপথনামায় উল্লেখ আছে- আমি বিশ্বাস করি, একমাত্র সহনশীল ও শান্তিপূর্ণ রাজনীতিই দেশের মানুষের কল্যাণ বয়ে আনতে পারে। আমি বিশ্বাস করি, যারা শান্তিপূর্ণ রাজনীতির চর্চা করবে, দেশের মানুষ তাদেরই সমর্থন করবে। তাই আমি অঙ্গীকার করছি- আমি সহনশীল ও শান্তিপূর্ণ রাজনীতির চর্চা করব।


ভবিষ্যতের যে কোনো নির্বাচনে আমি শান্তিপূর্ণভাবে প্রচারণা করব এবং দলের সহকর্মীদেরও নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে উৎসাহিত করব। আমি অঙ্গীকার করছি- আমি সবসময় শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশ গড়তে সচেষ্ট থাকব। শান্তিতে বিজয় বাংলাদেশের ষোলো কোটি মানুষের বিজয়। শান্তি জিতলে জিতবে দেশ।

 


Top