স্ত্রীর সঙ্গে নওয়াজ শরীফের শেষ কথা কি ছিল? | daily-sun.com

স্ত্রীর সঙ্গে নওয়াজ শরীফের শেষ কথা কি ছিল?

ডেইলি সান অনলাইন     ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২০:১৩ টাprinter

স্ত্রীর সঙ্গে নওয়াজ শরীফের শেষ কথা কি ছিল?

দুর্নীতির মামলায় সাজা ভোগ করতে মেয়ে ও জামাতাকে নিয়ে গত ১৩ জুলাই লন্ডন থেকে পাকিস্তান এসে পৌঁছান সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ। লন্ডন ছাড়ার আগে শেষ বারের মতো হাসপাতালে শয্যাশায়ী স্ত্রীকে দেখে আসেন তিনি।

 

‘চোখ খোলো কুলসুম’, এটাই ছিল স্ত্রীর সঙ্গে তার শেষ কথা। স্ত্রীর সঙ্গে নওয়াজের সেই শেষ সাক্ষাতের ভিডিও ইতোমধ্যেই সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছে।

গতকাল লন্ডনের হাসপাতালে মৃত্যু হয় নওয়াজের স্ত্রী কুলসুমের। স্ত্রীর জানাজায় অংশ নিতে আজ রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা সাবজেল থেকে প্যারোলে মুক্তি পেয়েছেন নওয়াজ শরিফ। একই সঙ্গে নওয়াজের মেয়ে মরিয়ম ও জামাতা মোহাম্মদ সফদারকেও প্যারোলে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।

 

ভিডিও দেখা গিয়েছে, শয্যাশায়ী স্ত্রীর কাছে কাতর কণ্ঠে বিদায় জানাচ্ছেন নওয়াজ। স্ত্রী কুলসুমকে এক বার চোখ মেলে তাকানোর অনুরোধ করেন তিনি। যদিও তার ডাকে সাড়া দিতে দেখা যায়নি বেগম কুলসুমকে। শেষে নওয়াজ বলেন, ‘আল্লাহ তোমাকে শক্তি দিক, তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ওঠো।

 

দীর্ঘ অসুস্থতার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর) লন্ডনের একটি হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কুলসুম নওয়াজ। গত বছরের আগস্টে কুলসুম নওয়াজের গলায় ক্যান্সার ধরা পড়ে। এর জন্য লন্ডনে চিকিৎসারত থাকা অবস্থাতেই গত ১৫ জুন হৃদরোগে আক্রান্ত হন কুলসুম। তাকে লন্ডনের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং তখন থেকেই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

 

১৯৭১-এর এপ্রিলে বিয়ে হয় নওয়াজ, কুলসুমের। কাশ্মীরি পরিবার থেকে আসা কুলসুম জন্মগ্রহণ করেন লাহোরে। লাহোরের ফরমান ক্রিস্টিয়ান কলেজ থেকে স্নাতক এবং ১৯৭০ সালে পঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর হন।

 

লন্ডনে কেনা বিলাসবহুল চারটি ফ্ল্যাটের মূল্য পরিশোধে দেওয়া অর্থের উৎস দেখাতে ব্যর্থ হওয়ার দায়ে গত জুলাই থেকে ১০ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করছেন নওয়াজ। একই অভিযোগে মেয়ে মরিয়মকে দেওয়া হয় ৭ বছরের কারাদণ্ড। আর তার স্বামী সফদার ভোগ করছেন এক বছরের কারাদণ্ড।

 


Top