পবিত্র হজ আজ | daily-sun.com

পবিত্র হজ আজ

ডেইলি সান অনলাইন     ২০ আগস্ট, ২০১৮ ১৩:০০ টাprinter

পবিত্র হজ আজ

 

পবিত্র হজ সোমবার (২০ আগস্ট)। বিশ্বের প্রায় ১৬৪টি দেশের ২০ লাখের বেশি ধর্মপ্রাণ মুসলমান হজ পালনের লক্ষ্যে মিনা থেকে আরাফাতের ময়দানে যাবেন।


লাব্বাইক, আল্লাহুম্মা লাব্বাইক, লা শারিকা লাকা লাব্বাইক, ইন্নাল হামদা ওয়াননি’মাতা লাকা ওয়ালমুল্ক। ’ অর্থাৎ—‘আমি হাজির, হে আল্লাহ আমি হাজির, তোমার কোনো শরিক নেই, সব প্রশংসা ও নিয়ামত শুধু তোমারই, সব সাম্রাজ্যও তোমার। ’ এই ধ্বনিতে মুখরিত হবে আরাফাতের ময়দান।


তালবিয়া পাঠ করে মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে নিজের উপস্থিতি জানান দিয়ে পাপমুক্তির আকুল বাসনায় লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসলমান (হাজী) সোমবার মিনা থেকে আরাফাতের ময়দানে সমবেত হবেন।


মঙ্গলবার (২১ আগস্ট) সৌদি আরবে ঈদুল আজহার দিন পশু কোরবানির মধ্য দিয়ে শেষ হবে হজের আনুষ্ঠানিকতা।


রবিবার (১৯ আগস্ট) সৌদি আরবে পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে মিনায় হাজিদের সমবেত হওয়ার মধ্য দিয়ে। লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে উঠেছে তাঁবুর শহর মিনা।


এর আগে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত প্রায় ২০ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসলমান মসজিদুল হারামে (কাবা) শুক্রবার জুমার সালাত আদায় করেন। শনিবার বিকেল থেকে মিনার উদ্দেশ্যে রওনা দেন হাজিরা।

নিজ নিজ আবাস এবং মসজিদুল হারাম থেকে ইহরাম বেঁধে মক্কা থেকে প্রায় ৯ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে মিনার উদ্দেশে যাত্রা করেন তারা।


সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে হজ পালনে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে সৌদি সরকার। মুসলমানদের সুচারুভাবে হজ পালনের সুবিধার জন্য সৌদি আরবের কয়েকটি মন্ত্রণালয় সমন্বয় সাধন করে কাজ করছে। হজ ও উমরাহ মন্ত্রণালয় হজযাত্রীদের সাহায্য করার জন্য একটি বিশেষ সেল স্থাপন করেছে।


সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, হাজিদের স্বাস্থ্যসেবা দেওয়ার জন্য মক্কায় পর্যাপ্ত জনবল, ওষুধ ও যন্ত্রপাতিসহ কয়েকটি হাসপাতাল স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া মিনা,আরফাতের ময়দান ও মুজদালিফায় অনেকগুলো স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র চালু করা হয়েছে।


সৌদি আরবে বাংলাদেশ হজ মিশনের তথ্যানুযায়ী, চলতি বছর শুক্রবার শেষ ফ্লাইটসহ ১ লাখ ২৭ হাজার ২৯৭ হজযাত্রী (ব্যবস্থাপনা সদস্যসহ) সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। বিমান বাংলাদশে এয়ারলাইনস হজযাত্রী পরিবহন শেষ করেছে ১৫ আগস্ট। সৌদি এয়ারলাইনস হজযাত্রী পরিবহন শেষ করেছে ১৭ আগস্ট।   


বাংলাদেশের সরকারি হিসাবে ভিসা হয়নি ৬০৬ জনের আর ভিসা পেলেও এজেন্সির গাফিলতির কারণে টিকিট হয়নি ৬৮ জনের। চূড়ান্ত হিসাব অনুযায়ী, ২০১৮ সালে হজবঞ্চিত হলেন ৬৭৪ জন।


এদিকে হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হওয়ার পূর্বে শনিবার পর্যন্ত বার্ধক্য, হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ ও শ্বাসকষ্টজনিত রোগে ৫১ বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু হয়। তাদের মধ্যে ৪২ পুরুষ ও ৯ নারী রয়েছে।

 


Top