পাকিস্তানকে ১৪-০ গোলে পরাজিত করল বাংলাদেশ | daily-sun.com

পাকিস্তানকে ১৪-০ গোলে পরাজিত করল বাংলাদেশ

ডেইলি সান অনলাইন     ৯ আগস্ট, ২০১৮ ২১:৩৭ টাprinter

পাকিস্তানকে ১৪-০ গোলে পরাজিত করল বাংলাদেশ

 

সাফ অনূর্ধ্ব- ১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে পাকিস্তানকে ১৪-০ গোলে পরাজিত করে শুভ সূচনা করেছে বাংলাদেশের কিশোরীরা। বৃহস্পতিবার (৯ আগস্ট) ভুটানের রাজধানী থিম্পুর চাংলিমিথান স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল দল।

প্রথমার্ধে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা ৬ গোলে এগিয়ে ছিল। দ্বিতীয়ার্ধেও সেই ধারা অব্যাহত রেখে শেষ পর্যন্ত ১৪-০ গোলের জয় তুলে নেয় মারিয়া মান্দারা। বাংলাদেশের পক্ষে শামসুন্নাহার একাই ৫ গোল করেছে।


এদিন খেলার শুরু থেকেই আধিপত্য বিস্তার করে বাংলাদেশ দল। বাংলাদেশের নারীদের সামনে পাত্তাই পায়নি পাকিস্তান নারী দল। খেলার প্রথমার্ধে ৬-০ গোলে এগিয়ে ছিল বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। দ্বিতীয়ার্ধের ৬০ মিনিটের মধ্যেই যে ১২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। পাকিস্তান আরও গোল কারার সুযোগ পেয়েছিল নারীরা। কিন্তু তাড়াহুড়ায় করতে গিয়ে অনেক সুযোগ নষ্ট করে বাংলাদেশ দল।


মেয়েদের সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। ফের দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট অক্ষুণ্ণ রাখার লক্ষ্য নিয়ে ভুটান গেছেন মারিয়া মান্ডারা।


মাত্র আট মাসের ব্যবধানে একই টুর্নামেন্টে দ্বিতীয়বার খেলতে নামছে মারিয়া, আঁখি, মনিকারা।

 

এই ম্যাচ জিতে ‘বি’ গ্রুপ থেকে সেমিফাইনালের পথে অনেকটাই এগিয়ে গেল বাংলাদেশ। কারণ, ৬ দলের আসরে গ্রুপপর্বে আগামী ১৩ আগস্ট বাংলাদেশ দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচ খেলবে নেপালের বিরুদ্ধে।


‘এ’ গ্রুপে রয়েছে ভারত, ভুটান ও শ্রীলঙ্কা। প্রথম ম্যাচে ভারত শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১২-০ গোলের জয় পেয়েছে। গ্রুপ পর্বের খেলা শেষে সেরা চার দল খেলবে সেমি-ফাইনালে। ১৬ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে দুটি সেমি ফাইনাল ম্যাচ। আসরের ফাইনাল ১৮ আগস্ট।


প্রসঙ্গত, গত ডিসেম্বরে ঢাকার কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ প্রমীলা ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। ফাইনালে বাংলাদেশের কিশোরীরা হারিয়েছিল ভারতকে।


বাংলাদেশ ও পাকিস্তান সিনিয়র পর্যায়ে একাধিকবার মুখোমুখি হলেও কিশোরীদের দেখা এবারই প্রথম। ফেভারিট হিসেবে পাকিস্তানকে ১৪ গোলে হারিয়েই শিরোপা ধরে রাখার মিশন শুরু মারিয়া মান্ডাদের।

 


Top