শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সক্রিয় হতে বিএনপি নেতা আমির খসরুর ফোনালাপ ভাইরাল | daily-sun.com

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সক্রিয় হতে বিএনপি নেতা আমির খসরুর ফোনালাপ ভাইরাল

ডেইলি সান অনলাইন     ৪ আগস্ট, ২০১৮ ১৮:১০ টাprinter

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সক্রিয় হতে বিএনপি নেতা আমির খসরুর ফোনালাপ ভাইরাল

 

নিরাপদ সড়ক ও শিক্ষার্থীবান্ধব পরিবহন ব্যবস্থার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে বিএনপির সংশ্লিষ্টতার চেষ্টা নিয়ে একটি অডিও ফোনালাপ বিতর্কের জন্ম দিয়েছে। দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীর জনৈক নওমি নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে কথোপকথনের ওই অডিও ক্লিপটি আন্দোলনের সপ্তম দিন শনিবার (৪ আগস্ট) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়।

ওই অডিওতে নওমিকে কুমিল্লা থেকে ঢাকায় এসে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সক্রিয় হতে অনুরোধ করেন আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।


অডিও’র কথোপকথন:


আমির খসরু: হ্যালো


নওমি: হ্যালো, আংকেল, নওমি বলছিলাম


আমির খসরু: হ্যাঁ, নওমি ভালো আছো?


নওমি: আপনি ভালো আছেন?


আমির খসরু: হ্যাঁ, ভালো আছি। তোমরা কি একটু ইনভলভ টিনভলভ হচ্ছো এগুলোতে নাকি?


নওমি: জ্বি, জ্বি। আংকেল, আমি তো এই যে কুমিল্লায় আসলাম।


আমির খসরু: কুমিল্লায় না, নামায় দাও না। তোমাদের মানুষজন সব নামায় দেও না।


নওমি: হ্যাঁ.. হ্যাঁ.. হ্যাঁ... হাইওয়েতে নামছিল।


আমির খসরু: মানুষজন নামায় দাও, হাইওয়েতে-টাইওয়েতে অসুবিধা নাই। ঢাকায় মানুষজন নামায় দাও ভালো করে।

বুজছো?  তোমাদের তো আর চেনে না।


নওমি: না... না... না...।


আমির খসরু: তোমাদের বন্ধুবান্ধব নিয়ে তোমরা সব নেমে পড়ো না ঢাকায়...।


নওমি: জ্বি...জ্বি..জ্বি..., কনটাক্ট করতেছি সবার সঙ্গে।


আমির খসরু: কন্টাক্ট করো না। কখন আর কন্টাক্ট করবা? এখনই তো টাইম। আর কবে? এখন নামতে না পারলে তো আবার ডাউন করে যাবে। তুমরা নাইমা যাও না একটু বন্ধুবান্ধব নিয়ে...।


নওমি: হ্যাঁ..হ্যাঁ..হাইওয়েতে নামছিল তো, ঢাকা-চিটাগাংয়ে। এখানে এসপি সাহেব ঝাড়ি দিছে সবাইকে। সবাইকে উঠায়ে দিছে...।


আমির খসরু: হাইওয়ে টাইওয়ে অসুবিধা নাই। ঢাকায় নামায় দাও। ঢাকা হলে সারা দেশে এমনেই হবে। তোমরা ঢাকায় এসে...এখানে তো কুমিল্লা দরকার নাই আমার। তোমরা ঢাকায় এসে তোমাদের বন্ধুবান্ধব নিয়ে ২০০-৫০০ জন ওদের সাথে জয়েন করে যাও।


নওমি: জ্বি আংকেল। এমনে সবাই সংহতি যানাচ্ছে।


আমির খসরু: সংহতি দিয়ে কী হবে। তোমরা যারা আছো নাইমা যাও না।


নওমি: আংকেল একটা ছোট্ট বিষয়।


আমির খসরু: ফেসবুক টেসবুকে পোস্টিং-টোস্টিং করো সিরিয়াসলি।


নওমি: হ্যাঁ, এইটা করতেছি। এটাতে অ্যাকটিভ আছে সবাই। আমি আসতেছি।


আমির খসরু: হ্যাঁ করো। কুমিল্লা বসে থেকে লাভ কী! এখানে এসে জয়েন করো।


ভাইরাল হওয়া এই অডিও প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা তো দলীয়ভাবেই তাদের সমর্থন দিয়েছি। কেউ যদি সহযোগিতা করতে চায়, আমরা তো বলেছি যে করো। দল থেকে সমর্থন দিয়েছে। কোটি-কোটি মানুষ সমর্থন দিয়েছে। সহযোগিতা মানে তো ওদের সঙ্গে আন্দোলনে নেমে পড়তে হবে, এমন না। সহযোগিতা সারা দেশের মানুষ করছে, পানি খাওয়াচ্ছে, ভাত খাওয়াচ্ছে, তাদের জন্য টিফিন নিয়ে যাচ্ছে। তো, সারা দেশের মানুষই তো সহযোগিতা করতেছে। ’


এ ব্যাপারে গোয়েন্দা সূত্র জানিয়েছে, তারাও এই অডিও পেয়েছে। এ বিষয়ে কাজ করছে। তারা নিশ্চিত একদিকের কণ্ঠ আমির খসরু মাহমুদের। অন্যদিকের যে ছেলেটি নওমি তার পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে।  


এদিকে, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীর অডিও ফোনালাপ প্রসঙ্গে ডিএমপি কমিশনারকে সংবাদ সম্মেলন শেষে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘এটার অডিও আছে আমাদের কাছে আছে। আন্দোলন নিয়ে ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। অতীতেও এ ধরনের ষড়যন্ত্র কাজে আসেনি। ছাত্রদের উদ্দেশ্য মহৎ। তাদেরকে ভিন্নপথে পরিচালিত করার জন্য ষড়যন্ত্র হচ্ছে। ’

 

প্রসঙ্গত, গত রবিবার (২৯ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে হোটেল রেডিসনের বিপরীতে এমইএস বাস স্ট্যান্ডে জাবালে নূর পরিবহনের দুই বাসের চালকের রেষারেষির ফলে একটি বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত ও অন্তত ১২ শিক্ষার্থী আহত হন। নিহতদের একজন ওই কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম (১৬), অন্যজন একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মিম (১৫)।


ওই দুর্ঘটনার দিন থেকে সাত দিন ধরে দোষী পরিবহনকর্মীদের বিচার, নিরাপদ সড়ক, শিক্ষার্থী বান্ধব পরিবহন ব্যবস্থা ও নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের পদত্যাগসহ ৯ দফা দাবি জানাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। পাশাপাশি তারা সড়কে অবস্থান নিয়ে গাড়ি ও গাড়ির চালকের লাইসেন্স পরীক্ষা করেন। এর মধ্যে বেশ কিছু যানবাহনের ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনাও ঘটেছে।


এদিকে গেলো বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী নিহত দুই শিক্ষার্থীর পরিবারের সদস্যদের নিজ কার্যালয়ে নিয়ে এসে সান্ত্বনা ও সমবেদনা জানান। এসময় নিহত দুই শিক্ষার্থীর প্রত্যেক পরিবারকে ২০ লাখ টাকা করে মোট ৪০ লাখ টাকার পারিবারিক সঞ্চয়পত্র দেন।


এদিকে শুক্রবার শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের ৬ষ্ঠ দিন থেকে এসে ‘নিরাপত্তাহীনতার’ অজুহাতে রাজধানীর সব রুটের যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ রেখেছেন পরিবহন মালিকরা। যা আজও অব্যাহত রয়েছে।


এদিকে শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলনে ‘ছাত্রদল ও ছাত্র শিবিরের অনুপ্রবেশ ঘটছে-’ বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এমন মন্তব্যের পর শুক্রবার শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, তোমাদের (শিক্ষার্থীদের) উসকানি দিতে একটি অপশক্তি চেষ্টা করছে। তাদের উসকানিতে সাড়া দিও না। শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবি মেনে নেয়া হবে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

 

 

 

আরও পড়ুন:


বুলবুলের নির্বাচনী পথসভায় ককটেল হামলা: বিএনপি নেতাদের ফোনালাপ ফাঁস (অডিও)


নির্বাচনে নাশকতার ষড়যন্ত্র: বিএনপি নেতা মিজানসহ ৪ জন রিমান্ডে


নির্বাচনে নাশকতার ষড়যন্ত্রের অডিও ক্লিপ প্রকাশ, বিএনপি নেতা মেজর মিজান গ্রেফতার

 


Top