জাতীয় মৎস্য পুরস্কার স্বর্ণ পদক পেল বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড | daily-sun.com

মৎস্য সম্পদ রক্ষায় অসামান্য কাজের স্বীকৃতি

জাতীয় মৎস্য পুরস্কার স্বর্ণ পদক পেল বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড

ডেইলি সান অনলাইন     ৩০ জুলাই, ২০১৮ ২২:১৬ টাprinter

জাতীয়  মৎস্য পুরস্কার স্বর্ণ পদক পেল বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড



মৎস্য সম্পদ উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনের স্বীকৃতি স্বরুপ জাতীয় মৎস্য পুরস্কার ২০১৮ এর স্বর্ণপদক গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড।   ৩০ জুলাই অপরাহ্নে জাতীয় যাদুঘরে জাতীয় মৎস্য পুরস্কার ২০১৮ প্রদান অনুষ্ঠানে কোস্ট গার্ড মহাপরিচালক রিয়ার এডমিরাল আওরঙ্গজেব চৌধুরীর হাতে এই পুরস্কার তুলে দেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী, জনাব নারায়ন চন্দ্র চন্দ এমপি, আরো উপস্থিত ছিলেন শেখ আফিল উদ্দিন আহমেদ, এমপি, অতিরিক্ত সচিব অরুণ কুমার মালাকার, মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোঃ গোলজার হোসেন, উপপরিচালক (মৎস্যচাষ) ড. মোঃ জিল্লুর রহমান সহ আরো অনেকে।

পদক প্রাপ্তির প্রসঙ্গে কোস্ট গার্ড মহাপরিচালক বলেন, “বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান সোনার বাংলা গড়ার জন্য আজীবন সংগ্রাম করেছেন এবং এশিয়া মহাদেশে সর্বপ্রথম মেরিটাইম জোনের কথা চিন্তা করেছিলেন ।

 

এরই ধারাবাহিকতায় তারই সুযোগ্য কন্যা বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৪ সালে জাতীয় সংসদে কোস্ট গার্ড বিল পাস করেন এবং তার এই বিলের মাধ্যমে কোস্ট গার্ড গঠন করা হয়। প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও দেশের জাতীয় সম্পদ ইলিশ মাছের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে জাটকা নিধন প্রতিরোধ অভিযান ২০১৮ এ বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড বাহিনী প্রত্যক্ষভাবে অংশগ্রহণ করে। গত ১০ জানুয়ারি ২০১৮ হতে ৩০ জুন ২০১৮ পর্যন্ত কোস্ট গার্ড বাহিনী নির্ধারিত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে।

 

বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড বাহিনীর ৪টি জোন যথাঃ পূর্ব, দক্ষিণ, পশ্চিম ও ঢাকা জোনের অন্তর্ভূক্ত সর্বমোট ৮২টি স্টেশান, আউটপোস্ট ও অস্থায়ী কাম্প হতে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড বাহিনীর ১৬টি জাহাজ ও ১০৩টি বিভিন্ন ধরণের হাইস্পিড বোটও বর্ণিত অভিযানে অংশগ্রহণ করে। এছাড়া স্টেশান ও আউটপোস্ট সমূহ নিজস্ব দায়িত্বাধীন এলাকায় স্থানীয়ভাবে বোট ভাড়া করে অভিযান পরিচালনা করে। বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড বাহিনী গত ০১ জানুয়ারি ২০১৮ হতে ৩০ জুলাই ২০১৮ পর্যন্ত মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণের জন্য ১৭,৪৮৪টি অভিযান পরিচালনা করে ১৬,২০,৪৩,৯৫০ বর্গমিটার অবৈধ কারেন্ট জাল, ৪,৭৭,৪৩,২০০ বর্গমিটার অন্যান্য জাল, ৪,৫২২টি বেহুন্দি ও মশারী জাল, ১,২৯,২০১ কেজি জাটকা মাছ, ১৩,৯১,৪৪,৫৫৫ পিস চিংড়ি ও ফাইসা পোণা এবং অবৈধ মৎস্য আহরণে নিয়োজিত ২৭১টি বোট আটক করে। এ সকল আটককৃত অবৈধ মালামালের সামগ্রিক অর্থ মূল্য ৯৩৩,৩৮,৭৪,১৫০/০০ টাকা।

বিগত ২০১৭ সালে এ ক্ষেত্রে কোস্ট গার্ড বাহিনীর অর্জন ছিল ১৯৭৮,৩৪,৮৯,৭৫৪/০০ টাকা। অধিকহারে অভিযান পরিচালনার ফলে চলতি বছরে অবৈধ মৎস্য আহরণের প্রবণতা বহুলাংশে কমে এসেছে বলে প্রতীয়মান ”। দেশের মৎস্য সম্পদের উন্নয়নে এ ধরনের কার্যক্রম ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।  

 


Top