১৫ বছর বয়সী কিশোরের পিএইচডি ডিগ্রি! | daily-sun.com

১৫ বছর বয়সী কিশোরের পিএইচডি ডিগ্রি!

ডেইলি সান অনলাইন     ২৯ জুলাই, ২০১৮ ২০:৫৩ টাprinter

১৫ বছর বয়সী কিশোরের পিএইচডি ডিগ্রি!

ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন কিশোর তানিষ্ক আব্রাহামের বয়স মাত্র ১৫ বছর। অথচ এ বয়সেই তিনি পিএইচডি-র দোরগোড়ায়।

অবিশ্বাস্য হলেও ঘটনা সত্যি। স্কুল ও কলেজের পড়াশোনার পাট চুকিয়ে এখন ডক্টরেটের প্রস্তুতি নিচ্ছে এই বিস্ময় কিশোর।

 

এই বিস্ময় বালক ইতোমধ্যে ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বায়োকেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছেন। এবার তিনি পিএইচডি শুরু করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

 

এই বিস্ময় বালকের মা তাজি আব্রাহাম একজন ডক্টরেট পশু চিকিৎসক। বাবা বিজৌ আব্রাহাম একজন তথ্যপ্রযুক্তিবিদ। আদতে ভারতের কেরালার বাসিন্দা আব্রাহাম পরিবার দীর্ঘদিন ধরেই মার্কিন মুলুকে বসবাস করছে। ছেলে যে এমন প্রতিভার আধার মা তাজি তা টের পেয়ে যান বছর দশেক আগেই। নার্সারিতে পড়ার সময়ই উঁচু ক্লাসের অঙ্ক মুহূর্তেই সমাধান করে দিত তানিষ্ক।

 

এই দেখে অভিভাবকরা তাকে অনলাইনে কলেজে পড়ার সুযোগ করে দেন। স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত একটি প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে ক্যালকুলাসের কঠিন অঙ্কের সহজেই সমাধান করে ফেলে সে। এরপর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। সাতবছর বয়সেই তিনটি কলেজে ডিগ্রি কোর্সে ভর্তি হন। কলেজের পড়াশোনা শেষ হলে পরের গন্তব্য ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়। সেখানেও জয়জয়কার। বায়োকেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়াশোনার পাট চুকিয়ে এবার পিএইচডি করবে তানিষ্ক।

 

তানিষ্ক এখন ক্যানসারের মত মারণ রোগকে কাবু করতে গবেষণা করতে চান। শুধু ক্যানসার সারিয়ে রোগীকে সুস্থ করে তোলাই নয়, একই সঙ্গে ক্যানসার প্রতিরোধের উপায় মানুষের হাতের মুঠোয় আসুক এমনটাই ইচ্ছে তানিষ্কের। ছেলের এহেন ইচ্ছেতে কোনওরকম বাধা পড়ুক চান না বাবা-মা।

 

সর্বদা উৎসাহ দেওয়ার পাশপাশি কোনওরকম সমস্যা আসলেও তা মোকাবিলা করতে তৈরি বিস্ময় বালকের পরিজন। ইতোমধ্যেই এক অভিনব যন্ত্রের নকশা তৈরি করেছে সে। সেই যন্ত্র অগ্নিদগ্ধ রোগীর শরীরের সংস্পর্শে না এসেই হৃদযন্ত্রের গতিবিধি মাপতে পারে। ইতিমধ্যেই তানিষ্কের উদ্ভাবনী ক্ষমতা সাড়া ফেলেছে বিজ্ঞানী মহলে।


Top