ভয়াবহ এডিএইচডির একটি কারণ ফেসবুক আসক্তি | daily-sun.com

ভয়াবহ এডিএইচডির একটি কারণ ফেসবুক আসক্তি

ডেইলি সান অনলাইন     ১৯ জুলাই, ২০১৮ ১৮:৫৩ টাprinter

 ভয়াবহ এডিএইচডির একটি কারণ ফেসবুক আসক্তি

যেসব টিনএজার দীর্ঘসময় ধরে ডিজিটাল মিডিয়ায় সময় অতিবাহিত করে তাদের মনোযোগে মারাত্মক ঘাটতি দেখা দেয়। নতুন একটি সমীক্ষা প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

সমীক্ষা প্রতিবেদনটি আজ আমেরিকান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।  

 

মনোযোগে ঘাটতির এই অবস্থাকে চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায় এটেনশন ডেফিসিট/হাইপারএক্টিভিটি ডিসঅর্ডার(এডিএইচডি) নামে অভিহিত করা হয়। তবে কিছু সময় যদি তারা ডিজিটাল মিডিয়ায় অতিবাহিত করে সেক্ষেত্রে অভিভাবকদের খুব একটা বিচলিত হওয়া কারণ নেই। কিন্তু এক্ষেত্রে ডিজিটাল মিডিয়ায় অতিরিক্ত সময় অতিবাহিত করা আসক্তি পর্যায়ে পড়ে, যা বিপদ ডেকে আনতে পারে। ওই সমীক্ষার গবেষকদের এমনটাই অভিমত।

 

ওই গবেষণায় প্রায় ২ হাজার ৬০০ স্কুলছাত্র টিনএজার অংশ নেয়। এতে তাদের নানা ধরণের ডিজিটাল মিডিয়ায় অতিরিক্ত সময় ব্যয়ের সঙ্গে এডিএইচডি-র সংশ্লিষ্টতা পর্যবেক্ষণ করা হয়। দুই বছর ধরে এই পর্যবেক্ষণ চালানো হয়।

  

সমীক্ষা প্রতিবেদন বলছে, গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব টিনএজার নানা ধরণের ডিজিটাল মিডিয়া দিনে বহুবার ব্যবহার করে তাদের অন্যদের তুলনায়(যারা কম ব্যবহার করে)এডিএইচডি-তে আক্রান্ত হওয়ার মাত্রা দ্বিগুণ বেড়ে গেছে।

 

 

গবেষকরা বলছেন, ডিজিটাল মিডিয়ায় অতিরিক্ত আসক্তি টিনএজারদের মনোসংযোগে মারাত্মক ঘাটতি তৈরী করে। এই সমীক্ষায় ডিজিটাল মিডিয়ায় আসক্তির বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বিশেষত ফেসবুক-কে আমলে নেওয়া হয়েছে।  

 

সূত্র: দ্য ভার্জ

 


Top