হোয়াটসঅ্যাপে ভিডিও চ্যাট করতে করতেই আত্মহত্যা! | daily-sun.com

হোয়াটসঅ্যাপে ভিডিও চ্যাট করতে করতেই আত্মহত্যা!

ডেইলি সান অনলাইন     ১২ জুলাই, ২০১৮ ১৮:৩৬ টাprinter

 হোয়াটসঅ্যাপে ভিডিও চ্যাট করতে করতেই আত্মহত্যা!

 সোশ্যাল সাইটে প্রেমিকার সঙ্গে লাইভ চ্যাট করতে করতে আত্মঘাতী হল বছর সতেরোর এক কিশোর। মৃতের নাম সুরজ রায়, কলকাতার সোনারপুরে বাড়ি।

 

 

বারুইপুর থানার সালেপুরের ঘটনা। প্রাথমিক অনুমান, প্রেমিকার সঙ্গে মনোমালিন্যের জেরেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী হয় পদ্মপুকুর হাইস্কুলের একাদশ শ্রেণির ছাত্র সুরজ।

 

জানা যাচ্ছে, বুধবার রাত বারোটা নাগাদ তার প্রেমিকা, সোনারপুর কামারাবাদ গার্লস হাইস্কুলের অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে ফোনে কথা বলছিল সুরজ। মাত্র কয়েক মাস আগেই দু’জনের মধ্যে ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ফোনে কথা বলার সময় উত্তেজিত হয়ে উঠেছিল সুরজ, জানাচ্ছেন তার মা টুম্পা রায়।

 

এর পর ঘুমোতে চলে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু ঘণ্টাখানেক বাদে সুরজের বন্ধুরা বাড়িতে এসে ডাকাডাকি করে। দরজা খুললে তারা বলে, সুরজ ঘরে আত্মঘাতী হয়েছে।

 

তড়িঘড়ি দরজা ভেঙে সুরজের বন্ধুরা তাকে উদ্ধার করে বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

সুরজের বন্ধুদের দাবি, ফোনে কথা বলার সময়ে নিশা মণ্ডলের সঙ্গে বচসা হয়, তার জেরে হোয়াটসঅ্যাপে ভিডিও কল করতে করতেই গলায় ফাঁস লাগিয়ে সুইসাইড করে সুরজ। বন্ধুদের বক্তব্য, এই ঘটনার কথা নিশার দিদি তাদের ফোন করে জানালে তারা সুরজের বাড়ি আসে। ঘটনার পর থেকেই ফোন বন্ধ নিশা ও তার পরিবারের।

 

ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। সুরজের প্রেমিকার বিরুদ্ধে বারুইপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে তার পরিবার।

 


Top