ইভটিজিংয়ের মুখে মহিলা সাংবাদিক! | daily-sun.com

ইভটিজিংয়ের মুখে মহিলা সাংবাদিক!

ডেইলি সান অনলাইন     ১১ জুলাই, ২০১৮ ১১:২২ টাprinter

ইভটিজিংয়ের মুখে মহিলা সাংবাদিক!

মহিলা সাংবাদিককে ইভটিজিংয়ের অভিযোগে উত্তাল ভারতের নয়াদিল্লি। স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজপাটের জায়গায় এই ঘটনা ঘটায় রীতিমত সমালোচনা শুরু হয়েছে। জাতীয় সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে যুক্ত মহিলা সাংবাদিক নিকিতা জৈনকে ইভটিজিং করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

 

অফিস থেকে বেরিয়ে বাড়ি আসার সময় দু’‌জন যুবক মোটরবাইকে করে মহিলা সাংবাদিকের গাড়ির পিছু নেয়। সেখান থেকে নানা কটূক্তি করা হচ্ছিল বলেও অভিযোগ। এমনকী তাঁর গাড়িতে ধাক্কা মেরে ক্ষতি পর্যন্ত করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতেই তা ভাইরাল হয়ে পড়ে।

 

তারপর তিনি দিল্লি পুলিশকে এই ইভটিজারদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতেও অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে একজন সাংবাদিকেরই যদি এই নিরাপত্তার হাল হয়, তাহলে দিল্লির সাধারণ নাগরিকদের নিরাপত্তা কোথায়?‌ যদিও এই ঘটনা নিয়ে রাজনৈতিক ব্যক্তিরা কেউ মুখ খোলেননি।

 

মহিলা সাংবাদিক নিকিতা জৈন টুইটে লিখেছেন, ‘‌নয়ডার ফিল্ম সিটির অফিস থেকে বেরনোর পর বুঝতে পারলাম আমার গাড়িকে দু’‌জন যুবক মোটরবাইকে করে পিছু নিয়েছে। তাদেরকে এড়িয়ে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিলাম।

কিন্তু সফল হতে পারিনি। টানা ২০ মিনিট ধরে আমার গাড়ির পিছু নেওয়া হয়েছিল এবং নানা কটূক্তি করা হয়েছিল। তারা আমার রাস্তা আটকানোর চেষ্টা করছিল। কিন্তু আমি যখন অক্ষরধাম এলাকার সিগন্যালে দাঁড়িয়ে তখন তাদের প্রতিহত করার চেষ্টা করেছিলাম। তাতে আরও খারাপ ভাষায় আক্রমণ করা হয় আমাকে।

 

তারপর সিগন্যাল খুললে তাদের পাত্তা না দিয়ে এগোতে গেলে আমার গাড়ির আয়না ভেঙে দিয়ে তারা পালিয়ে যায়। আমি মোটরবাইকের নম্বর লিখে নিয়ে দিল্লি পুলিসের ওয়েবসাইটে অভিযোগ দায়ের করি। ’‌ যদিও দিল্লি পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি বলে খবর। ‌‌


Top