ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদার রিভিউ শুনানি ৯ জুলাই | daily-sun.com

ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদার রিভিউ শুনানি ৯ জুলাই

ডেইলি সান অনলাইন     ৬ জুলাই, ২০১৮ ১০:৫২ টাprinter

ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদার রিভিউ শুনানি ৯ জুলাই

 

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজার রায়ের বিরুদ্ধে আপিল নিষ্পত্তি নিয়ে সর্বোচ্চ আদালতের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা চেয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করা আবেদন ৯ জুলাই শুনানির জন্য পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।


এর আগে গত ১৬ মে আপিল বিভাগ এক আদেশে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে এই আপিল নিষ্পত্তি করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। ওই আদেশ পুনর্বিবেচনা চেয়ে খালেদা জিয়ার আবেদন বৃহস্পতিবার চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর আদালতে ওঠে। এর পরিপ্রেক্ষিতে আদালত শুনানির ওই দিন ধার্য করেছেন।


ওই মামলায় খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধি চেয়ে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে বুধবার আরজি জানানো হয়েছে, যার ওপর রবিবার শুনানি হতে পারে।


খালেদা জিয়ার অন্যতম আইনজীবী কায়সার কামাল বুধবার বলেন, হাইকোর্ট খালেদা জিয়াকে চার মাসের জামিন দিয়েছিলেন। এ হিসেবে ১২ জুলাই এই মেয়াদ শেষ হতে যাচ্ছে। তাই জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধি চেয়ে বুধবার আবেদন করা হয়, বিষয়টি বৃহস্পতিবার কার্যতালিকায় ছিল। ক্রম অনুসারে বিষয়টি এলে আদালতে বলেন, যেহেতু এ মামলার আপিল শুনানির জন্য রবিবার (৮ জুলাই) দিন নির্ধারিত আছে, এই আবেদনের বিষয়টি রবিবার বিবেচনা করা হবে।


জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ডাদেশ দিয়ে রায় দেন বিচারিক আদালত। এরপর থেকে নাজিমুদ্দিন রোডের পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন তিনি।

এই সাজার রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে হাইকোর্ট থেকে চার মাসের জামিন পান তিনি। এই জামিন বহাল রেখে ১৬ মে রায় দেন আপিল বিভাগ। একই সঙ্গে খালেদার করা আপিল হাইকোর্টে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে নির্দেশ দেওয়া হয়। অন্যদিকে দুর্নীতি দমন কমিশনের এক আবেদনের শুনানি নিয়ে ২৮ মার্চ হাইকোর্ট খালেদা জিয়ার সাজা বৃদ্ধি প্রশ্নে রুল দেন। ওই মামলায় ১০ বছরের সাজার বিরুদ্ধে কারাগারে থাকা কাজী সালিমুল হক ওরফে কাজী কামাল ও শরফুদ্দিন আহমেদ পৃথক আপিল করেন। এসবের ওপর ৩ জুলাই শুনানির দিন ধার্য ছিল। আপিল বিভাগের আদেশ পুনর্বিবেচনা চেয়ে আবেদন করা হয়েছে বলে হাইকোর্ট আপিল শুনানি মুলতবি চেয়ে ধার্য তারিখে আবেদন করেন খালেদার আইনজীবীরা। এর পরিপ্রেক্ষিতে ৩ জুলাই হাইকোর্ট ওই তিন আপিল ও দুদকের আবেদন শুনানির জন্য ৮ জুলাই দিন ধার্য করেন।


এর আগে আপিল নিষ্পত্তি করতে ১৬ মে আপিল বিভাগের দেওয়া আদেশ পুনর্বিবেচনা চেয়ে সংশ্লিষ্ট শাখায় ২৫ জুন আবেদন করেন খালেদা জিয়া, যা বুধবার চেম্বার বিচারপতির আদালতে ওঠে। আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী, জয়নুল আবেদীন ও কায়সার কামাল। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। আর দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।


আইনজীবী খুরশীদ আলম খান বলেন, চেম্বার বিচারপতি পুনর্বিবেচনার আবেদন ৯ জুলাই আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়েছেন।

 


Top