গুহায় আটকে থাকা অবস্থায়ই কিশোরের জন্মদিন পালন! | daily-sun.com

গুহায় আটকে থাকা অবস্থায়ই কিশোরের জন্মদিন পালন!

ডেইলি সান অনলাইন     ৪ জুলাই, ২০১৮ ১৮:২৭ টাprinter

গুহায় আটকে থাকা অবস্থায়ই কিশোরের জন্মদিন পালন!

থাইল্যান্ডের গুহায় আটকে পড়া কিশোর ফুটবলার তার ১১ সতীর্থ ও কোচের সাথে ১৪তম জন্মদিন পালন করেছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ পত্রিকা ইভিনিং স্ট্যান্ডার্ড।

 

থাই নেভি সিল বুধবার রাতে গুহায় আটকে পড়া বালকদের নতুন একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে।

এতে দেখা যায়, ছেলেরা গা গরম রাখার জন্য ফয়েলের কম্বল জড়িয়ে আছে। তারা একজন একজন করে ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে কথা বলে। তাদের একজন জানায়, ‘আমি সুস্থ আছি। ’। আরেক জন তাদের উদ্ধারের প্রতিক্ষায় থাকা সবাইকে ধন্যবাদ জানায়।

 

 

নিখোঁজ হওয়ার নয় দিন পর সোমবার রাতে গুহামুখ থেকে প্রায় ৪ কিলোমিটার ভিতরে তাদের সন্ধান পায় ডুবুরিরা। উদ্ধারকর্মীরা তাদের সেখান থেকে বের করার চেষ্টা চালাচ্ছেন, কিন্তু কিভাবে তাদের বের করা যেতে পারে সে বিষয়ে কেউ নিশ্চিত নয়।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গুহা থেকে বের হতে তাদেরকে আরও চার মাস অপেক্ষা করতে হতে পারে। আরেকটি উপায় হতে পারে, আটকে পড়া ছেলেদের ডাইভিং অর্থাৎ ডুবুরিদের প্রশিক্ষণ দিয়ে তাদেরকে সেখান থেকে বের করা আনা।

 

 

 

এর মধ্যেই, গুহায় আটক অবস্থাতে সোমবার নিজের চতুর্দশ জন্মদিন পালন করেছে দুয়াংপেচ ফ্রমথেপ ডম। ডমের মা ফেসবুকে তার আগের জন্মদিনের ছবি পোস্ট করে লেখেন, ‘শুভ জন্মদিন, ডম। তোমার জন্য অনেক শুভ কামনা। আর অল্প পরেই প্রায় বের হতে পারবে। আমি খুবই খুশি। ’

 

উদ্ধারকাজে যোগ দিতে থাইল্যান্ডে উড়ে যাওয়া দুই ব্রিটিশ ডুবুরি সোমবার রাতে আটকা পড়া বালক ও তাদের কোচকে খুঁজে পান। সন্ধান পাওয়ার পর থাই নেভি সিল স্পেশাল ফোর্স দু’টি ভিডিও প্রকাশ করেছে।

 

মঙ্গলবার থাই কর্তৃপক্ষ আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেছে, ব্যাপক বৃষ্টিতে গুহার ভিতরে বন্যার পানি আরও বেড়ে অবস্থার অবনতি হতে পারে। এমন হলে কর্তৃপক্ষ তাদেরকে পানির নিচের একটি সরু পথ দিয়ে সাঁতরে বের করে আনতে পারে।  ‘গুহা থেকে বন্যার পানি পাম্প করে বের করার কাজ চললেও, অত বড় গুহার পুরোটা সেঁচে ফেলা সম্ভব নয়’, বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আনুপং পাওজিন্দা।

 

 

উদ্ধারকর্মীরা কর্মপরিকল্পনা ঠিক করার সময়, নয় দিনের মধ্যে প্রথমবারের মতো ছেলেগুলোকে শক্ত খাবার দেয়া হয়েছে। ফুটবল দলটির গুহায় নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার খবর সারা বিশ্বের মানুষকে আন্দোলিত করে। থাইল্যান্ডের অনেক মানুষও উদ্ধার অভিযানে যোগ দেন।

 

 

১৩ থেকে ১৬ বছর বয়সী ফুটবলারদের দল এবং তাদের ২৫ বছর বয়সী কোচ ২৩ জুন ঘুরতে গিয়ে গুহার মধ্যে প্রবেশ করে। এরপর হঠাৎ প্রচণ্ড বৃষ্টি শুরু হলে গুহা থেকে বের হওয়ার পথ বন্ধ হয়ে যায়।

 


Top