বেতনসহ পিতৃত্বকালীন ছুটি দেওয়া উচিত : ইউনিসেফ | daily-sun.com

বেতনসহ পিতৃত্বকালীন ছুটি দেওয়া উচিত : ইউনিসেফ

ডেইলি সান অনলাইন     ১৬ জুন, ২০১৮ ১৮:১৩ টাprinter

বেতনসহ পিতৃত্বকালীন ছুটি দেওয়া উচিত : ইউনিসেফ

বাবাদের বেতনসহ পিতৃত্বকালীন ছুটি দেওয়া উচিত বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের সংস্থা ইউনিসেফ। বিশ্বে এক বছরের কম বয়সীদের প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ অর্থাৎ প্রায় ৯ কোটি শিশু এমন দেশে বসবাস করে, যেখানে তাদের বাবারা আইন অনুযায়ী একদিনের জন্যও বেতনসহ পিতৃত্বকালীন ছুটি পান না বলেও জানিয়েছে সংস্থাটি।

 

ইউনিসেফের নতুন এক গবেষণায় পিতৃত্বকালীন ছুটির এ  তথ্য উঠে এসেছে। শুক্রবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে খবরটি দিয়েছে ইউনিসেফ।
 
বিশ্বের ৮০টিরও বেশি দেশে ইউনিসেফ সম্প্রতি ‘সুপার ড্যাডস’ নামে একটি প্রচারাভিযান শুরু করেছে। এর লক্ষ্য শিশুদের বিকাশে তাদের বাবাদের সক্রিয় ভূমিকা পালনে বাধা দেয় এমন সব প্রতিবন্ধকতা দূর করা। শিশুদের মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যকর বিকাশে ভালোবাসা, খেলাধুলা, সুরক্ষা ও ভালো পুষ্টির ওপর গুরুত্বারোপ করছে এই প্রচারণা। সেখানেই বাবাদের বেতনসহ পিতৃত্বকালীন ছুটি দেওয়া উচিত বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। এছাড়া পরিবারবান্ধব নীতিমালার পেছনে বিনিয়োগের আহ্বানও জানিয়েছে ইউনিসেফ।

 

শিশুর জন্য অতি প্রয়োজনীয় এসব বিষয়ের মধ্যে রয়েছে বেতনসহ পিতৃত্বকালীন ও মাতৃত্বকালীন ছুটি, বিনামূল্যে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা এবং বেতনসহ স্তন্যদানের বিরতি। ভারত ও নাইজেরিয়াসহ ৯২ দেশে মোট জনসংখ্যার মধ্যে নবজাতকের সংখ্যা তুলনামূলকভাবে বেশি।

এসব দেশে এমন কোনো জাতীয় নীতিমালা নেই যার মাধ্যমে নিশ্চিত করা যায়, নতুন বাবারা তাদের নবজাতক সন্তানদের সঙ্গে বেতনসহ পর্যাপ্ত ছুটি কাটাতে পারে।

 

ইউনিসেফ জানিয়েছে, শুধু মা নয় বাবাদের সঙ্গে ইতিবাচকভাবে শিশুদের সম্পর্ক গড়ে উঠলে দীর্ঘমেয়াদে তাদের মানসিক স্বাস্থ্য, আত্মসম্মান ও জীবন-সন্তুষ্টি অনেক ভালো হয়।

শুধু অনুন্নত দেশগুলোই নয়, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের আটটি দেশে, যেখানে নবজাতকের সংখ্যা প্রায় ৪০ লাখ, সেসব দেশে বেতনসহ কোনও মাতৃত্ব বা পিতৃত্বকালীন ছুটির বিধান নেই বলে জানিয়েছে ইউনিসেফ।

 


Top