আজ স্পেনের বিপক্ষে মাঠে নামবে পর্তুগাল | daily-sun.com

আজ স্পেনের বিপক্ষে মাঠে নামবে পর্তুগাল

ডেইলি সান অনলাইন     ১৫ জুন, ২০১৮ ১৫:৩৫ টাprinter

আজ স্পেনের বিপক্ষে মাঠে নামবে পর্তুগাল

শুক্রবার রাতে ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে মুখোমুখি হবে পর্তুগাল ও স্পেন। ২০১০ সালে চ্যাম্পিয়ন স্পেন এবারের আসরের অন্যতম ফেভারিট দল।

যদিও কোচ বদলের ঘটনায় কিছুটা টালমাটাল দলটি। অন্যদিকে বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলারের নেতৃত্বে মাঠে নামছে বর্তমান ইউরো চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল। শিরোপা প্রত্যাশীদের তালিকায় নাম নেই পর্তুগিজদের। কিন্তু যে দলে রোনালদো আছেন সেই দলকে সহজ প্রতিপক্ষ ভাবার উপায় নেই। বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

 

বিশ্বকাপে দুই দলের সর্বশেষ দেখা হয়েছিল ২০১০ এর দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে। রাউন্ড ১৬তে। সেবার ১-০ গোলে জিতেছিল স্পেন। এবারের বিশ্বকাপে অবশ্য চিত্রটা ভিন্ন।

সেবার ইউরো চ্যাম্পিয়ন হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা গিয়েছিল স্পেন। এবার ইউরো চ্যাম্পিয়ন হয়ে রাশিয়া গিয়েছে পর্তুগাল। র‌্যাঙ্কিংয়েও এগিয়ে দলটি। পর্তুগালের র‌্যাঙ্কিং ৪। অন্যদিকে স্পেনের র‌্যাঙ্কিং ১০।

 

দুই দলের দ্বৈরথের ইতিহাস বেশ পুরোনো। ১৯২১ সালে প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচে মুখোমুখি হয় স্পেন ও পর্তুগাল। সেই ম্যাচটি ৩-১ গোলে জিতেছিল স্পেন। সেই থেকে মোট ৩৫ বার মুখোমুখি হয়েছে দল দুইটি। যার মধ্যে ১৬ বার জিতেছে স্পেন, আর পর্তুগাল ৬ বার। ড্র হয়েছে ১২ বার।

 

 

২০১০ সালে বিশ্বকাপের শিরোপা জেতে স্পেন। তার আগে ইউরোপের ডার্ক-হর্স হয়েই ছিল দলটি। অন্যতম শক্তিশালী দল হয়েও শিরোপা না জেতার যন্ত্রণা নিয়েই থাকতে হয়েছে তাদের। কিন্তু ২০১০ সালের দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে সোনালি প্রজন্মের খেলোয়াড়ে পূর্ণ দল দেশকে প্রথমবারের মতো শিরোপা এনে দেয়। সেবার প্রায় অপ্রতিরোধ্য ছিল দলটি। দুর্দান্ত পাস, নিখুঁত পরিকল্পনা ও জাদুকরী ফুটবলের প্রদর্শনীতে উজ্জ্বল ছিল স্প্যানিয়ার্ডরা।

 

 

বিশ্বকাপের আগ মুহূর্তে অবশ্য কোচ নিয়ে অভূতপূর্ব পরিস্থিতিতে পড়ে স্পেন। অ্যাসোসিয়েশনকে না জানিয়ে রিয়াল মাদ্রিদের সাথে চুক্তি করায় বরখাস্ত হয়েছেন হুলেন লোপেতাগি। তার যায়গায় সার্জিও রামোসদের নতুন কোচ ফারনান্দো হিয়েরো। তবে সেটা নিয়ে ভাবতে রাজি নয় দলটি। স্পেনের এবারের শক্তি আন্দ্রেস ইনিয়েস্তায় গড়া দলের মধ্যভাগ। গেল মৌসুমেই বার্সেলোনার সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করেন ৩৪ বছর বয়সী এই প্লে-মেকার। দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের একজন তিনি। খেলেছেন ১২৬টি ম্যাচ। আজকের ম্যাচে জয় পেতে হলে রামোসকে ভরসা রাখতে হবে ইনিয়েস্তার ওপরই।

 

অন্যদিকে পর্তুগালের বিশ্বকাপের রেকর্ড খুব একটা ভালো নয়। গেল বিশ্বকাপে (২০১৪ সালের) গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছিল রোনালদো বাহিনী। তবে ৫ বারের ব্যালন’ডি অর জয়ী রোনালদো এবার রাশিয়ায় পা রেখেছেন বিজয়ীর বেশে। ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদকে টানা তৃতীয়বারের মতো জিতিয়েছেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ট্রফি। দেশকে এনে দিয়েছেন ইউরোর শিরোপা। জার্মানি, ফ্রান্স, ও স্পেনের পর চতুর্থ দল হিসেবে পর্তুগালের সামনে থাকছে ইউরো চ্যাম্পিয়ন হিসেবে বিশ্বকাপ জেতার সুযোগ। তার জন্য প্রথম ম্যাচেই কঠিন প্রতিপক্ষ স্পেনকে হারাতে হবে তাদের। ইতিহাস যাই বলুক, ম্যাচের ভাগ্য বদলে দেওয়ার জন্য রোনালদো মুহূর্তের জাদুই যথেষ্ট।


Top