খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে নোংরা রাজনীতি করছে সরকার: রিজভী | daily-sun.com

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে নোংরা রাজনীতি করছে সরকার: রিজভী

ডেইলি সান অনলাইন     ১৪ জুন, ২০১৮ ১৫:১৮ টাprinter

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে নোংরা রাজনীতি করছে সরকার: রিজভী

 

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা সেবা না দেয়ার জন্যই সরকার শর্তারোপ করছে বলে মন্তব্য করেছেন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, কোনো শর্তারোপ নয়, বেগম খালেদা জিয়ার পছন্দ অনুযায়ী ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তির ব্যবস্থা নিন।

তিনি ইউনাইটেড হাসপাতাল ছাড়া কোথাও চিকিৎসা নেবেন না।


বৃহস্পতিবার (১৪ জুন) দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন রুহুল কবির রিজভী।


তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে নোংরা রাজনীতি করছে সরকার। কারাগারের ভগ্নস্তুপের গুমোট পরিবেশে চিকিৎসাহীন দেশনেত্রী ট্র্যানসিয়েন্ট ইশেমিক অ্যাটাকে (টিআইএ) আক্রান্ত হয়ে অজ্ঞান হলেও এখনও তার চিকিৎসার সুরাহা করেনি সরকার।


রিজভী বলেন, জনতার স্মৃতি বাসী হওয়ার কোনো সুযোগ নেই যে, শেখ হাসিনা যখন বন্দী ছিলেন তখন তিনি বেসরকারি স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছিলেন, প্যারোলে মুক্তি নিয়ে বিদেশে চিকিৎসা করিয়েছেন। আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মরহুম আব্দুল জলিল সাহেবও ল্যাব এইডে চিকিৎসা নিয়েছিলেন, বর্তমান স্বাস্থ্যমন্ত্রী মো. নাসিমও কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাৎক্ষণিক তাকে ল্যাব এইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।


মহাসড়কে যানজট নেই-ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, বাস্তবতা হচ্ছে, ঈদে ঘরমুখো মানুষের দুর্ভোগের সীমা নেই। খানাখন্দে ভরপুর রাস্তাঘাটে বৃষ্টির পানি, কাদায় লুটোপুটি খাচ্ছে ঈদে বাড়ি ফেরা মানুষ। ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-উত্তরাঞ্চল, ঢাকা-ময়মনসিংহসহ সকল সড়ক-মহাসড়কে দীর্ঘ যানজটে পড়ে মানুষকে সীমাহীন কষ্ট ভোগ করতে হচ্ছে।

শুধুমাত্র টঙ্গী-জয়দেবপুর পার হতেই লাগছে ৫ থেকে ১০ ঘণ্টা।


প্রসঙ্গত, গত শনিবার (৯ জুন) খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তার ব্যক্তিগত চার চিকিৎসক। সেখান থেকে বেরিয়ে কারা ফটকের সামনে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক এফএম সিদ্দিকী সাংবাদিকদের জানান, খালেদা জিয়া ‘মাইল্ড স্ট্রোক’ করেছিলেন বলে ধারণা তাদের।


এ বিষয়ে সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে কারা মহাপরিদর্শক (আইজি-প্রিজন) সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন বলেন, খালেদা জিয়া ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা করতে চাইলেও কারাবিধি অনুযায়ী তাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে নেয়ার কোনো সুযোগ নেই। খালেদা জিয়া চাইলে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) নেয়া হবে।


তবে মঙ্গলবার তাকে বিএসএমএমইউতে নেয়ার প্রস্তুতি গ্রহণ করা হলেও সেখানে যেতে রাজি হননি খালেদা জিয়া।


সেদিনই খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার তাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে নেয়ার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ে আবেদন করেন। সেই আবেদনে সাড়া না দিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় থেকে খালেদাকে সিএমএইচে নেয়ার প্রস্তাব দেয়। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত তিনি সিএমএইচে চিকিৎসা নিতে রাজি হননি।


উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন বিশেষ আদালত। এরপর পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরোনো কারাগারকে বিশেষ কারাগার ঘোষণা দিয়ে তাকে সেখানেই রাখা হয়েছে। নির্জন এই কারাগারে একমাত্র বন্দি হিসেবে গত ১২৭দিন ধরে কারাভোগ করছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।


ইতোমধ্যে আপিলের পর সর্বোচ্চ আদালত খালেদা জিয়াকে এই মামলায় জামিন দিয়েছেন। তবে আরও বেশ কয়েকটি মামলা চলমান থাকায় এখনই তিনি জামিন পাচ্ছেন না।


দীর্ঘ ৩৬ বছরের রাজনৈতিক জীবনে এর আগে একবার কারাগারে যেতে হয়েছিল বেগম খালেদা জিয়াকে। ২০০৭ সালের ৩ সেপ্টেম্বর সেনা-সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় তাকে গ্রেফতার করা হয়। তখন জাতীয় সংসদ ভবন এলাকার স্পিকারের বাসভবনকে সাবজেল ঘোষণা করে সেখানে রাখা হয়েছিল তাকে। ২০০৮ সালের ১১ সেপ্টেম্বর সুপ্রিম কোর্টের এক আদেশে খালেদা জিয়া মুক্তি পান। এরপর তিনি দুর্নীতি মামলায় দ্বিতীয় বার জেলে যান।

 


Top