যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার রাজধানীর পর ঢাকার অবস্থান: কাদের | daily-sun.com

যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার রাজধানীর পর ঢাকার অবস্থান: কাদের

ডেইলি সান অনলাইন     ৫ জুন, ২০১৮ ১৭:৪৬ টাprinter

যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার রাজধানীর পর ঢাকার অবস্থান: কাদের

 

ঢাকাকে এখন অবাসযোগ্য নগরী হিসেবে উল্লেখ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবাদুল কাদের। তিনি বলেন, নাইজেরিয়ার রাজধানী ও যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার রাজধানীর পর ঢাকার অবস্থান।

এতে আমাদের লজ্জা হয়। কত সূচকে এগিয়ে যাচ্ছি, এখানে পেছনে! এগুলো নিয়ে কেউ কথা বলে না।  


মঙ্গলবার (৫ জুন) জাতীয় যাদুঘরে ‘পরিবেশ সংরক্ষণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে আমাদের করণীয়’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি একথা বলেন। একই সঙ্গে বাংলাদেশ পরিবেশ বিপর্যয়ের ভয়াবহ পর্যায়ে পৌঁছেছে বলেও মন্তব্য করেন সেতুমন্ত্রী।  


আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ উপ কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. বজলুল হকের সভাপতিত্বে এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাবির আর্থ ও এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এএসএম মাকসুদ কামাল।  


বিএনপির উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, বিএনপি নিজেরাই নিজেদের খাদ খুঁড়েছে। তারা এখন সে খাদের কিনারায়। আগামী নির্বাচনে তাদের নোংরামির জবাব দেবে জনগণ। তারা পরাজয়ের গভীর খাদে পতিত হবে।


মাদকবিরোধী অভিযান নিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) তদন্ত নিয়ে কাদের বলেন, তদন্ত করে, করুক। এটি তদন্তের জন্য শেখ হাসিনার সরকারই যথেষ্ট। আমরা এবার আটঘাট বেঁধে নেমেছি। কে রাঘববোয়াল, কে চুনোপুঁটি খোঁজা হচ্ছে।
 

তিনি বলেন, যারা মাদকবিরোধী অভিযান নিয়ে কথা বলে সেই বিএনপিতেও মাদকের গডফাদার আছে, এগুলো খোঁজা হচ্ছে। বিএনপির ঢাকা উত্তর কমিটিতে মাদকসেবী ও ব্যবসায়ী আছে বলে পত্রিকায় বক্তব্য ছাপা হয়েছে, এগুলোও খোঁজা হচ্ছে।


বিএনপিকে  উদ্দেশ্য করে কাদের আরও বলেন, একরামকে নিয়ে কথা হয়, একরাম কার লোক? একরামকে অন্যায়ভাবে মারা হয়েছে প্রমাণ হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে আপনাদের যারা আছে, তাদেরও খোঁজা হচ্ছে, ধরা হবে।  


আলোচনায় অংশ নেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্ম সম্পাদক আবদুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সদস্য মারুফা আক্তার পপি, ঢাবির উপ উপাচার্য অধ্যাপক নাসরীন আহমাদ, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান প্রমুখ।

 


Top