চুরি হলো একটি মোটরসাইকেল, উদ্ধার হলো ১২টি | daily-sun.com

চুরি হলো একটি মোটরসাইকেল, উদ্ধার হলো ১২টি

ডেইলি সান অনলাইন     ২৮ মে, ২০১৮ ১৮:৪০ টাprinter

চুরি হলো একটি মোটরসাইকেল, উদ্ধার হলো ১২টি

গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলা জেলা থেকে ১২টি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে বগুড়ার শাজাহানপুর থানা পুলিশ। রোববার রাতে অভিযান চালিয়ে এসব চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

এ সময় পুলিশ দুইজনকে আটক করেছে। সোমবার দুপুরে বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 

 

আটকরা হলেন- গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার নাকাইহাট এলাকার মৃত জালাল সরকারের ছেলে আব্দুল মান্নান (৪৫) ও সাঘাটা উপজেলার পূর্ব শিমুলতাইর এলাকার মিঠু মিয়ার ছেলে রাজু মিয়া (৩৫)।

 

 

পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা বলেন, কিছুদিন আগে বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার বনানী বাজার থেকে একটি মোটরসাইকেল চুরি হয়। পুলিশ মোটরসাইকেলটি উদ্ধারের জন্য অনুসন্ধান শুরু করে খবর পায় চুরি যাওয়া মোটরসাইকেল গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ থানার নাকাইহাট এলাকার রাখা হয়েছে। এরপর মোটরসাইকেল উদ্ধারের জন্য শাজাহানপুর থানা পুলিশ অভিযান শুরু করে।

 

 

অভিযানের এক পর্যায়ে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ থানার নাকাইহাট এলাকার আব্দুল মান্নানের বাড়ি থেকে একটি কালো লাল রংয়ের ডিসকভার ১২৫ সিসি ও একটি লাল রংয়ের ১২৫ সিসি বাজাজ প্লাটিনা চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়। পরে মান্নাকে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে আরও কিছু মোটরসাইকেলের তথ্য দেয়। সে অনুযায়ী জেলার সাঘাটা উপজেলার পূর্ব শিমুলতাইর এলাকার মিঠু মিয়ার ছেলে রাজু মিয়া বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ।

সেখানে একটি নীল কাল রংয়ের ডিসকভার ১২৫ সিসি চোরাই মোটরসাইকেল পাওয়া যায়।

 

 

আবার রাজু মিয়ার দেয়া তথ্য মোতাবেক সাঘাটা থানায় কচুয়া বাজার এলাকার শিহাব উদ্দিনের গ্যারেজে অভিযান পরিচালনা করে সাতটি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার হয়। ওই সময় আন্তঃজেলা মোটরসাইকেল চোর সিন্ডিকেটের সদস্য শিহাব পালিয়ে যায়। এছাড়া সাঘাটা থানার বাংলা বাজার এলাকা থেকে একটি ও সাঘাটা বাজার এলাকা হতে একটি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার হয়। উদ্ধারকৃত ১২টি মোটরসাইকেল আনুমানিক মূল্য ১৮ লাখ টাকা বলে জানান পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা।

 


Top