দুই লঞ্চের চাপায় ভেঙে গেল রহমতের পা | daily-sun.com

দুই লঞ্চের চাপায় ভেঙে গেল রহমতের পা

ডেইলি সান অনলাইন     ১৯ মে, ২০১৮ ২০:৪৭ টাprinter

দুই লঞ্চের চাপায় ভেঙে গেল রহমতের পা

রাজধানীর সদরঘাটে দুই লঞ্চের চাপায় পা হারাতে বসেছেন রহমত উল্লাহ (২২) নামে এক বেকারি শ্রমিক। শনিবার সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহত ওই ‌শ্রমিককে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রহমতকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া এনায়েত হোসেন বলেন, আমি এমভি আবে জমজম লঞ্চে কাজ করি। শনিবার সন্ধ্যায় আমাদের লঞ্চেই চাঁদপুর থেকে সদরঘাটে আসেন রহমত। লঞ্চটি টার্মিনালে আসার পর আমাদের লঞ্চের পাশেই জমজমেরই আরেকটি লঞ্চ বাঁধা ছিল।

 

 

তিনি বলেন, রহমত তাড়াহুড়ো করে নামার সময় দুই লঞ্চের ফাঁকে তার পা চাপা পড়ে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢামেকে নিয়ে আসি। ঢামেকের জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. মিনহাজ উদ্দিন বলেন, রহমতের পায়ের অবস্থা ভালো না, হাঁটুর নিচের অংশ থেঁতলানো। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- পায়ের মাংস থেঁতলে গেছে, হাড়ও ভেঙে গেছে। তবে এক্স-রে করার পর বলা যাবে আসলে কতটুকু ফ্র্যাকচার হয়েছে।

 

 

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই বাচ্চু মিয়া বলেন, রহমত উল্লাহর বাড়ি চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে গোবিন্দপুর গ্রামে। তার বাবার নাম লোকমান মিয়া। তিনি জানান, রহমত ঢাকার জুরাইনে ফ্যামিলি বেকারিতে কাজ করেন, সেখানেই থাকেন। দুই লঞ্চের চাপায় আহত হওয়ার পর রহমতকে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢামেকের জরুরি বিভাগে আনা হয়।

 


Top