রোহিঙ্গা আশ্রয়প্রার্থীদের চক্ষু চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম শীর্ষক সভা | daily-sun.com

অরবিস ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ-এর আয়োজনে

রোহিঙ্গা আশ্রয়প্রার্থীদের চক্ষু চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম শীর্ষক সভা

ডেইলি সান অনলাইন     ১৫ মে, ২০১৮ ১৮:২৩ টাprinter

রোহিঙ্গা আশ্রয়প্রার্থীদের চক্ষু চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম শীর্ষক সভা

 

 

 ‘কক্সবাজারের স্থানীয় জনগণ ও রোহিঙ্গা আশ্রয়প্রার্থীদের চক্ষু চিকিৎসা প্রদানে একটি শক্তিশালী রেফারেল প্রক্রিয়া প্রণয়নসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ডাক্তার, নার্স ও প্রাথমিক স্বাস্থ্য কর্মীদের প্রাথমিক চক্ষু পরিচর্যা বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রদান করা জরুরী। এতে করে মানসম্মত চক্ষু চিকিৎসা নিশ্চিত করা সম্ভবপর হবে’, বলেন ‘Consultative Meeting on Eye Health Situation in Cox’s Bazar: Focusing FDMNS and Host Community’ শীর্ষক পরামর্শমূলক সভার প্রধান অতিথি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের স্ট্র্যান্দেনিং হেলথ ইন্টারভেনশন ফর এফডিএমএন প্রকল্পের চীফ কোঅর্ডিনেটর মো: সিরাজুল ইসলাম।

 

আজ মঙ্গলবার কক্সবাজারের সায়মন বীচ রিসোর্টে অনুষ্টিত এ পরামর্শমূলক সভার যৌথ আয়োজক দ্য ইন্টারন্যাশলনার এজেন্সী ফর প্রিভেনশন অব ব্লাইন্ডনেস বাংলাদেশ চ্যাপ্টার ও আইএনজিও ফোরাম ইন আই হেলথ্।

 

পরামর্শমূলক সভার অন্যান্যদের মধ্যে ঢাকার জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের শিশু বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা: ফরহাদ হোসেন, গোপালগঞ্জের শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব চক্ষু হাসপাতাল ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা: সাইফুদ্দিন আহমেদ, কক্সবাজার জেলার ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা: মহিউদ্দিন মোহাম্মদ আলমগীর, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের প্রিন্সিপাল অধ্যাপক ডা: সুভাষ চন্দ্র সাহা, উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পা কর্মকর্তা ডা: আব্দুল মান্নান, অরবিস ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ-এর কান্ট্রি ডিরেক্টর ডা: মুনীর আহমেদ এবং কক্সবাজার বায়তুশ শরফ হাসাপাতালের সাধারণ সম্পাদক এমএম সিরাজুল ইসলামসহ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ব্র্যাক, আইসিডিডি আরবি, কক্সবাজার বায়তুশ শরফ হাসপাতাল, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র, হেল্প এজ ইন্টারন্যাশনাল, ইউনিসেফ, কমিউনিটি আই হাসপাতাল, Orbis, IOM, Fred Hollows, UNCHR, OBAT Helpers, MSF, Friendship, Handicap International, Save the Children, MOAS, Red Crescent, CDD and Relief International-এর প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

অরবিস ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ-এর কান্ট্রি ডিরেক্টর ডা: মুনীর আহমেদ সভার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সম্পর্কে বলেন। পাশাপাশি, যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক সংস্থা সেবা ফাউন্ডেশনের কন্সালটেন্ট ডা. জেরী ভিনসেন্ট Exploring the Needs and Gaps for Comprehensive Eye Health Situation Analysis of Cox’s Bazar বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত উপস্থাপন করেন। তিনি উপস্থাপনায়, বিভিন্ন সংস্থার চক্ষু চিকিৎসা কার্যক্রমের প্রয়োজনীয় পরিসংখ্যান ও তথ্যের ঘাটতির কথা উল্লেখ করে একটি সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণের মাধ্যমে কক্সবাজারে চক্ষু চিকিৎসা কার্যক্রম শক্তিশালী করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের পরামর্শ দেন।

 

সভার অংশগ্রহণকারীগণ আলোচনার পর নিম্নলিখিত পরামর্শ গ্রহণে মতামত প্রদান করেন।

 

১.     কক্সবাজরের স্থানীয় জনগণ ও রোহিঙ্গা আশ্রয়প্রার্থীদের চক্ষু চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম সমন্বয়ের জন্য একটি সমন্বিত উদ্যোগ প্রণয়ন;

২.     উখিয়া ও টেকনাফে প্রাথমিক চক্ষু চিকিৎসা সেবা কেন্দ্র স্থাপন, যা রেফারেল কেন্দ্র হিসেবে কাজ করবে;

৩.     রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্মরত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ডাক্তার, নার্সসহ প্রাথমিক স্বাস্থ্য কর্মীদের প্রাথমিক চক্ষু পরিচর্যা বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রদান;

৪.     চক্ষু চিকিৎসা সেবার জন্য প্রয়োজনীয় দক্ষ জনবল তৈরি করা;

৫.     চক্ষু চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য একটি সমন্বয় কমিটি গঠন;

৬.     মানসম্মত চক্ষু চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্য একটি শক্তিশালী রেফারেল প্রক্রিয়া প্রণয়ন;

৭.     একটি সমন্বিত জেলা চক্ষু চিকিৎসা বিষয়ক পরিকল্পা ও মনিটরিং পদ্ধতির প্রণয়ন।

 

মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, এ সভা থেকে প্রাপ্ত মতামত ও পরামর্শমূলক চোখের স্বাস্থ্য নিশ্চিতকরণে চোখের স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করছে এমন পেশাদার সংস্থা, নীতি নির্ধারকদের একটি ভালো ও সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টির মাধ্যমে আঞ্চলিক কৌশলগত পরিকল্পনা প্রণয়নে ভূমিকা রাখবে। বিশেষ করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল ও বায়তুশ শরফ হাসপাতালের চক্ষু চিকিৎসা কার্যক্রমকে আরো শক্তিশালী করতে ভূমিকা রাখবে।

 

অংশগ্রহণকারীগণ situation analysis report সবার সাথে শেয়ার করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও আইএনজিও ফোরাম ইন আই হেলথ্-এর সহযোগিতায় পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণের কথা বলেন।


Top