খুলনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের হয়রানি বন্ধে হাইকোর্টের নির্দেশ | daily-sun.com

খুলনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের হয়রানি বন্ধে হাইকোর্টের নির্দেশ

ডেইলি সান অনলাইন     ১৪ মে, ২০১৮ ১৩:৫১ টাprinter

খুলনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের হয়রানি বন্ধে হাইকোর্টের নির্দেশ

 

খুলনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের গণগ্রেফতার বা হয়রানি বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। সোমবার (১৪ মে) বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহানের করা এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।


আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু।


এর আগে খুলনা সিটি কর্পোরেশন (কেসিসি) নির্বাচন ঘিরে দলের নেতাকর্মীদের নির্বিচারে গ্রেফতারের অভিযোগ তুলে হাইকোর্টে রিট করে বিএনপির ভাইস চেয়ার‌ম্যান মো. শাহজাহান।


উল্লেখ্য, আগামীকাল ১৫ মে ভোটগ্রহণের দিন ধার্য করে ৩১ মার্চ গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। এর মধ্যে খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রধান দু’টি দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ পাঁচটি রাজনৈতিক দলের পাঁচ মেয়রপ্রার্থী, সাধারণ ৩১টি ওয়ার্ডের ১৪৮ জন এবং ১০টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডের ৩৯ জন কাউন্সিলর প্রার্থী নির্বাচনী লড়ছেন। তবে নির্বাচনী প্রচারণার শুরুর পর থেকে বিএনপি মনোনিত মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জুসহ দলের কেন্দ্রীয় নেতার তাদের সমর্থক ও নেতাকর্মীদের গ্রেফতার ও হয়রানির অভিযোগ করে আসছেন। এমনকি গত ৩ মে সকালে সমর্থক ও নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের প্রতিবাদে নির্বাচনে সব ধরনের প্রচার কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করেন নজরুল ইসলাম মঞ্জু। পরে আবার দুপুরে প্রাচারণায় ফিরে আসেন বিএনপি মনোনীত এই মেয়রপ্রার্থী । 


নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, নগরীর ৩১টি ওয়ার্ডে ২৮৯টি কেন্দ্রে এ ভোট গ্রহণ করা হবে। ভোটারদের সুবিধার্থে এক হাজার ৪২৮টি স্থায়ী বুথ ছাড়াও ৩৩টি অস্থায়ী বুথ নির্মাণ করা হয়েছে। এবার ২০২টি কেন্দ্রকে গুরুত্বপূর্ণ বা ঝুঁকিপূর্ণ ও ৮৬টিকে সাধারণ কেন্দ্র হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

 


Top