ভারত সরকারের সাথে শান্তি আলোচনা বাতিলের হুমকি অনুপ চেটিয়ার | daily-sun.com

হিন্দু আশ্রয়প্রার্থীদের নাগরিকত্ব বিতর্ক

ভারত সরকারের সাথে শান্তি আলোচনা বাতিলের হুমকি অনুপ চেটিয়ার

গৌতম লাহিড়ী, দিল্লি প্রতিনিধি     ১৩ মে, ২০১৮ ২১:৫৬ টাprinter

ভারত সরকারের সাথে শান্তি আলোচনা বাতিলের হুমকি অনুপ চেটিয়ার

উলফা নেতা অনুপ চেটিয়া

উলফা নেতা অনুপ চেটিয়া এবং তার সমমনা অন্যান্য নেতারা ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের সাথে প্রস্তাবিত শান্তি আলোচনা থেকে নিজেদেরকে প্রত্যাহার করে নেওয়ার হুমকি দিয়েছে।

 

বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং আফগানিস্তান থেকে পালিয়ে যাওয়া হিন্দু শরণার্থীদের নাগরিকত্ব প্রদানের জন্য আইন পাস করার সিদ্ধান্ত থেকে ভারত সরকার সরে না আসলে তারাও আর শান্তি আলোচনায় বসবেননা।

 

শুক্রবার গুয়াহাটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে উলফার শান্তি আলোচনায় আগ্রহী অংশটির চেয়ারম্যান অরবিন্দ রাজখোয়া এবং দলটির সাধারণ সম্পাদক অনুপ চেটিয়া এ ঘোষণা দেন।

 

নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল ২০১৬ লোকসভায় উত্থাপিত হয়েছিল ১৯৫৫ সালের নাগরিকত্ব আইনটির মধ্যে কিছু পরিবর্তন আনার উদ্দেশ্যে। বর্তমানে বিলটি সংসদীয় কমিটির সর্বসম্মত সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছে।

 

আইনটি পাস হলে বাংলাদেশ, আফগানিস্তান এবং পাকিস্তানের হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন, পার্সি এবং খ্রিস্টানরা ভারতের নাগরিকত্ব পাবে যদি তারা দেশটিতে কমপক্ষে ৬ বছর অবস্থান করে।

 

বিজেপি সাংসদ রাজেন্দ্র আগারওয়ালের নেতৃত্বাধীন ১৬-সদস্যের একটি যৌথ সংসদীয় কমিটি গত ৭ মে-৯ মে আসামের বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তিবর্গের মতামত সংগ্রহের উদ্দেশ্যে রাজ্যটিতে ভ্রমণ করেন।

 

উলফা-আসাম গণ-পরিষদসহ রাজ্যটির বেশিরভাগ মানুষই নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল ২০১৬’র বিরোধিতা করছে।

 

উত্তর-পূর্ব ভারতের সবচেয়ে বড় জঙ্গি দল উলফার একটি বড় অংশ অনুপ চেটিয়াদের নেতৃত্বে ভারত সরকারের সঙ্গে শান্তি আলোচনায় বসেছে। সে কারণে উভয় পক্ষের মধ্যে চলছে অস্ত্রবিরতি।

 

অনুপ চেটিয়া বরং আসাম চুক্তি মেনে ৭১ সালের পরে যারা এসেছে, তাদের শনাক্ত করে বিতাড়নের দাবি তোলেন।

 

অনুবাদ: মুহতাসিম আল মামুন


Top