ফ্রি ওয়াইফাই বানিয়ে দিল কুলি থেকে অফিসার! | daily-sun.com

ফ্রি ওয়াইফাই বানিয়ে দিল কুলি থেকে অফিসার!

ডেইলি সান অনলাইন     ৯ মে, ২০১৮ ১৫:৩৯ টাprinter

ফ্রি ওয়াইফাই  বানিয়ে দিল কুলি থেকে অফিসার!

মাথায় বোঝা, কানে হেডফোন। ভারতের কেরলের এনরাকুলাম স্টেশনের এই কুলিকে দেখে অনেকেই হয়তো ভাবতেন তিনি কানে হেডফোন গুঁজে হয়তো গান শুনছেন।

অথবা কথা বলার জন্য এই ব্যবস্থা। কিন্তু এমন যাঁরা ভাবতেন, তাঁদের সম্পূর্ণ ভুল প্রমাণ করে দিয়েছেন শ্রীনাথ নামে ওই কুলি। 

 

আসলে রেল স্টেশনের ফ্রি ওয়াই-ফাই পরিষেবার সাহায্য নিয়ে মাল বইতে বইতেই ডিজিটাল কোর্সের সাহায্যে পড়াশোনা করতেন শ্রীনাথ। আর এভাবেই কেরলের সরকারি চাকরির লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ন হয়েছেন শ্রীনাথ। মৌখিক পরীক্ষায় পাশ করলে তিনি কেরলের ভূমি রাজস্ব দফতরের গ্রাম্য সহায়কের পদে চাকরি পাবেন।

 

সংবাদসংস্থা পিটিআই-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, কেরলের মুন্নারের বাসিন্দা এই শ্রীনাথ। তাঁর বাড়ির কাছাকাছি সবথেকে বড় স্টেশন এনরাকুলাম। স্টেশনের ওয়াই-ফাই ব্যবহার করে সোশ্যাল মিডিয়ায় সময় না কাটিয়ে কীভাবে নিজের ভবিষ্যত গড়ে তোলা যায়, সেই নজিরই সৃষ্টি করে ফেলেছেন শ্রীনাথ।

 

শ্রীনাথের কথায়, ‘‘এই নিয়ে আমি তিনবার সরকারি চাকরির পরীক্ষায় বসলাম। কিন্তু এবারই প্রথম আমি স্টেশনের ওয়াই-ফাই পরিষেবা ব্যবহার করে পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। মাথায় মাল বইতে বইতে আমি হেডফোনে স্টাডি মেটেরিয়ালের পড়া শুনতাম। মনে মনে প্রশ্নের উত্তর সলভ করতাম। এভাবেই কাজ করতে করতেই পড়তাম আমি। আর বাড়ি গিয়ে এই পড়াগুলি ঝালিয়ে নিতাম।’’

 

পরিবারের আর্থিক অবস্থার কথা মাথায় রেখে কুলির কাজ ছাড়া সম্ভব হয়নি হাইস্কুল পাশ করা শ্রীনাথের। তাই রেল স্টেশনের ওয়াই-ফাই পরিষেবা তাঁর সামনে এক অপ্রত্যাশিত সুযোগ নিয়ে হাজির হয়েছিল। নিজের স্মার্টফোন থেকে সহজেই অনুশীলনের জন্য প্রশ্নপত্র ডাউনলোড করা, পরীক্ষার অনলাইন প্রশ্নপত্র পূরণ করার মতো কাজ সহজেই সেরে ফেলতেন তিনি। সবথেকে বড় কথা বই কেনার খরচও বেঁচে যেত তাঁর।

 

স্বপ্নপূরণের অনেকটাই কাছাকাছি পৌঁছেছেন শ্রীনাথ। তবু আত্মতুষ্ট হতে নারাজ তিনি। সংবাদসংস্থাকে ফোনে তিনি জানিয়েছেন, ‘‘আমি পড়াশোনা চালিয়ে যাব। বাড়ির জন্য আমায় কাজ করতেই হবে। তার পাশাপাশি আমি চাকরির পরীক্ষাতেও বসব। একের পর এক পরীক্ষা দিতে থাকলে কোনও না কোনও চাকরি তো আমি পেয়েই যাব।’’ 

 


Top