পাসে এগিয়ে ছাত্রীরা, জিপিএ-৫ এ ছাত্ররা | daily-sun.com

পাসে এগিয়ে ছাত্রীরা, জিপিএ-৫ এ ছাত্ররা

ডেইলি সান অনলাইন     ৬ মে, ২০১৮ ১৬:০৮ টাprinter

পাসে এগিয়ে ছাত্রীরা, জিপিএ-৫ এ ছাত্ররা

- আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীদের উল্লাস; ছবি- কামরুল ইসলাম রতন

 

চলতি বছরের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষায় পাসের হারের দিক দিয়ে ছাত্রদের চেয়ে ছাত্রীরা এগিয়ে রয়েছে। তবে ফলাফলের দিক দিয়ে মেধার সর্বোচ্চ সূচক জিপিএ-৫ পাওয়ার ক্ষেত্রে ছাত্ররা এগিয়ে রয়েছে।

রবিবার (৬ মে) সকালে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ গণভবনে শেখ হাসিনার হাতে ফলাফলের অনুলিপি হস্তান্তর করেন। এসময় বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরা তার সঙ্গে ছিলেন।


এবার এসএসসি ও সমমানে গড় পাসের হার ৭৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ। মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ১০ হাজার ৬২৯ জন শিক্ষার্থী। ১০ বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২০ লাখ ২৬ হাজার ৫৭৪ জন। এর মধ্যে পাস করেছে ১৫ লাখ ৭৬ হাজার ১০৪ জন।


এবার ১০ শিক্ষা বোর্ডে মোট অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থীর মধ্যে ছাত্র ছিল ১০ লাখ ২২ হাজার ৩২০ জন। এর মধ্যে পাস করেছে ৭ লাখ ৮৪ হাজার ২৪৫ জন। আর অংশগ্রহণকারী ছাত্রী ছিল ১০ লাখ ৪ হাজার ২৫৪ জন। এর মধ্যে পাস করেছে ৭ লাখ ৯১ হাজার ৮৫৯ জন। এতে দেখা যায়, ছাত্রদের পাসের হার ৭৬ দশমিক ৭১ শতাংশ। আর ছাত্রীদের পাসের হার ৭৮ দশমিক ৮৫ শতাংশ। অর্থাৎ ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীদের পাসের হার ২ দশমিক ১৪ শতাংশ বেশি।


অন্যদিকে, মোট জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছাত্র ৫৫ হাজার ৭০১ জন। আর ছাত্রী ৫৪ হাজার ৯২৮ জন। এখানে ছাত্ররা ছাত্রীদের চেয়ে এগিয়ে আছে।


কয়েক বছর ধরেই প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে ভর্তির ক্ষেত্রে ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীরা বেশি। শিক্ষাক্ষেত্রে সহস্রাব্দ লক্ষ্যমাত্রা (এমডিজি) অর্জনের নির্ধারিত সময়ের আগেই বাংলাদেশ প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে লৈঙ্গিক সমতা অর্জন করেছে।


উল্লেখ্য, এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সারাদেশে ও দেশের বাইরে কয়েকটি কেন্দ্রে একযোগে এসএসসি ও সমমানের লিখিত বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। আর ব্যবহারিক পরীক্ষা ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ৪ মার্চ পর্যন্ত চলে। এ বছর ৩ হাজার ৪১২টি কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।


এসএসসিতে মোট পরীক্ষার্থী ১৬ লাখ ২৭ হাজার ৩৭৮ জন, মাদ্রাসা বোর্ডের অধীন দাখিল পরীক্ষায় ২ লাখ ৮৯ হাজার ৭৫২ জন এবং কারিগরিতে ১ লাখ ১৪ হাজার ৭৬৯ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়।


গত কয়েক বছর থেকে তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে ফল প্রকাশ করে আসছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরই ধারাবাহিকতায় আজ রবিবার ফলাফল দিচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

 


Top