নির্বাচনকালীন সরকারে বিএনপির মন্ত্রী থাকার সুযোগ নেই: কাদের | daily-sun.com

নির্বাচনকালীন সরকারে বিএনপির মন্ত্রী থাকার সুযোগ নেই: কাদের

ডেইলি সান অনলাইন     ৩ মে, ২০১৮ ১৪:৫১ টাprinter

নির্বাচনকালীন সরকারে বিএনপির মন্ত্রী থাকার সুযোগ নেই: কাদের

 

জাতীয় সংসদে বিএনপির প্রতিনিধিত্ব না থাকায় নির্বাচনকালীন সরকারের টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী হওয়ার তাদের কোনো সুযোগ নেই বলে উল্লেখ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, তাদের আর কোনো প্রস্তাবও দেয়া হবে না।

বৃহস্পতিবার (৩ মে) সচিবালয়ে সমসাময়িক ইস্যু নিয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে একথা জানান ওবায়দুল কাদের।


তিনি বলেন, গতবার শুধু সরকারে অংশগ্রহণ নয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মতো গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ও বিএনপিকে অফার করা হয়েছিল প্রকাশ্যে। সেটি ছিল ওপেন সিক্রেট। সবাই জানেন। সেটা পার্লামেন্টে প্রতিনিধিত্বকারী দল হিসেবে। তারা তা প্রত্যাখান করেছিলেন। এবার সাংবিধানিকভাবেই নির্বাচনকালীন সরকারে মন্ত্রী হিসেবে তাদের আর থাকার সুযোগ নেই। বলেন, পার্লামেন্টে প্রতিনিধিত্বকারী দল নয় এমন কাউকে সরকারে এবার আমন্ত্রণ জানানো হবে এমন কোনো চিন্তা-ভাবনা সরকারের নেই।


তিনি বলেন, বিএনপি খালেদা জিয়া ছাড়া নির্বাচনে আসবে না, তারা এভাবে যে ভাঙা রেকর্ড বাজাচ্ছেন, এতে লাভ হবে না। তারা না আসলেও নির্বাচনী ট্রেন তাদের জন্য থেমে থাকবে না। দেশের সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে নির্বাচন হবে। এটি সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা।


এক প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি আগেও নির্বাচন প্রতিহত করার চেষ্টা করেছেন, জনগণ তা হতে দেয়নি। এবারও তাদের প্রতিহত করবে জনগণ। তারা কখনই দেশে নির্বাচন বন্ধ করতে পারবে না।


মন্ত্রী বলেন, ২০১৪ সালে বিএনপি নির্বাচন প্রতিহত করতে সন্ত্রসী কর্মকাণ্ড করেছে। কানাডার আদালত তাদের সন্ত্রাসী দল হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। এবার নির্বাচনে তারা এমন চেষ্টা করলে সন্ত্রাসী দল হিসেবে নাম মুছতে পারবে না।


বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের বক্তব্যের সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী সত্য কথা বললেই বিএনপির গাত্রদাহ শুরু হয়। তারেক রহমান দুর্নীতিগ্রস্ত একজন ব্যক্তি। আদালত তাকে দুর্নীতির দায়ে সাঁজা দিয়েছেন। বলেন, খালেদা জিয়া গ্রেফতারের আগে তাড়াহুড়া করে তাদের সংবিধানের ৭ ধারা সংশোধন করেছেন শুধুমাত্র তারেক রহমানকে দলের প্রধান করতে। ফলে এ থেকে প্রমাণিত হয়েছে বিএনপি একটি দুর্নীতিগ্রস্ত একটি দল।


বিএনপির আন্দোলন প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, বিএনপির আন্দোলনের কোনো ত্রুটি নেই। কিন্তু জনগণ তাদের আন্দোলনে সাড়া দিচ্ছে না। এজন্য তারা অফিসে বসে ভাঙা রেকর্ড বাজাচ্ছেন।


বিএনপির একাংশকে নির্বাচনে আনতে সরকার ভেতরে ভেতরে চেষ্টা করছে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, এটা নির্বাচন আসলে বলা যাবে। তবে সরকার এ ধরনের কোনো উদ্যোগ নেবে না। তবে যদি কেউ নির্বাচনে আসতে চায় তাহলে তাকে তো আর কেউ আটকে রাখতে পারবে না।

 


Top